রাজারহাট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রাজারহাট
রাজাহাট
রাজারহাটের স্কাইলাইন
রাজারহাটের স্কাইলাইন
জনসংখ্যা (২০০১)
 • মোট২,৭১,৭৮১

রাজারহাট ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তর ২৪ পরগণা জেলার একটি শহর ও পৌরসভা এলাকা।

নারকেল বাগান চৌমাথা।

নামকরণের ইতিহাস

রাজা গজেন্দ্র নারায়ণ রায় সম্রাট জাহাঙ্গীরের অধীনে অর্থ কর্মকর্তাদের একজন ছিলেন, হাভেলি শাহর (বর্তমানে হালিশহর) বসবাস করেছিলেন। উত্তরের ২4 পরগনায় বৃহত্তর অংশে তাঁর বিশাল জমিদারি ছিল। একদিন তিনি লাবণ্যবতী নদী (বর্তমানে নোয়া খাল নামে একটি সংকীর্ণ খাল) বরাবর বাজরা তাঁর জমিদারিতে যাচ্ছেন। হঠাৎ করে দুর্ঘটনার ফলে বাজরা ডুবে গেল এবং তার পাশে সব যাত্রী ডুবে গেল। এই দুর্ঘটনার পর তিনি হালিশহর ফিরে আসতে অস্বীকার করেন এবং এই স্থানে বসার সিদ্ধান্ত নেন। লাবণ্যবতী নদীর উত্তরে তিনি তাঁর বাসভবন নির্মাণ করেন। তার বাড়ির চারপাশে একটি গ্রাম বড় হয়ে উঠল যা এখনও রাজবাটি বা রাজবাড়ী নামে পরিচিত। এই গ্রামটি জোজেড়া ও বেরবাড়ী গ্রামের ২ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত। পরবর্তীকালে তার প্রজাদের অনেক পরিবারই এই জায়গাটির চারপাশে বসতে শুরু করে এবং বাজার শুরু হয় যা তারা রাজার হাট নামে পরিচিত। এই বাজারটি এখনো কাহিহতির পূর্ব দিকে অবস্থিত - বিষ্ণুপুর রোড ও পুরনো শ্যামবাজার - বাসিরহাট লাইট রেললাইন, বর্তমানে বাগুইটি - রাজরহাট রোড নামে পরিচিত। এই রাজা গজেন্দ্র নারায়ণ রায়ের পরবর্তী 7 ম প্রজন্ম দুর্গা প্রসাদ রায় বেহালায় বসতি স্থাপন করেছিলেন এবং তাকে বেহালা দর্শনীয় রে পরিবারের প্রতিষ্ঠাতা বলে মনে করা হয়।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

ভারতের ২০০১ সালের আদম শুমারি অনুসারে রাজারহাট শহরের জনসংখ্যা হল ২৭১,৭৮১ জন।[১] এর মধ্যে পুরুষ ৫২% এবং নারী ৪৮%।

এখানে সাক্ষরতার হার ৭৬%। পুরুষদের মধ্যে সাক্ষরতার হার ৮১% এবং নারীদের মধ্যে এই হার ৭২%। সারা ভারতের সাক্ষরতার হার ৫৯.৫%, তার চাইতে রাজারহাট এর সাক্ষরতার হার বেশি।

এই শহরের জনসংখ্যার ১০% হল ৬ বছর বা তার কম বয়সী।

যোগাযোগ[সম্পাদনা]

বিশ্ব বাংলা সরণি (পূর নাম- মেজোর আর্টেরিয়াল রোড), রাজারহাট,কলকাতা

রাজারহাট একটি পরিকল্পিত শহর।ফলে এই শহরের সড়ক গুলিপরিকল্পিত ও প্রসস্থ।এই শহরের প্রধান সড়কটি মেজোর আর্টেরিয়াল রোড নামে পরিচিত।এই সড়কটি দক্ষিণে সেক্টর ফাইভ হয়ে কলকাতার ই এম বাইবাসের সঙ্গে যুক্ত এবং উত্তর প্রন্ত বিমানবন্দরের দিকে ভিআইপি রোডে যুক্ত হয়েছে। এই শহরে কোনো রেল ব্যবস্থা নেই।বর্তমানে রাজারহাটে কলকাতা মেট্রোর কাজ চলছে।এই শহরে গড়িয়া-এয়ারপোর্ট লাইন নির্মিত হচ্ছে। শহরটি থেকে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর মাত্র ১০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ভারতের ২০০১ সালের আদম শুমারি"। সংগ্রহের তারিখ ১৫ই অক্টোবর ২০০৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)