রক মার্টিন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

রক মার্টিন
A square-tailed brown swallow
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: কর্ডাটা
শ্রেণী: পক্ষী
বর্গ: Passeriformes
পরিবার: Hirundinidae
গণ: Ptyonoprogne
প্রজাতি: P. fuligula
দ্বিপদী নাম
Ptyonoprogne fuligula
(Lichtenstein, 1842)[২]
Map showing the breeding areas in Africa
      Approximate range
প্রতিশব্দ

Hirundo fuligula Lichtenstein, 1842

পাথুরে মার্টিন (রক মার্টিন), দ্বিপদ নাম Ptyonoprogne fuligula হচ্ছে সোয়ালো পরিবারের ছোট প্যাসারিন পাখি। এরা মধ্য ও দক্ষিণ আফ্রিকার দেশগুলোতে বাস করে। এরা প্রধানত পার্বত্য এলাকায় বাস করে কিন্তু নিচু এলাকাতেও দেখা যায়। এরা সর্বদা জল থেকে দূরে থাকে।

শ্রেণীবিন্যাস[সম্পাদনা]

১৮৪২ সালে জার্মান অভিযাত্রী এবং প্রাণীবিজ্ঞানী মার্টিন লিচটেনস্টেইন রক মার্টিনের নামকরণ করেন হাইরান্ডো ফুলিগুলা। ১৮৫০ সালে জার্মান পক্ষীবিদ হেইনরিখ গুস্তাভ রেইখেনবেখ এদের বর্তমান গণে স্থানান্তরিত করেন। এদের নিকটাত্মীয় এই গণের অন্য তিন সদস্য, পেল ক্রেগ মার্টিন, P. obsoleta , ডাস্কি ক্রেগ মার্টিন, P. concolor এবং ইউরেশিয় ক্রেগ মার্টিন, P. rupestris. গণ নামটি এসেছে গ্রীক ptuon (φτυον), "একটি পাখা", এবং Procne (Πρόκνη), (পুরাকাহিনীরর বালিকা যে সোয়ালো পাখিতে রুপান্তরিত হয়) থেকে। প্রজাতি নাম এসেছে লাতিন ভাষা থেকে।

বর্ণনা[সম্পাদনা]

রক মার্টিনের উপপ্রজাতি P. f. fuligula ১২-১৫ সেমি লম্বা। এদের শরীরের উপরের অংশ ধূসর বাদামী এবং খাটো পুচ্ছ। এদের চোখের রঙ বাদামী। এদের খাটো চঞ্চু প্রধানত কালো এবং পা বাদামী-গোলাপী। স্ত্রী ও পুরুষ পাখি দেখতে একই রকম।

বাসস্থান[সম্পাদনা]

রক মার্টিন আফ্রিকার উত্তর থেকে নাইজেরিয়া, চাদ থেকে ইথিওপিয়ায় উপযোগী পরিবেশ পেলেই এরা বসতি নির্মাণ করে। জনচলাচল নেই এমন পরিবেশে এদের সংখ্যা অনেক বেশী। গ্যাবনে এদেরকে কালেভদ্রে দেখা যায়। কংগোতে এদের অবস্থান সম্পর্কে কোন তথ্য নেই। এরা পাহাড় পর্বত প্রধান অঞ্চলে বাস করে। সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে ৩৭০০ মিটার উঁচু পর্যন্ত পর্বত গুহা, চুড়ায় এরা বাসা বাঁধে। কিন্তু নিম্নভূমিতে পাথর অথবা দালান থাকলে এবং পানির অবস্থান থেকে দূরে হলে সেখানেও এরা বাসা বাধে।

তথ্য সূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Hirundo fuligula"বিপদগ্রস্ত প্রজাতির আইইউসিএন লাল তালিকা। সংস্করণ 2013.2প্রকৃতি সংরক্ষণের জন্য আন্তর্জাতিক ইউনিয়ন। ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  2. Lichtenstein, Martin (১৮৪২)। Verzeichniss einer Sammlung von Säugethieren und Vögeln aus dem Kaffernlande, nebst einer Käffersammlung [Directory of a collection of mammals and birds from the Kaffir country] (German ভাষায়)। Berlin: Royal Academy of Sciences। পৃষ্ঠা 18। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]