যদুনাথ চৌধুরীর জমিদার বাড়ি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
যদুনাথ চৌধুরীর জমিদার বাড়ি
বিকল্প নামবড়-য়া পাড়া জমিদার বাড়ি
সাধারণ তথ্য
ধরনবাসস্থান
অবস্থানরাউজান উপজেলা
ঠিকানাবড়-য়া পাড়া গ্রাম
শহররাউজান উপজেলা, চট্টগ্রাম জেলা
দেশবাংলাদেশ
খোলা হয়েছেঅজানা
বন্ধ করা হয়েছে১৯৫৭
স্বত্বাধিকারীযদুনাথ চৌধুরী
কারিগরী বিবরণ
পদার্থইট, সুরকি ও রড
তলার সংখ্যা০২ (দুই)

যদুনাথ চৌধুরীর জমিদার বাড়ি বাংলাদেশ এর চট্টগ্রাম জেলার রাউজান উপজেলার বড়-য়া পাড়া গ্রামে অবস্থিত এক ঐতিহাসিক জমিদার বাড়ি

ইতিহাস[সম্পাদনা]

কবে নাগাদ এই জমিদার বাড়িটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে তার সঠিক তথ্য জানা যায়নি। এই জমিদার বংশের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন জমিদার যদুনাথ চৌধুরী। তার নামেই এই জমিদার বাড়ি স্থানীয়দের কাছে পরিচিত। তার জমিদারীর আওতায় রাউজান উপজেলার পশ্চিম রাউজান মৌজা, পুর্ব রাউজান মৌজা, কদলপুর মৌজা, উত্তর গুজরা মৌজা, গুহরা মৌজা, উনসত্তর পাড়া মৌজা, কেউটিয়া মৌজার প্রায় পাঁচশত বেয়াল্লিশ একর জমি ছিল। বর্তমানে বসতভিটা ছাড়া তেমন আর সম্পত্তি নেই। ১৯৫৭ সালে জমিদারী প্রথা বিলুপ্তির পর জমিদার যদুনাথ চৌধুরী অনেক সম্পদ বিক্রি করে ফেলেছেন। এছাড়াও তার মৃত্যুর পর তার ছেলেমেয়েরাও অনেক সম্পত্তি বিক্রি করে ফেলেছেন। আবার অনেক সম্পত্তি স্থানীয় প্রভাবশালীরা দখল করে নিয়েছে। এই জমিদারের দশজন ছেলে ও নয়জন কন্যা সন্তান ছিল। বর্তমানে দশ ছেলের মধ্যে একজন বেঁচে আছেন। আর মেয়েরা সকলে এখনো বেঁচে আছেন। [১]

অবকাঠামো[সম্পাদনা]

জমিদার বাড়ির স্মৃতিস্বরূপ এখন একটি দ্বিতল বিশিষ্ট ভবন ছাড়া আর কিছুই অবশিষ্ট নেই। এই দ্বিতল ভবনটিও এখন অনেকাংশ প্রায় ধ্বংস হয়ে গেছে।

বর্তমান অবস্থা[সম্পাদনা]

এখনো এই জমিদার বাড়ির বংশধররা এখানে বসবাস করতেছেন। তবে জমিদার বাড়ির তৈরি করা সাবেক ভবনটি এখন বসবাসের অনুপযোগী হওয়ায় সবাই আলাদা-আলাদাভাবে বাড়ি তৈরি করে বসবাস করতেছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]