মুখের লালা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

লালা হল একটি শারীরিয় তরল বস্তু যা প্রানীর মুখের লালা গ্রন্থি হতে উৎপন্ন হয়। মানব লালার ৯৯.৫টেমপ্লেট:Wj% পানি সহ ইলেক্ট্রোলাইট, শ্লেষ্মা, শ্বেত লোহিত কনিকা, এপিথেলিয়াল কোষ (যা থেকে ডিএনএ বের করা যাবে), এনজাইম (যেমন এ্যামিলেস এবং লাইপেজ), এন্টিমাইক্রোবিয়াল এজেন্ট নি:সৃরক যেমন IgA এবং lysozyme.[১]

খাদ্যকনা এবং চর্বি হজম প্রক্রিয়ার শুরুতে লালাস্থিত এনজাইমগুলো গুরুত্বপূর্ন। এইসকল এনজাইম দাতের ফাকে আটকে থাকা খাদ্যকনাও ভাঙ্গতে সাহায্য করে যার মাধ্যমে ব্যাক্টেরিয়ার আক্রমন হতে দাতকে সুরক্ষার কাজটিও করে থাকে। [২] খাদ্য ভেজাতে, গিলার সুবিধা এবং মুখের অভন্ত্যরের শ্লেষাজিল্লির উপরিস্তর রক্ষার্থে লালা পিচ্ছিলকারক উপাদান হিসেবে কাজ করে।[৩]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Physiology at MCG 6/6ch4/s6ch4_6
  2. Fejerskov, O.; Kidd, E. (২০০৭)। Dental Caries: The Disease and Its Clinical Management (2nd সংস্করণ)। Wiley-Blackwell। আইএসবিএন 978-1-4051-3889-5 
  3. Edgar, M.; Dawes, C.; O'Mullane, D. (২০০৪)। Saliva and Oral Health (3 সংস্করণ)। British Dental Associationআইএসবিএন 0-904588-87-4 

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Bahar, G.; Feinmesser, R.; Shpitzer, T.; Popovtzer, A.; Nagler, R. M. (২০০৭)। "Salivary analysis in oral cancer patients: DNA and protein oxidation, reactive nitrogen species, and antioxidant profile"। Cancer109 (1): 54–59। doi:10.1002/cncr.22386PMID 17099862 
  • Banerjee, R. K.; Bose, A. K.; Chakraborty, T. K.; De, S. K.; Datta, A. G. (১৯৮৫)। "Peroxidase-catalysed iodotyrosine formation in dispersed cells of mouse extrathyroidal tissues"। J Endocrinol106 (2): 159–165। doi:10.1677/joe.0.1060159PMID 2991413 
  • Banerjee, R. K.; Datta, A. G. (১৯৮৬)। "Salivary peroxidases"। Mol Cell Biochem70 (1): 21–29। doi:10.1007/bf00233801PMID 3520291 
  • Bartelstone, H. J. (১৯৫১)। "Radioiodine penetration through intact enamel with uptake by bloodstream and thyroid gland"। J Dent Res30 (5): 728–733। doi:10.1177/00220345510300051601PMID 14888774 
  • Bartelstone, H. J.; Mandel, I. D.; Oshry, E.; Seildlin, S. M. (১৯৪৭)। "Use of radioactive iodine as a tracer in the Study of the Physiology of teeth"। Science106 (2745): 132। doi:10.1126/science.106.2745.132-a 
  • Edgar, M.; Dawes, C.; O'Mullane, D. (২০০৪)। Saliva and Oral Health (3rd সংস্করণ)। British Dental Associationআইএসবিএন 0-904588-87-4 

বহিঃসূত্র[সম্পাদনা]