মাইকেল লার্নস টু রক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মাইকেল লার্নস টু রক
আরো যে নামে
পরিচিত
MLTR
উদ্ভবAarhus, ডেনমার্ক
ধরনসফট রক
পপ রক
অল্টারনেটিভ রক
কার্যকাল১৯৮৮-বর্তমান
লেবেলEMI Records
Medley Records
MLTR Music (Most albums and singles sold under licence by Warner Music, except Scandinavia, sold under licence by Sony Music)
ওয়েবসাইটwww.mltr.dk
সদস্যবৃন্দজ্যাশা রিকটার
মিক্কিল লেন্তজ
কারে ওয়ানচার
প্রাক্তন সদস্যবৃন্দসেরেন ম্যাডসেন

মাইকেল লার্নস টু রক (ইংরেজি: Michael Learns to Rock) একটি জনপ্রিয় ড্যানিশ পপ, সফট রক ব্যান্ড। জ্যাশা রিকটার, মিক্কিল লেন্তজ এবং কারে ওয়ানচার নিয়ে গঠিত ব্যান্ডদলটি ড্যানিশ হলেও, মূলত ইংরেজিতে গান পরিবেশন করে। ১৯৮৮ সালে যাত্রা শুরু করা এই ব্যান্ডের সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত ১১ মিলিয়ন রেকর্ড বিক্রি হয়েছে, যার মধ্যে বেশির ভাগই বিক্রি হয়েছে এশিয়ায়। ২০০৬ সালে তাদের গাওয়া 'টেক মি টু ইওর হার্ট' গানটি 'মোস্ট ডাউনলোডেড সিঙ্গেল অফ দি ইয়ার ২০০৬' এ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছিল। [১]

ব্যান্ড সদস্য[সম্পাদনা]

বর্তমান সদস্য
  • জ্যাশা রিকটার - মুল কণ্ঠ, কিবোর্ড, গীটার. (১৯৮৮-বর্তমান)
  • মিক্কিল লেন্তজ - মুল গীটার, কিবোর্ড (১৯৮৮-বর্তমান)
  • কারে ওয়ানচার - ড্রামস্‌, ঘাতবাদ্য (১৯৮৮-বর্তমান)
প্রাক্তন সদস্য
  • সেরেন ম্যাডসেন - বেজ গিটার, রিদম গিটার, সহকারী কণ্ঠ, ঘাতবাদ্য (১৯৮৮–২০০০)

পুরস্কার ও মনোনয়ন[সম্পাদনা]

1. "গোল্ড প্রিইস পুরস্কার", আরএসএইস, জার্মানি.

2. "দ্যা বেস্ট পারফরমিং এক্ট অফ দ্যা ইয়ার", সিঙ্গাপুর, এসইএ গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড

3. "মোস্ট ডাউনলোডেড সিঙ্গেল অফ দি ইয়ার ২০০৬" "টেক মি টু ইওর হার্ট"

4."The 2004 CD-Award" for the best selling International artist in চীন ever.

ডিস্ক তালিকা[সম্পাদনা]

আরও জানার জন্য দেখুন মাইকেল লার্নস টু রক ডিস্ক তালিকা

  • ব্লিচ (১৯৮৯)
  • মাইকেল লার্নস টু রক (১৯৯১)
  • কালারস (১৯৯৩)
  • প্লেয়েড অন পিপের (১৯৯৫)
  • নাথিং টু লুস (১৯৯৭)
  • ব্লু নাইট (২০০০)
  • মাইকেল লার্নস টু রক (2004)
  • ইটার্নিটি (২০০৮)
  • স্ক্যান্ডিনেভিয়া (২০১২)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ঢাকা পৌঁছেছে মাইকেল লার্নস টু রক"দৈনিক প্রথম আলো। জুন ২০, ২০১২। ৬ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]