বিষয়বস্তুতে চলুন

মমিতা বৈজু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মমিতা বৈজু
জন্ম
কিদাঙ্গুর, কোট্টায়ম, কেরল, ভারত
জাতীয়তাভারতীয়
মাতৃশিক্ষায়তনসেক্রেড হার্ট কলেজ, থেভারা
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন২০১৭–বর্তমান

মমিতা বৈজু একজন ভারতীয় অভিনেত্রী, যিনি মূলত মালয়ালম চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। তিনি ২০১৭ সালে সর্বোপরি পালাক্কারন-এর মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন। তিনি অপারেশন জাভা (২০২১)-এ আলফোনসা, খো খো (২০২১)-এ আঞ্জু, সুপার শরণ্যা (২০২২)-এ সোনা, প্রণয়া বিলাসম (২০২৩)-এ গোপিকা এবং প্রেমালু (২০২৪)-এ রিনু চরিত্রে অভিনয় করে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন।[১][২]

প্রারম্ভিক জীবন ও শিক্ষা[সম্পাদনা]

মমিতা বৈজু কেরলের কোট্টায়ম জেলার কিদাঙ্গুরের বাসিন্দা।[৩] তার বাবা-মা হলেন বৈজু কৃষ্ণান ও মিনি।

মমিতা মেরি মাউন্ট পাবলিক স্কুল, কাট্টাচিরা এবং এন.এস.এস. উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কিদাঙ্গুরে তার বিদ্যালয় পাঠ সম্পন্ন করেছেন। তিনি বর্তমানে কোচির সেক্রেড হার্ট কলেজ থেকে মনোবিজ্ঞানে স্নাতক করছেন।[৪]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

টীকা
Films that have not yet been released এখনও মুক্তি পায়নি এমন চলচ্চিত্র বোঝায়
বছর শিরোনাম ভূমিকা মন্তব্য সূত্র
২০১৭ সর্বোপরি পালাক্কারন রাজি অভিষেক চলচ্চিত্র [৫]
হানি বি ২: সেলিব্রেশনস সিসিলি থাম্বি অ্যান্টনি [৬]
২০১৮ ডাকিনী আরতী [৭]
কৃষ্ণম চিত্রা [৮]
ভরতন সান্দ্রা [৯]
স্কুল ডায়েরি ইন্দু [১০]
২০১৯ অ্যান ইন্টারন্যাশনাল লোকাল স্টোরি দেবিকা [১১]
ভিক্রুতি সুহারা [১২]
২০২০ কিলোমিটার্স অ্যান্ড কিলোমিটার্স কচুমোল [৯]
২০২১ অপারেশন জাভা আলফোনসা [১৩]
খো খো আঞ্জু [১৪]
২০২২ রান্ডু কুঞ্জুমোল [১৫]
সুপার শরণ্যা সোনা থমাস [১৬]
২০২৩ প্রণয়া বিলাসম গোপিকা [১৭]
রামচন্দ্র বস অ্যান্ড কোং সোফিয়া [১৮]
২০২৪ প্রেমালু রিনু রয় [১৯]
রেবেল সারা মেরি জন তামিল চলচ্চিত্র [২০]

স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বছর শিরোনাম ভূমিকা মন্তব্য সূত্র
২০২১ কালার পদম শালিনী

পুরস্কার ও মনোনয়ন[সম্পাদনা]

বছর পুরস্কার বিভাগ চলচ্চিত্র ফলাফল সূত্র
২০২০ কেরল চলচ্চিত্র সমালোচক পুরস্কার শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী খো খো বিজয়ী [২১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ആന്റണി, സീന (১৫ জানুয়ারি ২০২২)। "അനശ്വര ശരിക്കും തേച്ചോ?: മറുപടി പറഞ്ഞ് മമിത ബൈജു; അഭിമുഖം"Manorama Online (মালায়ালাম ভাষায়)। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জানুয়ারি ২০২২ 
  2. MB, Anandha। "'ഇതൊരു പുതിയ അനുഭവമാണ്, അതൊരുപാട് ആസ്വദിക്കുന്നുണ്ട്'; തീയേറ്ററിൽ വെച്ചുണ്ടായ സംഭവം മറക്കാനാവില്ല!; മനസ് തുറന്ന് താരസുന്ദരി!"Samayam (মালায়ালাম ভাষায়)। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০২১ 
  3. Antony, Seena (১৬ জানুয়ারি ২০২২)। "Super Sharanya' is a milestone in my career: Mamitha Baiju"On Manorama। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২২ 
  4. Basith (২৫ ডিসেম্বর ২০২১)। "ക്രിസ്മസിന് ഫുഡാണ് മെയിൻ; മമിത ബൈജു പറയുന്നു"Twenty Four News (মালায়ালাম ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২২ 
  5. രഘുനാഥ്‌, രശ്മി (২১ জুন ২০২১)। "ഹെഡ്മിസ്ട്രസ് പറഞ്ഞു; ഇപ്പോള്‍ തന്നെ അഞ്ചാറ് നമിതയുണ്ട്, മമിത മതി"Mathrubhmi (মালায়ালাম ভাষায়)। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ডিসেম্বর ২০২১ 
  6. Joas, Ammu (২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২)। "'ജനിച്ച അന്നുതന്നെ തേപ്പു കിട്ടിയ ആളാണ് ഞാൻ': മമിതയെ വിട്ടുപോകാത്ത 'തേപ്പ്': പ്രേക്ഷകരുടെ ചങ്ക്ഗേൾ"Vanitha (মালায়ালাম ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২২ 
  7. പാലക്കാപറമ്പിൽ, ബിന്ദു (১ জুন ২০২১)। "അൽഫോൻസയും അഞ്ജുവും വഴിത്തിരിവായി"Kerala Kaumudi (মালায়ালাম ভাষায়)। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০২১ 
  8. Subramanian, Anupama (২৫ মার্চ ২০১৮)। "New technology in Krishnam to curb piracy"Deccan Chronicle। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২২ 
  9. ആനന്ദ് രാജ്, എസ് (১২ জানুয়ারি ২০২২)। "'സൂപ്പർ മമിത'; ഓപ്പറേഷൻ ജാവ, സൂപ്പർ ശരണ്യ എന്നീ ചിത്രങ്ങളിലൂടെ തിളങ്ങിയ മമിത ബൈജു സംസാരിക്കുന്നു"Madhyamam (মালায়ালাম ভাষায়)। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০২২ 
  10. Vetticad, Anna M. M. (২১ মে ২০১৮)। "School Diary movie review: What's M.G. Sreekumar doing lending his name to this non-film?"First Post। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২২ 
  11. Shrijith, Sajin (১৫ জানুয়ারি ২০১৯)। "Directing has been my long-cherished dream"Cinema Express। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২২ 
  12. Soman, Deepa (৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১)। "Mamitha Baiju plays the team captain in Rajisha-starrer 'Kho Kho'"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০২১ 
  13. ശ്രീലേഖ, ആർ.ബി. (২১ মে ২০২১)। "ഹണീബിയിൽ ആസിഫിന്റെ അനിയത്തി, ജാവയിലെ അൽഫോൻസ; ഈ പ്ലസ് ടുക്കാരി"ManoramaOnline (মালায়ালাম ভাষায়)। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০২১ 
  14. Sidhardha, Sanjith (১১ ডিসেম্বর ২০২০)। "Mamitha Baiju plays the team captain in Rajisha-starrer 'Kho Kho'"The Times of India। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০২২ 
  15. Babu, Ajith (৮ জানুয়ারি ২০২২)। "'Randu' movie review: A significant story of our times"On Manorama। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২২ 
  16. "'ശരണ്യ സൂപ്പർ ആണെങ്കിൽ സോന പൊളി ആണ്, അപാരമായ സ്ക്രീൻ പ്രെസൻസ്'; മമിതയ്ക്ക് കൈയ്യടി, പ്രശംസ!"Samayam (মালায়ালাম ভাষায়)। ৮ জানুয়ারি ২০২২। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২২ 
  17. "'Pranaya Vilasam' release date: Anaswara Rajan starrer to hit the big screens on THIS date"The Times of Indiaআইএসএসএন 0971-8257। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০২৩ 
  18. "Nivin Pauly's film with Haneef Adeni titled 'Ramachandra Boss and Co'"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ জুলাই ২০২৩। আইএসএসএন 0971-751X। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুলাই ২০২৩ 
  19. "Naslen-Mamitha Baiju's rom-com titled 'Premalu', first look out!"The Times of India। ২০২৩-১২-০১। আইএসএসএন 0971-8257। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-১২-০১ 
  20. "Filming of GV Prakash's 'Rebel' wrapped up"The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০২৩ 
  21. "Kerala Film Critics Awards: Prithviraj, Biju Menon share best actor award"Mathrubhumi News। ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১। ৬ মে ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]