ভিটামিন এ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
রেটিনল
  • রাসায়নিক নাম: রেটিনল
  • দ্রাব্যতা: স্নেহ দ্রাব্য

উৎস[সম্পাদনা]

প্রয়োজনের পরিমান[সম্পাদনা]

পূর্ণবয়স্কের খাদ্যে নিম্নসীমা:দৈনিক অন্তত ৭০০(মহিলা) ও ৯০০(পুরুষ) মাইক্রোগ্রাম পূর্ণবয়স্কের খাদ্যে উর্দ্ধসীমা:দৈনিক সর্বাধিক ৩০০০(মহিলা ও পুরুষ) মাইক্রোগ্রাম

শরীরগত ক্রিয়া[সম্পাদনা]

রেটিনল জারিত হয়ে রেটিনালরেটিনোয়িক অ্যাসিড তৈরি হয়।

দৃষ্টি[সম্পাদনা]

আবরণী কলা[সম্পাদনা]

অনাক্রম্যতন্ত্র[সম্পাদনা]

পুরুষ জনন তন্ত্র[সম্পাদনা]

রক্তসৃষ্টি[সম্পাদনা]

অভাবজনিত রোগ[সম্পাদনা]

১। রাতকানা ( চোখে কম দেখা )

জেরপ্থ্যালমিয়া[সম্পাদনা]

রাতকানা রোগ বা রাত্র্যান্ধতা[সম্পাদনা]

ভিটামিন "এ" এর অভাবে রাতকানা রোগ হয়ে থাকে। রাতকানা রোগীরা দিনের আলোতে স্বাভাবিক ভাবেই চলাচল করতে পারে কিন্তু রাতের বেলা অনেক সময়ে সমস্যা হয়। অনেকে একেবারে দেখে না আবার অনেকে ভুল দেখে ।

আধিক্য[সম্পাদনা]

ক্যারটিনেমিয়া[সম্পাদনা]

হাইপারভিটামিনোসিস এ[সম্পাদনা]

ভিটামিন এ বিষক্রিয়া (acute poisoning)[সম্পাদনা]