বুঢ়ী আইর সাধু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বুঢ়ী আইর সাধু
লেখকলক্ষ্মীনাথ বেজবরুয়া
দেশঅসম, ভারত
ভাষাঅসমীয়া
ধরনরূপকথা সংকলন
প্রকাশকবনলতা[১]
প্রকাশনার তারিখ
১৯১২
মিডিয়া ধরনমুদ্রণ
আইএসবিএন[[বিশেষ:বইয়ের_উৎস/81-7339-215-3 [১]|৮১-৭৩৩৯-২১৫-৩ '"`UNIQ--ref-০০০০০০০১-QINU`"']] আইএসবিএন বৈধ নয়

বুঢ়ী আইর সাধু হচ্ছে শিশু উপযোগী একটি রূপকথা সংকলন। এই বইটি প্রথম প্রকাশ পেয়েছিল ১৯১২ সালের অক্টোবর অথবা নভেম্বর মাসে। লক্ষ্মীনাথ বেজবরুয়াদেব নানা প্ৰবন্ধে বহুজনের লিখিতরূপে রূপকথার কাহিনীগুলি সংগ্রহ করেছিলেন। এই রূপকথাগুলিকে "বুঢ়ী আইর সাধু" নাম দিয়ে রূপকথা সংকলনরূপে প্ৰকাশ করেছিলেন।

বুঢ়ী আইর সাধুর রূপকথাগুলি[সম্পাদনা]

বুঢ়ী আইর সাধুতে মোট ৩০ টা রূপকথা আছে। রূপকথাগুলির নাম নিচে উল্লেখ করা হল:

  • চিলনীর জীয়েকর সাধু
  • বান্দর আরু শিয়াল
  • ঔ-কুঁয়রী
  • ঢোঁরাকাউরী আরু টিপচীচরাই
  • এজনী মালিনী আরু এজোপার ফুল
  • বুধিয়ক শিয়াল


  • বুঢ়া-বুঢ়ী আরু শিয়াল
  • দীঘল ঠেঙীয়া

  • গঙ্গাটোপ
  • নুমলীয়া পো
  • সরবজান
  • এটা শিঙরা মাছর কথা
  • এটা বলী মানুহ
  • চিলনী জীয়েকর সাধু
  • কটা যোয়া নাক,খারণী দি ঢাক
  • তীখর আরু চুটিবাই
  • চম্পাবতী

  • জরদগয় রজার উপাখ্যান
  • পানেশৈ
  • জোঁয়াইর সাধু
  • কুকুরীকণা
  • ভেকুলীর সাধু
  • তায়ৈয়েকর সাধু
  • লটকন
  • লখিমী তিরোতা
  • দুই বুধিয়ক
  • কাঞ্চনী

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "প্রকাশন"। মার্চ ৪, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৩, ২০১২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]