বাপি বাড়ি যা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাপি বাড়ি যা
পরিচালকসুদেষ্ণা রায় এবং অভিজিৎ গুহ
প্রযোজকপ্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়
মহেন্দ্র সনি
শ্রীকান্ত মোহতা
রচয়িতাসুদেষ্ণা রায়
শ্রেষ্ঠাংশেঅর্জুন চক্রবর্তী
মিমি চক্রবর্তী
শালমি বর্মণ
অনিন্দ্য চ্যাটার্জি
তিস্তা দত্ত
সুরকারজিৎ গাঙ্গুলী
চিত্রগ্রাহকসৌরভ গোস্বামী
প্রযোজনা
কোম্পানি
মুক্তি
  • ৭ ডিসেম্বর ২০১২ (2012-12-07)
দৈর্ঘ্য১৬৬ মিনিট [১]
দেশ ভারত
ভাষাবাংলা

বাপি বাড়ি যা হল ২০১২ এর একটি প্রকাশিত বাংলা রোমান্টিক কমেডি চলচ্চিত্র যার পরিচালক সুদেষ্ণা রায় এবং অভিজিৎ গুহ। মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অর্জুন চক্রবর্তী, মিমি চক্রবর্তী, শালমি বর্মণ , অনিন্দ্য চ্যাটার্জি, তিস্তা দত্ত। চলচ্চিত্রটি তরুণদের মনে করে তৈরি করে হয়েছিল। [২][৩] ছবিটি ৭ ই জানুয়ারী ২০১২ সালে মুক্তি পেয়েছিল।।

পটভূমি[সম্পাদনা]

পাঁচ ছেলেবেলার বন্ধু - বাপী, দোলা, জিজো, হাসনা এবং রিজু - কলেজ থেকে পাশ করে সবেমাত্র বাইরে এসে একসাথে বেড়িয়েছে। কলকাতার এক ধনী রত্নব্যবসায়ীর ছোট ছেলে বাপি তার বন্ধুদের অর্থের যোগানদাতা। বাপি যখন তার পারিবারিক ব্যবসায় যোগদান করে, অন্য বন্ধুরা চাকরির সন্ধান করছে। জিজো হাসনার সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। রিজু মনে করে যে তার চেয়ে পাঁচ বছর বড় একটি মেয়েকে সে ভালবাসে। একদিন রিজু ভেঙ্গে পড়ে যখন সে মেয়েটি রিজুকে তার বাগদত্তার সাথে পরিচয় করিয়ে দেয় এবং তাকে তার ভাই বলে পরিচয় দেয়। রিজু নিজেকে মাতাল করে ফেলে, তাঁর বন্ধুরা তাঁকে কিছু করতে পারে না তাকে পানশালার বাইরে একা ফেলেছিল । দোলের সাথে পানশালার থেকে ফিরে যাওয়ার সময় বাপি বুঝতে পারে যে সে দোলার প্রেমে পড়েছে। একদিন, দোলা বাপীর বাড়িতে এলে সে দোলাকে জিজ্ঞাসা করে "কে বিশ্বওয়ান দা?"। তারা বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে এবং বাপী দোলাকে চুম্বন করে। দোলা নিজেকে মুক্তি করে জানায় তারা কেবল বন্ধু মাত্র, বলে সে বাপিকে চুম্বন করে। সে আরও বলে যে বাপীর মধ্যে পুরুষালী কিছু নেই এবং তাঁর জীবনে আর কিছু হবার নেই। তারপর একদিন বাপির বৌদি প্রাপ্ত বয়স্ক ম্যাগাজিন এবং হস্তমৈথুনের প্রমাণ পায়, সে বাপীর বড় ভাইকে বাপিকে বিয়ে দিতে বলে।

বাপী তার সম্ভাব্য বউ দেখতে যায়, সেখানে তাঁর এক মধ্যবিত্ত মেয়ে শিউলির সাথে দেখা হয়। শিউলি বাপিকে জিজ্ঞেস করে যে সে অন্য কাউকে ভালবাসে কি না? বাপি স্বীকার করে যে সে দোলা নাকে একটি মেয়েকে ভালবাসে। শিউলি বলে যে সে দোলাকে পেতে সে তাকে সাহায্য করবে, তবে তাকে অবশ্যই এই বিয়ে বন্ধ করতে হবে। বাপী শিউলির সাথে তার বন্ধুদের পরিচয় করিয়ে দেয়। দোলা শিউলিকে দেখে হিংসা হয় এবং সে বাপিকে বলে যে তাঁর এখন বিয়ে করবার সময় হয়নি। শিউলির পরামর্শে বাপি সেলসম্যানের চাকরি পায় কিন্তু সে দোলাকে খুশি করতে পারে না। এরই মধ্যে শিউলি এবং বাপি একে অপরের প্রেমে পড়ে বলে মনে হয়। দোলা বুঝতে পারে যে সে বাপিকে ভালবাসে এবং তার সাথে থাকতে চায়। একদিন বাপী শিউলির বাড়িতে যখন যায়, সেখানে শিউলি তাকে দূরে থাকতে বলে। দেখা যায় যে শিউলি তার পুরানো প্রেমিকের সাথে দেখা করেছিল, যে এখন শহরে ফিরে এসেছে। দোলা বাপীর সামনে তার প্রেমের কথা স্বীকার করে এবং বলে সে যেন তার সেলসম্যানের চাকরি ছেড়ে না যায়। ছবিটির পরের অংশে কি হয়? ছবিটির নাম কি সঠিক বিচার পায়?

অভিনয়[সম্পাদনা]

মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অর্জুন চক্রবর্তী, মিমি চক্রবর্তী, শালমি বর্মণ, অনিন্দ্য চ্যাটার্জি, তিস্তা দত্ত এবং অন্যান্য শিল্পীবৃন্দ।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Champion 2003 Movie"। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-১১-১৪ 
  2. "Kolkata applauds Bapi Bari Jaa's first look"Times of India। ১৬ আগস্ট ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  3. "About Bapi Bari Jaa"। Gomolo। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  4. "The Telegraph - Calcutta (Kolkata) | Entertainment | Producer Prosenjit celebrates his television outing. more applause for Goutam Ghose'sMoner Manush"। Telegraphindia.com। ২০১১-০১-০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১২-১৪