বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ
গঠিত১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮; ১৯ মাস আগে (2018-02-17)
উদ্দেশ্যবাংলাদেশের সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের অধিকার সংরক্ষণ, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কার ও অন্যান্য বৈষম্য দূরীকরণ
অবস্থান
  • সমগ্র বাংলাদেশ
    (প্রতিষ্ঠা ও কেন্দ্র: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়)
দাপ্তরিক ভাষা
বাংলা
মূল ব্যক্তিত্ব
আহবায়ক, হাসান আল মামুন
যুগ্ম আহবায়ক , নুরুল হক নুর
যুগ্ম আহবায়ক, রাশেদ খাঁন
যুগ্ম আহবায়ক, ফারুক হোসেন
যুগ্ম আহবায়ক ও সমন্বয়ক, মো: বিন ইয়ামীন মোল্লা
সংগঠক, যুগ্ম আহবায়ক, মো তারেক রহমান

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ বাংলাদেশের সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের অধিকার সংরক্ষণ, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কার ও অন্যান্য বৈষম্য দূরীকরণের উদ্দ্যেশ্যে প্রতিষ্ঠিত একটি গণতান্ত্রিক ছাত্র সংগঠন।[১][২][৩] ২০১৮ সালের ১৭ই ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১৮ সালের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্ব প্রদানের জন্য সংগঠনটি অতিদ্রুত জনপ্রিয়তা পায়।[৪] ৯ই এপ্রিল ২০১৮ তারিখে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সাথে কোটা সংস্কার বিষয়ক বৈঠকে বসেছিল সংগঠনটি।[৫] সংগঠনটির আন্দোলনের চাপে বাংলাদেশ সরকার প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর চাকুরিতে কোটা প্রথা বিলুপ্তির ঘোষণা দেয় যদিও আন্দোলনের লক্ষ্য ছিল কোটা সংস্কার, বিলুপ্তি নয়।[৬][৭][৮][৯] ২০১৮ সালে বেশ কয়েকবার সংগঠনটির কর্মীরা নানা আক্রমণের শিকার হয়।[১০][১১][১২][১৩] ফলশ্রুতিতে ঢাকায় অবস্থিত জার্মানি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র , নরওয়ে , সুইজারল্যান্ড এবং আরো কয়েকটি দেশের দূতাবাস বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের উপর 'নিষ্ঠুর হামলার' বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে।[১৪] হল সংসদ ও ডাকসু নির্বাচনের ভোটকেন্দ্র হলের বাইরে একাডেমিক ভবনে স্থাপনের দাবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দিতে গিয়ে ১৪ই ফেব্রুয়ারি ছাত্রলীগের মারধরের শিকার হন কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন।[১৫]

ডাকসু নির্বাচন, ২০১৯[সম্পাদনা]

২০১৯ সালের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ নির্বাচনের জন্য সংগঠনটি ২৫ ফেব্রুয়ারি নিজেদের প্যানেল ঘোষণা করে।[১৬][১৭][১৮][১৯][২০] প্যানেলের সহ-সভাপতি প্রার্থী মোঃ নুরুল হক, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী মোঃ রাশেদ খাঁন এবং সহকারী সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী মোঃ ফারুক হোসেন মনোনীত হন।[২০][২১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Quota reform activists to demonstrate across Bangladesh Wednesday"ঢাকা ট্রিবিউন। ২০১৮-০৫-০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  2. "Bangladesh students demand abolition of job quota system"www.aljazeera.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  3. "Are we approving police brutality in quelling protest?"নিউ এজ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  4. "'চাকরিতে কোটা, মেধাবীদের সাথে রাষ্ট্রের বঞ্চনা'"বিবিসি। ২০১৮-০৪-০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  5. "কোটা বাতিলের ঘোষণায় সন্দেহ, আবারো আন্দোলনে যাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা"ডয়চে ভেলে। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  6. "কোটা বাতিলে উদ্ভূত সমস্যার দায়ভার সরকারকেই নিতে হবে"www.kalerkantho.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  7. "প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে কোটা না রাখার সুপারিশ"bangla.bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  8. "চাকরিতে কোটা বাতিলের প্রস্তাবে সরকারের অনুমোদন"বিবিসি। ২০১৮-১০-০৩। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  9. "'We demanded quota system reformation, not abolishment'"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-১০-০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  10. "খুঁজে খুঁজে মারল ছাত্রলীগ"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-০১ 
  11. "Quota reform activist Toriqul denied treatment in govt hospital"Prothom Alo (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  12. "হামলাকারী ছাত্রলীগ? নেতাদের অস্বীকার - DW (Bangla)"Dailyhunt। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  13. "Hurt quota movement leader forced to leave hospital, family alleges"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০৭-০২। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  14. "US embassy in Dhaka concerned over attack on quota reformists"The New Nation (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০৭-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৭-১০ 
  15. "সহাবস্থানের দাবি জানাতে গিয়ে মারধরের শিকার কোটা আন্দোলনের নেতা"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২০ 
  16. "DUCSU Elections 2019: Let's not play with the students"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-০৩-০১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  17. "DUCSU polls have no Huda commission, luckily"Prothom Alo (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  18. "হুদা কমিশন নেই এটাই ডাকসুর ভরসা"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  19. "Nur, Rashed chosen to lead quota protesters' panel in DUCSU polls"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  20. "DUCSU Polls: JCD, quota reformists unveil panels"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-০২-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮ 
  21. "ডাকসু নির্বাচনে নুর–রাশেদ–ফারুকের নেতৃত্বে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের প্যানেল"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-২৮