বঁটি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
বটিতে মাছ কাটা হচ্ছে, পাশেই একটি খালি বটি

বঁটি রান্নার কাজে ব্যবহৃত একটি সরঞ্জাম। সবজি বা মাছ মাংস কাটবার জন্য অধিকাংশ বাঙালি গৃহস্থালিতেই বঁটি ব্যবহার হয়। এটি একটি অর্ধচন্দ্রাকৃতির ধাতব (প্রধানত লোহার) পাত বা ফলা যার অবতল বাঁকটি ধারালো ও উত্তল বাঁকটি ভোঁতা। সাধারণত বঁটিকে খাড়া করে রাখার জন্য একটি অনুভুমিক অংশ বা বাঁট থাকে। কাটাকুটির কাজে ব্যবহারের সময় বাঁটটিকে পা দিয়ে ধরে রাখা যায়। বঁটির বাঁট সাধারণতঃ কাঠের হয়। তবে ইদানীং ধাতব বাঁটেরও বেশ প্রচলন হয়েছে। ধাতব বাঁট হলে বাঁটটি খুব মোটা নাও হতে পারে কিন্তু ধারাল অংশটি উচু করে রাখার জন্য সেক্ষেত্রে সেদিকের নিচে অনেক সময় দুটি পা থাকে (ছবিতে দেখুন)। বঁটির মূল অংশের সাথে বাঁটের সংযোগ স্থলে কব্জা থাকে যাকে ভাঁজ করলে বঁটির ধারালো অংশ বাঁটের দিকে ও ভোঁতা অংশ বাইরের দিকে হয়ে সুরক্ষিত অবস্থায় রাখা যায়। বাঁটের উপস্থিতি দা ও বঁটির পার্থক্য; এবং বঁটিকে স্থির রেখে সবজিকে বঁটিতে ঘষে কাটা হয়, অন্যদিকে দা দিয়ে কাটার সময় লক্ষবস্তুকে স্থির রেখে দা দিয়ে কোপ দেওয়া হয়।

বঁটির প্রকার[সম্পাদনা]

আঁশ বঁটি[সম্পাদনা]

মাছের আঁশ ছাড়ানো বা কখনো মাছ মাংস কাটার জন্য ব্যবহৃত বঁটি। এগুলি খুব ধারালো হয়। অনেক সময় এর পা ধাতব বা খুব মোটা কাঠ দিয়ে ভারী করে তৈরি করা হয়। কাঠের খুব বড় সাবেকী আঁশ বঁটির কব্জা নাও থাকতে পারে এবং সেক্ষেত্রে তাকে ব্যবহার না করলে শুইয়ে রাখা হয়। এই ধরণের আঁশ বঁটি খুব ভয়ঙ্কর অস্ত্র ও নানা দুর্ঘটনায় এর আঘাতে আহত বা প্রাণহানি হওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে।

খড় কাটা বঁটি[সম্পাদনা]

এর ধারালো অংশটিতে করাতের মত খাঁজ কাটা থাকে। এতে ঘষে ঘষে গরুর জাবনা দেওয়ার জন্য গোছা গোছা খড় কেটে টুকরো করা হয়।