ফেনী নদীর পানি উত্তোলন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

বাংলাদেশভারতের মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে, যার মাধ্যমে ভারত ফেনী নদী থেকে প্রতি সেকেন্ডে (কিউসেক) ১.৮২ ঘনফুট পানি উত্তোলন করতে পারে। [১][২] একই সময়ে এ দুই দেশ একসাথে সাতটি দ্বিপাক্ষিক চুক্তিপত্র স্বাক্ষর করেছে। [৩] ফেনী নদী বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত। এটি পানির অধিকার নিয়ে চলমান বিরোধের সাথে একটি আন্তঃসীমান্ত নদী। ফেনী নদী দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলায় উত্পন্ন হয়ে সাব্রুম শহর ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে।

চুক্তির বিবরণ[সম্পাদনা]

দু'দেশের মধ্যে সাতটি দ্বিপাক্ষিক দলিল স্বাক্ষর হয়েছে, দু'দেশের সম্পর্ককে পরের ট্রাজেক্টোরিতে নিয়ে যেতে। নয়াদিল্লিতে বাংলাদেশের পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় এবং ভারতের জলশক্তি মন্ত্রণালয়ের মধ্যে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল। এই চুক্তির উদ্দেশ্য ত্রিপুরার সাব্রুম শহরকে পানীয সরবরাহ করা। [৪]

একটি কিউসেক পানি প্রতি সেকেন্ডে ২৮.৩২ লিটার জল প্রবাহের সমতুল্য ছিল। সুতরাং, ১.৮২ কিউসেক প্রতি সেকেন্ডে ৫১.৫৪ লিটার পানির সমান হবে।

দু'জন প্রধানমন্ত্রী যৌথ নদী কমিশনের একটি প্রযুক্তিগত কমিটিকে তাত্ক্ষণিকভাবে আপডেট হওয়া তথ্য ও তথ্য আদান-প্রদান এবং মনু, মুহুরী, খোয়াই, গুমতি, ধরলা ও দুধকুমার নামে ছয়টি নদীর জন্য অন্তর্বর্তীকালীন শেয়ারিং চুক্তির জন্য একটি খসড়া কাঠামো তৈরি করতে এবং ফেনী নদীর অন্তর্বর্তীকালীন শেয়ারিং চুক্তির খসড়া কাঠামো দৃশ্যমান করার জন্য নির্দেশনা দেন। [৫]

তবে এই চুক্তির আগে ভারত অবৈধভাবে ফেনী নদী থেকে পানি উত্তোলন করে। ভারত দক্ষিণ ত্রিপুরার শিলচোরি থেকে আমলিঘাটের নো ম্যানস ল্যান্ড ৩৬ লো-লিফটিং পাম্প স্থাপন করেছে। নো ম্যানস ল্যান্ড হলো ২টি দেশের সীমান্তবর্তী এলাকার মাঝখানে এমন একটি যায়গা থাকে যেখানে সর্বসাধারণের প্রবেশ নিষেধ। বাংলাদেশের বিজিবি ভারতকে এই সমস্ত অবৈধ পাম্পগুলি সরিয়ে নেওয়ার কথা বলে তবে তারা এটির কথা কখনও শুনেনি। নির্মিত এসব পাম্প হাউস ইন্ডিয়া আন্তর্জাতিক সীমান্ত আইন ভঙ্গ করেছে। [৬][৭][৮]

ভবিষ্যৎ পরিণতি[সম্পাদনা]

ভারত যদি ১.৮২ কিউসেকেরও বেশি পানি উত্তোলন করে তবে বাংলাদেশ কিছুটা সমস্যার মুখোমুখি হবে। কারণ এটি ফেনী নদীর পানির ভিত্তিতে মুহুরী-ফেনী সেচ প্রকল্পকে প্রভাবিত করতে পারে। [৯] প্রায় ২৩০,০৭৬ হেক্টর জমির মুহুরী-ফেনী সেচ প্রকল্পের কম বয়সী। [১০]

২০১১ সালে তিস্তা চুক্তি স্বাক্ষর না করায় বাংলাদেশের হতাশার মধ্যে ফেনী নদীর এই চুক্তি হয়েছিল, যা ২০১১ সালে তত্কালীন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের ঢাকা সফরের সময় স্বাক্ষরিত হওয়ার কথা ছিল। পশ্চিমবঙ্গ মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরোধিতার কারণে এটি সম্ভব হয়নি। । [১১]

তিস্তার পানি বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যেখানে কৃষকরা শুষ্ক মৌসুম সেচের জন্য ভূগর্ভস্থ পানির উপর প্রচুর নির্ভর হতে হয়। [১২]

সমালোচনা[সম্পাদনা]

বাংলাদেশিদের অনেকেই এই চুক্তিটির বিপক্ষে। [১৩] তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলিতে, বিশেষত ফেসবুকে এই চুক্তির বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া জানায়। আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ড ঘটে (জন্ম : ১৩ মে, ১৯৯৮-মৃত্যু :৭ অক্টোব ২০১৯), আবরারকে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) -এর বৈদ্যুতিক ও ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রকে বুয়েটের শের-ই-বাংলা হলের ভিতরে বুয়েটের ছাত্রলীগ নেতারা নির্যাতন করে হত্যা করে। [১৪] এই অপরাধের উদ্দেশ্যটি ছিল ফাহাদের শেষ ফেসবুক পোস্ট যেখানে তিনি ভারতের সাথে বাংলাদেশের চুক্তির বিষয়ে সমালোচনামূলক মতামত প্রকাশ করেছিলেন যাতে ফেনী নদী থেকে পানি উত্তোলনের অনুমতি দেওয়া হয়। [১৫][১৬] একটি ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন নিশ্চিত করেছে যে ফাহাদকে ক্রিকেট স্টাম্প এবং বাঁশের লাঠি ও প্লাস্টিক রশি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। ফাহাদকে তারা তিন দফায় মারে এবং মৃত্যু নিশ্চিত করে হলের ২য় তলার সিঁড়িতে ফেলে রেখে যায় [১৭][১৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bangladesh allows India to withdraw Feni river water"। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  2. "PM: It's inhumane to deny water to neighbours"। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  3. "Feni water given; wait on for Teesta"দ্য ডেইলি স্টার। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  4. "Bangladesh allows India to withdraw water from Feni River"। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  5. "India allowed to withdraw Feni river water from Bangladesh"। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  6. "ফেনী নদীর পানি দিয়ে চাষাবাদ করছে ভারত" (Bangla ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  7. "ফেনী নদী: ৩৬টি পাম্প দিয়ে ৭২ কিউসেক পানি তুলে নিচ্ছে ভারত (ভিডিওসহ)"। সংগ্রহের তারিখ ১২ অক্টোবর ২০১৯ 
  8. "ফেনী নদী: ভারত দীর্ঘদিন ধরেই পাম্প দিয়ে পানি তুলছে বলে অভিযোগ"। সংগ্রহের তারিখ ১২ অক্টোবর ২০১৯ 
  9. "India will take 'very little' amount of water from Feni river, ministry says"। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  10. "Withdrawal of Feni River Water: Experts see little impact here"। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  11. "How will Feni River water withdrawal impact Bangladesh?"। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  12. "People in Feni basin expect India to withdraw stipulated water"। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  13. "Moudud opposes agreement on withdrawal of Feni River water"। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  14. "এক আসামির ভয়ংকর বর্ণনা"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-১২ 
  15. "Abrar Fahad: Killing of Bangladesh student triggers protests"। সংগ্রহের তারিখ ৯ অক্টোবর ২০১৯ 
  16. "9 held over Buet student Abrar murder"। সংগ্রহের তারিখ ৮ অক্টোবর ২০১৯ 
  17. "Autopsy report: Abrar was beaten to death"। ৭ অক্টোবর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৮ অক্টোবর ২০১৯ 
  18. "Buet student beaten to death: Critical FB post costs him his life?"। সংগ্রহের তারিখ ৮ অক্টোবর ২০১৯