ফাহাদ ফজিল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ফাহাদ ফজিল
জন্ম ফাহাদ ফজিল
(১৯৮২-০৮-০৮) আগস্ট ৮, ১৯৮২ (বয়স ৩২)
আলপ্পুঝা, কেরালা, ভারত
বাসস্থান আলপ্পুঝা, কেরালা, ভারত
অন্য নাম শানু
পেশা চলচ্চিত্র অভিনেতা
কার্যকাল ১৯৯২, ২০০২, ২০০৯–বর্তমান
দম্পতি নাজরিয়া নাজিম (বাগ্দত্ত)
আত্মীয় ফজিল(পিতা)
ফারহান ফজিল (ভাই)

ফাহাদ ফজিল (ইংরেজি: Fahadh Faasil) হলেন একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেতা। তিনি মূলত মালায়ালম সিনেমাতে কাজের জন্য সুপরিচিত একজন অভিনেতা। চলচ্চিত্র পরিচালক ফজিল তার পিতা।


জীবনী[সম্পাদনা]

তিনি এসডিভি সেন্ট্রাল স্কুল আলিপ্পী, লরেন্স স্কুল উটি এন্ড চয়েস স্কুল ত্রিপুনিথারা থেকে তার স্কুল জীবন সম্পন্ন করেন। পরে তিনি তার ডিগ্রী মিয়ামি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এফআরএম এসডিসি আলিপ্পী এন্ড এমএ ফিলোসফি অনুসরণ করেন।[১] তিনি কাইয়েথুম দুরাথ (২০০২) চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে নায়ক হিসেবে চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন, উক্ত চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেন তার পিতা ফজিল। প্রায় আট বছর বিশ্রামে থাকার পর ফাহাদ সংহিতা ফিল্ম কেরালা ক্যাফে' (২০০৯) সালে অভিনয়ের মাধ্যমে আবার ফিরে আসেন। ফাহাদ (২০১১ সালে উভয়) ছায়াছবি আকাম এবং চাপ্পা কুরিশু অসাধারণ অভিনয়ের জন্য দ্বিতীয় শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য ২০১১ সালে কেরালা স্টেট ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড জিতে নেন।[২]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ফাহাদ ফজিল এবং রোজিনা ঘরে জন্মগ্রহণ করেন। তার আহমেদা ও ফাতিমা নামে দুটি বোন রয়েছে এবং ইসমাইল নামে আরও একটি ভাই রয়েছে। একটি জনপ্রিয় মালায়ালম পত্রিকার একটি সাক্ষাত্কারে, ফাহাদ তিনি আন্তরিকভাবে এনড্রিয়ার জারমিয়া সাথে ভালোবাসা আছে বলে প্রকাশ করেন। তিনি আন্নায়াম রাসুলাম সিনেমাতে ফাহাদের বিপরীতে অভিনয় করেন। কিন্তু এনড্রিয়া এই বিষয়টি অস্বীকার করেন এবং তাদের সম্পর্কের বিষয়টি এখানে শেষ হয়ে যায়।[৩][৪][৫] ২০ জানুয়ারি ২০১৪ তারিখে, তিনি মালায়ালম অভিনেত্রী নাজরিয়া নাজিম এর সাথে বাগদত্তা হয়েছে বলে তার ফেসবুক পেজে ঘোষণা করেন। বিবাহের বাগ্দান ফেব্রুয়ারি ৮ এবং বিবাহ আগস্ট ২১ তারিখের পরিকল্পনা করা হয়েছে।[১]

অভিনয় জীবন[সম্পাদনা]

ফাহাদ এর প্রথম চলচ্চিত্র কাইয়েথুম দুরাথ (২০০২) সালের চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেন তার পিতা ফজিল। যদিও ছবিটা ব্যাবসায়িক দিক থেকে ব্যাবসাসফল ছিলনা। ছবিটা ব্যাবসা না করার কারনে ফাহাদ ফাহাদ বলেন; "এটা আমার ভুল ছিল এবং আমি কোন প্রস্তুতি ছাড়া অভিনয় চলে আসি, যার কারণ আমার ব্যর্থতার জন্য আমার বাবার দোষারোপ করবেন না দয়া করে,"।[৬]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

অভিনেতা হিসেবে[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্র ভূমিকা পরিচালক মন্তব্য
১৯৯২ পাপাউদে সয়ানথাম আপ্পুস আপ্পুস হাউজের শিশু শিল্পী হিসেবে ফজিল শিশু শিল্পী হিসেবে
২০০২ কাইয়েথুম দুরাথ শচীন মাধবন ফজিল
২০০৯ কেরালা ক্যাফে সাংবাদিক উদয় আনাথান অংশ: মৃতুঞ্জয়ম

একজন প্রযোজক হিসাবে[সম্পাদনা]

নম্বর বছর চলচ্চিত্র পরিচালক মন্তব্য
২০১৪ আইয়োবিন্তে পুস্থাকাম অমল নীরাদ

পুরস্কার[সম্পাদনা]

কেরালা রাজ্য চলচ্চিত্র পুরস্কার[সম্পাদনা]

দ্বিতীয় শ্রেষ্ঠ অভিনেতা - আকাম এবং চাপ্পা কুরিশু

দক্ষিণ ভারতীয় আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র পুরস্কার[সম্পাদনা]

মনোনয়ন — শ্রেষ্ঠ অভিনেতা - ডায়মন্ড নেকলেস

ফিল্মফেয়ার পুরস্কার[সম্পাদনা]

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা - মালায়ালম - ২২ ফেমেল কোত্তায়াম

এশিয়াভিশন মুভি অ্যাওয়ার্ডস[সম্পাদনা]

পার্ফরমার অব দ্যা ইয়ার - ২২ ফেমেল কোত্তায়াম

বনিথা চলচ্চিত্র পুরস্কার[সম্পাদনা]

এশিয়ানেট চলচ্চিত্র পুরস্কার[সম্পাদনা]

বছরের যুব আইকন - পদশ্রী ভারত ড. সরোজ কুমার, ২২ ফেমেল কোত্তায়াম,ডায়মন্ড নেকলেস

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]