ফাল্গুনী হামিদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফাল্গুনী হামিদ
শিক্ষাএমএ (বাংলা)
যেখানের শিক্ষার্থীঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাঅভিনেত্রী, নাট্যকার, পরিচালক ও প্রযোজক
দাম্পত্য সঙ্গীএম হামিদ
সন্তানতনিমা হামিদ

ফাল্গুনী হামিদ হচ্ছেন একজন বাংলাদেশী অভিনেত্রী, নাট্যকার, পরিচালক ও প্রযোজক। তিনি বাংলাদেশ শিশু একাডেমী এর পরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।[১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

হামিদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকে বাংলাতে মাস্টার্স সম্পন্ন করেছেন।[১] হামিদ "বাংলার বানী"-এ সাংবাদিক হিসেবে তার কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি ১৫ বছর ধরে সাংবাদিকতার সাথে জড়িত ছিলেন।[১] ১৯৭৮ সালে তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) এর অডিশনে শ্রোতা পাস করেন এবং থিয়েটার ট্রুপ "নাট্যচক্র" এ যোগ দেন।[২] তিনি ১৯৮০ এর দশকের টেলিভিশনের ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেছিলেন।[২]

হামিদ বাংলাদেশের "টেলি রিয়েল লিমিটেড" এর স্বত্বাধিকারী, যেটি হচ্ছে বাংলাদেশের প্রথম প্রযোজনা সংস্থা।[২] তিনি নারী ও শিশু বিষয়ক ম্যাগাজিন "সীমন্তীনি" পত্রিকাটি পরিচালনা করেছিলেন।[১]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

এম হামিদকে বিয়ে করছিলেন হামিদ। একসঙ্গে তাদের একটি মেয়ে আছে তনিমা হামিদ[৩] তনিমা একজন টেলিভিশন এবং মঞ্চ অভিনেত্রী।[৩]

২০১৪-এ, হামিদ আওয়ামী লীগ-এর মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত একটি সংসদীয় আসনে মনোনয়ন চেয়েছিলেন।[৪]

কর্ম[সম্পাদনা]

  • বাউন্ডুলের আত্মকাহিনী[৫]

পুরষ্কার[সম্পাদনা]

  • শের-ই-বাংলা স্মৃতি পুরষ্কার
  • বাসচাস পুরষ্কার
  • নাট্য ব্যক্তিত্ব অ্যাওয়ার্ড[২]
  • কবিতা পরিষদ অ্যাওয়ার্ড (২০০৯)[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Falguni Hamid appointed as director of Shishu Academy"The Daily Star। জুন ১৯, ২০১০। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৩, ২০১৬ 
  2. Ershad Kamol (মার্চ ৫, ২০০৪)। "A dedicated couple in drama lane : An evening with M Hamid and Falguni Hamid"The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৩, ২০১৬ 
  3. Ershad Kamol (মার্চ ১৫, ২০০৬)। "Falguni on daughter Tonima"The Daily Star 
  4. "Shirin Sharmin, 300 others collect AL nomination forms"The Daily Star। জানুয়ারি ১৭, ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৩, ২০১৬ 
  5. "An array of programmes on ATN Bangla"The Daily Star। আগস্ট ২৬, ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৩, ২০১৬ 
  6. Abu Ahmed (মার্চ ২১, ২০১০)। "Hundred poets assemble in festival of colours"The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৩, ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]