ফাতিমা বিনতে মোহাম্মদ আল বালুসী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ফাতেমা বিনতে মোহাম্মদ আল বালুসী হচ্ছেন বাহরাইনের সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রী এবং বাহরাইনের সাবেক ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন।

জীবনী[সম্পাদনা]

ফাতিমা বিনতে মোহাম্মদ আল বালুসী বাহরাইনের সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রী এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সাবেক ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী ছিলেন। তিনি ২৪ মে ২০১১-এ জেনেভা, সুইজারল্যান্ড -এর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ৬৪ তম অধিবেশনে বাহরাইন প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন।[১] তার অধীনে সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের বাহরাইন বৈজ্ঞানিক কেন্দ্র খোলা হয়, ২৯ এপ্রিল ২০১৩- এ শাইখ হেসা বিনতে খলিফা আল-খলিফা এটি উদ্বোধন করেন।[২]

২০১১-১৩ এর বাহরাইনী প্রতিবাদ চলাকালে ফাতিমা বিনতে মোহাম্মদ আল বালুসী বাহরাইনের সরকার বন্দীদের ও প্রতিবাদকারীদের অপব্যবহার করেছে বলে যে অভিযোগ ছিল সেটি অস্বীকার করেন। তিনি ইচ্ছাপূর্বক ক্ষতিকারক প্রতিবাদকারীদের এবং / অথবা তাদের হত্যার জন্য কিছু ডাক্তারকে অভিযুক্ত করেন। বাহরাইনের ১৪ জন ডাক্তারকে ওই অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। আইরিশ দলের একটি দল দ্বারা ডাক্তারদের পরিদর্শন করা হয়েছিল যার মধ্যে ডেভিড অ্যান্ড্রুস, আয়ারল্যান্ডের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এবং ইউরোপীয় সংসদ সদস্য মারিয়ান হারকিন ছিলেন। পরিদর্শনকারী আইরিশ দলটি ফাতিমা বিনতে মোহাম্মদ আল বালুসীর অভিযোগ অস্বীকার করে এবং বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ খুঁজে বের করে যে বন্দীদের নির্যাতন করা হয়েছিল।[৩] ফোর্বস মিডিল ইস্ট সরকারে কাজ করা ২০০ সবচেয়ে শক্তিশালী আরব নারীর তালিকায় তাকে স্থান দেয়।[৪] ১৭ মার্চ ২০১১ সাল থেকে তিনি ২৩ জন ডাক্তার ও ২৪জন নার্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ ঘোষণা করেছিলেন।[৫] তিনি জাতিসংঘের হাই কমিশনার মানবাধিকার নবী পিল্লিকে অভিযুক্ত করার জন্যও অভিযুক্ত হয়েছেন, যাতে বাহরাইনের বিক্ষোভ পরিচালনার পক্ষে এটি উপযুক্ত ছিল।[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Dr Al-Balooshi to address WHO meetings in Geneva"24x7 News। সংগ্রহের তারিখ ১৮ নভেম্বর ২০১৭ 
  2. "Shaikha Hessa Opens Bahrain Scientific Centre"bna.bh। Bahrain News Agency। সংগ্রহের তারিখ ১৮ নভেম্বর ২০১৭ 
  3. "Team back from Bahrain"Irish Medical Times। ২২ জুলাই ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৮ নভেম্বর ২০১৭ 
  4. "Forbes picks top 200 most powerful Arab women"english.alarabiya.net (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৮ নভেম্বর ২০১৭ 
  5. "Bahrain: Arbitrary Arrests Escalate"Human Rights Watch (ইংরেজি ভাষায়)। hrw.org। ৪ মে ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৮ নভেম্বর ২০১৭ 
  6. "Bahrain Propaganda Special: Busted ---- UN Calls Out Regime for "Blatant Distortion""enduringamerica.com (ইংরেজি ভাষায়)। EA WorldView। সংগ্রহের তারিখ ১৮ নভেম্বর ২০১৭