ফন ডার ডেকেনের ধনেশ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ফন ডার ডেকেনের ধনেশ
Tockus deckeni (male) -Kenya-8.jpg
পুরুষ
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: কর্ডাটা
শ্রেণী: পক্ষী
বর্গ: Coraciiformes
পরিবার: Bucerotidae
গণ: Tockus
প্রজাতি: T. deckeni
দ্বিপদী নাম
Tockus deckeni
(Cabanis, 1869)
Tockus deckeni - Distribution.png
Distribution of Von der Decken's Hornbill (NOTE: Includes range of Jackson's Hornbill)

ফন ডার ডেকেনের ধনেশ (Tockus deckeni) হল ধনেশ প্রজাতির একধরনের পাখি। এদেরকে প্রধানত পাওয়া যায় পূর্ব আফ্রিকা অঞ্চলে। প্রধানত গ্রেট রিফট ভ্যালি থেকে ইথিওপিয়া হয়ে দক্ষিণ তানজানিয়া পর্যন্ত এদের বিস্তার। এদের প্রধানত দেখতে পাওয়া যায় কাঁটা গাছওয়ালা জায়গাতে। এদেরকে মাঝে মাঝে জ্যাকসনের ধনেশদের উপজাতি বলেই ধরা হয়। এর নাম এরম হওয়ার কারণ হল জার্মান অনুসন্ধানকারী কার্ল ক্লাউস ফন ডার ডেকেনের নাম অনুযায়ী (১৮৩৩-১৮৬৫)।[২]

বর্ণনা[সম্পাদনা]

এদের আকার ছোটো হয় এবং প্রধানত এদের শরীরের নীচের দিকের এবং মাথার রঙ হয় সাদা রঙের এবং পিঠের দিকের রঙ হয় কালো রঙের। এদের লেজ খুব লম্বা হয় এবং বাঁকানো একটা ঠোঁট থাকে কিন্তু ঠোঁটের ওপরে কোনো শিরস্ত্রাণ থাকে না। এরা অনেকটা লাল-ঠুটি ধনেশদের মতোই দেখতে ঠোঁটের রঙটা বাদে। এবং এদের ডানাও ওপরে কোনো ছিট ছিট দাগ থাকে না অন্যান্য লাল-ঠুটি ধনেশদের মতো।

এই প্রজাতির মধ্যে যৌন দ্বিরুপতা দেখতে পাওয়া যায়। মহিলা ধনেশদের ঠোঁটের রঙ হয় কালো কিন্তু পুরুষদের ক্ষেত্রে তা হয় লাল রঙের এবং এদের ঠোঁটের ডগার রঙ হয় ক্রীম রঙের।

Tockus deckeni (female) -Antwerp Zoo-8.jpg Tockus deckeni (Male) -Antwerp Zoo-8.jpg
মেয়ে ধনেশ
ছেলে ধনেশ

প্রজনন[সম্পাদনা]

প্রজনন কালে মেয়ে পাখিরা গাছের গর্তে ৩ থেকে ৪ টে ছোটো ছোটো সাদা ডিম পাড়ে। এরা নিজ বাসার মধ্যে ঢুকে গিয়ে বাসাকে বন্ধ করে দেয় কাদা, মল-মূত্র, ফলের খোলস ইত্যাদির মাধ্যমে যাতে বাইরের কেউ তাদের বাসায় ঢুকতে না পারে। এদের বন্ধ বাসার সামনে এক জায়গায় একটা ছোট ছিদ্র থাকে যেখান থেকে স্ত্রী ধনেশ মল-মুত্র ত্যাগ করে এবং পুরুষদের থেকে খাদ্য নেয়। পুরুষেরাই সমস্ত খাবার নিয়ে আসে মহিলা এবং তরূণ ধনেশদের জন্য।

বাসার ভিতরে মেয়ে পাখিরা ডিম পাড়ে এবং ডিমে তা দেয় তাকে ফোটানোর জন্য। এই সময় তারা পাখনাগুলোকে শরীর থেকে ঝেরে ফেলে এবং পুনরায় যখন এদের পাখনার বাড়ন্ত দেখতে মেলে তখন তাদের বাচ্চারাও বড় হয়ে যায় এবং তারপরে মা ধনেশ সেই বাসা ভেঙ্গে ফেলে এবং বাচ্চারা প্রথম উড়তে শেখে।

তারা বাসার মধ্যে ঢূকে বাসা তৈরি করবার পরে ৩ থেকে ৫ ইঞ্চি ফাঁকা রাখে খাদ্য আদান প্রদানের জন্য এবং যখন ডিম ফুটে বাচ্চা হয়ে যায় তখন সম্পুর্ণ ভাবে তারা বাসাটিকে বন্ধ করে দেয়।

খাদ্য ও খাওয়ানো[সম্পাদনা]

পুরুষ ধনেশের মুখে একটা বড় পোকা, সেরেঙ্গেটি জাতীয় উদ্যান, তানজানিয়া

এরা সর্বগ্রাসী হয়। প্রধানত পোকামাকড়, ফল, বীজ ইত্যাদি খেয়ে বেচে থাকে। এরা প্রধানত মাটিতেই খাদ্য গ্রহণ করে। ঝিঝি পোকা, কেঁচো ইত্যাদিও এদের পছন্দের খাবারের মধ্যে পড়ে। ছোটো তীক্ষ্ণদন্ত প্রাণীদেরও এরা সপ্তাহে ২-৩ দিন খেয়ে থাকে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. BirdLife International (২০১২)। "Tockus deckeni"বিপদগ্রস্ত প্রজাতির আইইউসিএন লাল তালিকা। সংস্করণ 2013.2প্রকৃতি সংরক্ষণের জন্য আন্তর্জাতিক ইউনিয়ন। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  2. Beolens, Bo (২০০৩)। Whose Bird? Men and Women Commemorated in the Common Names of Birds। London: Christopher Helm। পৃষ্ঠা 354।  অজানা প্যারামিটার |coauthors= উপেক্ষা করা হয়েছে (|author= ব্যবহারের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে) (সাহায্য)

বহির্সংযোগ[সম্পাদনা]