পলি জমা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
একটি জলপথে জমা পলি

পলি জমা এক ধরনের পানি দূষণ, যা স্থলজ খণ্ড পাথর কণা দ্বারা ঘটে, কণার আকার নির্ভর করে পলিকণা বা কাদামাটির ওপর। অনভিপ্রেত ভেসে থাকা পললগুলির বর্ধিত ঘনত্ব এবং ক্রমশ নিচে জমে যাওয়া (অস্থায়ী বা স্থায়ী) সূক্ষ্ণ কণা এই দুই অবস্থাকেই পলি জমা বঝায়। এই অবস্থা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ভূমিক্ষয় বা পলি ছড়িয়ে পড়ার কারণে ঘটে।

কখনও কখনও পলি জমাকে পলির দূষণ ও বলা হয়, তবে এই শব্দটি ব্যবহার করা উচিত নয়, কারণ এটি ঠিক অর্থ বোঝায় না। পলি দূষণ বলতে নীচে জমা হওয়া পলির রাসায়নিক দূষণ বা পলির কণায় আবদ্ধ দূষণ বস্তুর জন্য যে দূষণ তাকে বোঝানো হয়। পলি জমা হল সঠিক শব্দ যদিও এটি সম্পূর্ণ সঠিক নয় কারণ এটিতে পলি ছাড়া অন্য পদার্থও থাকে।

কারণ[সম্পাদনা]

কেনিয়ার নাইরোবি শহরের করোগোচো বস্তিতে মলমূত্রত্যাগের কূপ থেকে দূষিত পদার্থ সংগ্রহ করে একটি নদীতে ফেলে দেওয়ার ফলে ঘটিত পলি জমা।
মেক্সিক্যালি থেকে ক্যালিফোর্নিয়ার ক্যালিক্সিকো দিয়ে বয়ে যাবার সময় নিউ নদীতে কাঁচা নর্দমার মাটি এবং শিল্প বর্জ্য ফেলার ফলে পলি জমা।
রিউ দি জানেইরু এর পোতাঙ্গন থেকে নিকাশী জলাবদ্ধতার কারণে পলি জমা।

কোন অঞ্চলে বর্ধিত পলি পরিবহনের কারণ হতে পারে ভূমিক্ষয় বা জলের মধ্যে কোন ক্রিয়াকলাপ। গ্রামাঞ্চলে, সাধারণত নিবিড় বা অপর্যাপ্ত কৃষিকার্যের ফলে মাটির গঠনগত অবক্ষয় হয়, যার ফলে ভূমিক্ষয় ঘটে, বিশেষত লোয়স এর মত সূক্ষ্ম দানাযুক্ত মাটিতে। এর ফলে অঞ্চল নিকাশী জলাশয়ে পলি এবং কাদামাটির পরিমাণ বেড়ে যায়। শহরাঞ্চলে, ভূমিক্ষয়ের সাধারণ উৎস- নির্মাণ কার্য। নির্মাণের প্রয়োজনে মূল ভূ-আচ্ছাদন গাছপালা পরিষ্কার করা হয় এবং অস্থায়ীভাবে জায়গাটি শহুরে মরুভূমির চেহারা নেয়। এর পরে বৃষ্টিপাতের সময় সূক্ষ্ণ মাটি সহজেই ধুয়ে বেরিয়ে যায়।

জলে, দূষণের মূল উৎস হল ড্রেজিং থেকে ছড়িয়ে পড়া পলি, নৌকা করে পলি পরিবহন, এবং তুলে রাখা পলি জলে বা কাছাকাছি ফেলে রাখা। বন্দর এবং নাব্যপথ থেকে তোলা পলি সমুদ্রতীর থেকে দূরবর্তী স্থানে জমানো উচিত যাতে, পলির উপাদানগুলি আবার জলে এসে না পড়ে। জমা করা পলি কৃত্রিম দ্বীপের উপকূলরেখা তৈরিতে বা সৈকত পুনঃসংশ্লিষ্ট করতে ব্যবহার করা যায়।

জলবায়ু পরিবর্তনও পলি জমার হারকে প্রভাবিত করে।[১]

পলি জমার আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ হ'ল,-যেখানে সেপটিক ট্যাঙ্ক বা নিকাশী জল শোধনাগারের কোনও সুবিধা নেই, সেইরকম গৃহ বা ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান থেকে নির্গত মল এবং অন্যান্য নিকাশী বর্জ্যগুলি জলাশয়ে গিয়ে পড়া।

ক্ষতিগ্রস্ততা[সম্পাদনা]

পলল দ্বারা দূষিত নদী।

পরিবহনের সময় পললগুলি ভাসন্ত অবস্থায় থাকে। যেখানে পরিষ্কার জল প্রয়োজন সেখানে এগুলি দূষণ ছড়ায়, শীতল করার জন্য শিল্প প্রক্রিয়াতে প্রয়োজনীয় পরিষ্কার জলে দূষণ হতে পারে অথবা জলজ জীবনে যে সব প্রাণী এইসব জলে ভাসন্ত পদার্থের প্রতি সংবেদনশীল, তাদের জন্যও এই দূষণ ক্ষতিকর। যদিও নেকটন জাতীয় জীব জলে ছড়িয়ে পড়া দূষণ থেকে বাঁচতে পারে, (ওরেসুন্ড ব্রিজ তৈরির সময় পরিবেশ পর্যবেক্ষণ প্রকল্প থেকে দেখা গেছে), পরিস্রাবনকারী বেন্থিক জীব এর থেকে বাঁচতে পারেনা। সবচেয়ে সংবেদনশীল জীবগুলির মধ্যে প্রবাল গোষ্ঠী রয়েছে। সাধারণভাবে, শক্ত খোলার জীবসম্প্রদায় এবং ঝিনুক বালি এবং কাদামাটির চেয়ে পলিমাটিতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঝরনার ক্ষেত্রে দূষণ পুরো জলধারার মধ্যে ছড়িয়ে যায়, একমাত্র পশ্চাদপদ জলের (ব্যাকওয়াটার) ক্ষেত্রে তা হয়না। তাই বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পলির জন্য মাছ সরাসরি প্রভাবিত হয়।

পলি জমে নাব্যপথ বা সেচ নালাগুলিকেও প্রভাবিত করতে পারে। এর অর্থ জাহাজ চলাচলের রাস্তায় বা সেচের জল সরবরাহকারী নালায় অনভিপ্রেত পলি জমে অসুবিধা ঘটাতে পারে।

পরিমাপ এবং নিরীক্ষণ[সম্পাদনা]

পলির উৎস, পরিবহনের সময় এবং প্রভাবিত অঞ্চলের মধ্যে পলির পরিমাপ এগুলির মধ্যে পার্থক্য দেখা যেতে পারে। উৎসে ক্ষয়ের পরিমাপ খুব কঠিন কারণ উপাদানে ক্ষয়ের পরিমান প্রতি বছরে এক মিলিমিটারের একটি ভগ্নাংশ হতে পারে। অতএব, সাধারণত জলের ধারাপথে পরিবহনের পলির পরিমাপ করা হয়। এটি করা হয় পলির ঘনত্ব পরিমাপ করে এবং নিকাশ দিয়ে তাকে গুণ করে; উদাহরণ স্বরূপ, ৫০ মিগ্রা/লি (ঘনত্ব) x ৩০ মি/সেকেণ্ড (নিকাশ) করলে আসে ১.৫ কেজি/সেকেণ্ড।

এছাড়াও, পলি ছড়িয়ে পড়ার মাপ উৎসের চেয়ে পরিবহনে ভাল পাওয়া যায়। খোলা জলে পলি পরিবহন অনুমান করা হয় অস্বচ্ছতা পরিমাপ করে। পলির ঘনত্বের সাথে জলের অস্বচ্ছতা সম্পর্কযুক্ত। তাই অস্বচ্ছতা মেপে (জলের নমুনাকে পরিস্রাবন, শুষ্ক এবং ওজন করে), উপরের উদাহরণ মতো নিকাশেরর সাথে ঘনত্বকে গুণ করে, এবং সম্পূর্ণ পললের উপর একীকরণ করে এই পরিমাপ করা হয়। কতখানি ছিটকে পড়েছে তা পরিমাপের জন্য, পরিবেশ অস্বচ্ছতা ছড়িয়ে পড়া পরিমানের অস্বচ্ছতা থেকে বিয়োগ করা হয়। যেহেতু খোলা জলে ছড়িয়ে পড়া দূষণ অস্বচ্ছতা,- স্থান এবং সময় অনুযায়ী পরিবর্তিত হয়, পুরো পরিমানের উপর একটি সংহতকরণ প্রয়োজন, এবং ফলাফলে গ্রহণযোগ্যভাবে নিশ্চয়তা পেতে বহুবার পুনরাবৃত্ত করা দরকার। এই পরিমাপ ক্রিয়াটি উৎসের কাছাকাছি, কয়েকশ মিটারের মধ্যে, করা হয়।

কাজের ক্ষেত্রের নিরাপদ অঞ্চলের বাইরে যে কোনও অঞ্চল পলি ছড়িয়ে পড়ার ফলে সম্ভাব্য প্রভাব অঞ্চল হিসাবে বিবেচিত হয়। খোলা সমুদ্রে, প্রায় একচেটিয়াভাবে, সমদ্রতলে বসবাসকারী সেসাইল (যারা চলনশীল নয়) জীবগোষ্ঠীর জন্য উদ্বগের কারণ এই পলি জমা। গবেষণামূলক তথ্য থেকে দেখা গেছে যে মৎস্য প্রজাতি প্রভাবিত অঞ্চলকে এড়িয়ে চলে। পলিমাটি জমা, তলদেশের জীবগোষ্ঠীকে, দুটি প্রধান উপায়ে প্রভাবিত করে। ভাসমান পলি পরিস্রাবক জীবগুলির খাদ্য সংগ্রহের ক্ষেত্রে হস্তক্ষেপ করতে পারে, এবং নীচের অংশে পলি জমে গেলে জীবগুলি তাতে চাপা পড়ে যেতে পারে এবং তারপর খাদ্যের অভাবে মারা যেতে পারে। পলির ঘনত্ব যদি অত্যন্ত বেশি হয়, তবে চূড়ান্ত ক্ষেত্রে, আলোর পরিমান কমে গিয়ে প্রাথমিক উৎপাদনশীলতার উপর প্রভাব ফেলতে পারে। মাত্র ১ মিমি ঘন পলি প্রবাল দলকে মেরে ফেলতে পারে।

একটি নির্দিষ্ট অঞ্চলে প্রাণী ও উদ্ভিদের জীবনের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব (যখন ক্ষতি আগেই হয়ে গেছে) কতখানি, তা নির্বাচিত পরীক্ষার অঞ্চলগুলির বারবার পরিদর্শন করে অধ্যয়ন করা যেতে পারে। প্রভাবিত অঞ্চলে পলিমাটির তীব্রতা কতখানি, তা প্রকৃত সময় ধরে পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে সরাসরি পরিমাপ করা যেতে পারে। পরিমাপের মানদণ্ডগুলি হ'ল পলি জমে যাওয়া, পরিস্রাবক জৈবগোষ্ঠির স্তরে অস্বচ্ছতা এবং কখনো বা পতিত আলোর পরিমান।[২]

কোন মাপের পলি জমা জাহাজ চলাচলের ওপর প্রভাব ফেলতে পারে তা বারবার গভীরতামিতি নিরীক্ষণ করেও পর্যবেক্ষণ করা যেতে পারে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. U.D. Kulkarni; ও অন্যান্য। "The International Journal of Climate Change: Impacts and Responses » Rate of Siltation in Wular Lake, (Jammu and Kashmir, India) with Special Emphasis on its Climate & Tectonics"। The International Journal of Climate Change: Impacts and Responses। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১১-১৬ 
  2. Siltation Monitoring Plan excerpt, retrieved 2010-07-11, http://lindorm.com/beaches/sedmon2.php