নেচার কমিউনিকেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
নেচার কমিউনিকেশন  
সংক্ষিপ্ত শিরোনাম (আইএসও ৪)
ন্যাট কমন (Nat. Commun.)
পাঠ্য বিষয়প্রাকৃতিক বিজ্ঞান
ভাষাবাংলা
সম্পাদকইলিশা দে র‌্যানিয়ারি
প্রকাশনা বিবরণ
প্রকাশক
প্রকাশনার ইতিহাস
২০১০-বর্তমান
পুনরাবৃত্তিচলমান ইস্যু, গবেষণা নিবন্ধ গ্রহণ
হ্যাঁ
লাইসেন্সক্রিয়েটিভ কমন্স লাইসেন্স
১১.৮৮০ (২০১৮)
সূচীকরণ
আইএসএসএন২০৪১-১৭২৩ (ইংরেজি)
কোডেনNCAOBW
ওসিএলসি নং৬১৪৩৪০৮৯৫
সংযোগ

নেচার কমিউনিকেশন ২০১০ থেকে নেচার পাবলিশিং গ্রুপ দ্বারা প্রকাশিত একটি পিয়ার-পর্যালোচিত উন্মুক্ত প্রবেশাধিকার বৈজ্ঞানিক জার্নাল । এটি পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, পৃথিবী বিজ্ঞান এবং জীববিজ্ঞান সহ প্রাকৃতিক বিজ্ঞানকে অন্তর্ভুক্ত করে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রতিষ্ঠানের প্রধান সম্পাদক ছিলেন লেসলি আনসন,[১] এরপরে জোয়ার্গ হেবার,[২] ম্যাগডালেনা স্কিপার এবং এলিসা ডি রানিরি [৩] । জার্নালের লন্ডন, নিউ ইয়র্ক সিটি এবং সাংহাইতে সম্পাদকীয় অফিস রয়েছে।

অক্টোবর ২০১৪ থেকে, জার্নালটি কেবল নিবন্ধ প্রক্রিয়াকরণ চার্জ দিতে ইচ্ছুক লেখকদের জমা দেওয়া নিবন্ধ গ্রহণ করেছে।

২০১৫ সালের শেষ নাগাদ প্রকাশিত জমা দেওয়ার কিছু অংশ কেবল গ্রাহকদের জন্য উপলব্ধ ছিল। জানুয়ারী ২০১৬ এ, সমস্ত সামগ্রী জনগণের জন্য অবাধে পড়ার উপযোগী হয়ে উঠেছে। [৪]

বিন্যাস ও সূচীকরণ[সম্পাদনা]

জার্নালটি বিমূর্ত এবং ইনডেক্স করা হয়েছে:

জার্নাল উদ্ধৃতি রিপোর্ট অনুসারে, জার্নালটির ২০১৮ এর প্রভাবের গুণক অনুযায়ী ১১.৮৮০ অবস্থানে রয়েছে। [১০]

উপসম্পাদকীয়[সম্পাদনা]

২০১৭ সালে, নেচার পাবলিশিং গ্রুপ নেচার ব্র্যান্ডের অধীনে তিনটি "সাবজর্নাল" তৈরি করার ঘোষণা করে: যোগাযোগ জীববিজ্ঞান,[১১] যোগাযোগ রসায়ন [১২] এবং যোগাযোগ পদার্থবিজ্ঞান[১৩] এই উন্মুক্ত প্রবেশাধিকার জার্নালগুলি প্রকৃতি যোগাযোগের চেয়ে কম প্রকাশনার ফি সরবরাহ করে,[১৪] তাদের আরও বিশেষজ্ঞের স্মৃতি প্রতিফলিত করে। বিষয়গুলোকে গ্রহণযোগ্য হতে, পান্ডুলিপিগুলিতে গবেষণার একটি বিশেষ ক্ষেত্রে নতুন অন্তর্দৃষ্টি নিয়ে আসা উল্লেখযোগ্য অগ্রগতির প্রতিনিধিত্ব করে। নেচার পাবলিশিং গ্রুপের জার্নালগুলি প্রত্যাখ্যান করা পান্ডুলিপিগুলি এনপিজির স্বয়ংক্রিয় স্থানান্তর পরিষেবার মাধ্যমে তিনটি যোগাযোগ-ব্র্যান্ডের জার্নালে পর্যালোচকদের রিপোর্টের সাথে পাণ্ডুলিপি স্থানান্তর করতে বেছে নিতে পারে। [১৫] বিকল্পভাবে, লেখকরা একটি নতুন পর্যালোচনার জন্য অনুরোধ করতে পারেন।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Announcing Nature Communications - a multidisciplinary, online-only journal with an open-access option, Press release from Nature Publishing Group.
  2. "About the editors"Nature Communications। Nature Publishing Group। ১০ জুন ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-২৮ 
  3. "About the editors"Nature Communications। Nature Publishing Group। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-২৮ 
  4. "Open Access"Nature Communications। Nature Publishing Group। ১৯ অক্টোবর ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-১১-২১ 
  5. "Master Journal List"Intellectual Property & ScienceThomson Reuters। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৯-২৭ 
  6. "CAS Source Index"Chemical Abstracts ServiceAmerican Chemical Society। ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৫ 
  7. "Nature Communications"NLM CatalogNational Center for Biotechnology Information। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৩-২৬ 
  8. "Content overview"ScopusElsevier। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৩-২৬ 
  9. "Nature Communications"Directory of Open Access Journals। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৬-১১ 
  10. "Nature Communications"। 2017 Journal Citation ReportsWeb of Science (Science সংস্করণ)। Clarivate Analytics। ২০১৯। 
  11. "Communications Biology"। Macmillan Publishers – Springer Nature। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-২২ 
  12. "Communications Chemistry"। Macmillan Publishers – Springer Nature। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-২২ 
  13. "Communications Physics"। Macmillan Publishers – Springer Nature। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-২২ 
  14. "Nature Research open access journals"। Macmillan Publishers – Springer Nature। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-২২ 
  15. "How to transfer manuscripts : authors & referees @ npg"www.nature.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-১১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]