নীল বাড়ি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নীল বাড়ি
청와대
靑瓦臺
ছং ওয়া দে
Korea-Seoul-Blue House (Cheongwadae) Reception Center 0688&9-07 cropped.jpg
আগস্ট, ২০১০ সালে নীল বাড়ির অভ্যর্থনা প্রাঙ্গন
বিকল্প নামছং ওয়া দে
সাধারণ তথ্য
ঠিকানা১ ছং ওয়া দে সড়ক, জোঙ্গ্নো জেলা
শহরসউল
দেশদক্ষিণ কোরিয়া
স্থানাঙ্ক৩৭°৩৫′১২″ উত্তর ১২৬°৫৮′৩৫″ পূর্ব / ৩৭.৫৮৬৬৭৩° উত্তর ১২৬.৯৭৬২৬৮° পূর্ব / 37.586673; 126.976268স্থানাঙ্ক: ৩৭°৩৫′১২″ উত্তর ১২৬°৫৮′৩৫″ পূর্ব / ৩৭.৫৮৬৬৭৩° উত্তর ১২৬.৯৭৬২৬৮° পূর্ব / 37.586673; 126.976268
বর্তমান দায়িত্বমুন জে ইন, দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি
নির্মাণ শুরু হয়েছে২২ জুলাই ১৯৮৯ (1989-07-22)
সম্পূর্ণ৪ সেপ্টেম্বর ১৯৯১ (1991-09-04)}
নীল বাড়ি
হাঙ্গুল
হাঞ্জা
সংশোধিত রোমানীকরণCheong(-)wadae
ম্যাক্কিউন-রাইশাওয়াCh'ŏng'wadae

নীল বাড়ি বা ছং ওয়া দে (কোরিয় 청와대; Hanja: 靑瓦臺; ছং ওয়া দে; আক্ষরিক অর্থ "নীল টাইলের সামিয়ানা")[১][২][৩] দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান কোরিয়া প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রপতির নির্বাহী কার্যালয় ও সরকারি আবাসন। এখান থেকে দেশটির রাষ্ট্রপতি সকল ধরনের সরকারি কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ করেন। দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে অবস্থিত এই নীল বাড়ির নকশায় কোরিয়ার ঐতিহ্যবাহী স্থাপত্যকলার প্রাধান্য থাকলেও এর সাথে পশ্চিমা স্থাপত্যকলার জটিল সংমিশ্রণ ঘটেছে।

চোসান রাজবংশের (১৩৯২-১৯১০) রাজকীয় বাগানে নির্মিত নীল বাড়িতে বর্তমানে প্রধান অফিস ঘর বোন-গোয়ান (কোরীয়: 본관; Hanja: 本館本館), রাষ্ট্রপতির বাসস্থল এবং রাজ্যের অভ্যর্থনা ঘর ইয়ংবিন-গোয়ান ( কোরীয়: 영빈관 ;Hanja: 春秋館春秋館) প্রচার কক্ষ এবং সচিবালয় রয়েছে। সম্পূর্ণ বাড়ির গঠনটি প্রায় ২৫০,০০০ বর্গমিটার অথবা ৬২ একর। 

ইতিহাস[সম্পাদনা]

৯১৮-১৩৯২ সনের হানইয়াং (বর্তমান সউল) অঞ্চলের রাজকীয় বাসভবনের জমিতে বর্তমান রাষ্ট্রপতির বাসভবন নীল বাড়ি বা ছং ওয়া দে নির্মিত। কোরিয়ার রাজা সুকজং (১০৯৫-১১০৫) ১১০৪ সনে এখানে রাজকীয় ভিলা নির্মাণ করেন। গোরইয়োর প্রধান রাজধানী ছিল কেসোং। কোরিয়ার পশ্চিমের রাজধানী পিয়ংইয়াং এবং পূর্বের রাজধানী গিয়ংজু এখান থেকেই নিয়ন্ত্রিত হতো।

চোসান রাজবংশের (১৩৯২-১৮৯৭) সমাপ্তির সাথে সাথে রাজধানী হানইয়াং-এ স্থানান্তরিত হয়। ১৩৯৫ সালে গিয়ংবুক প্রাসাদ প্রতিষ্ঠিত হয়। রাজা তেজোর শাসনকালের (১৩৯২-১৩৯৪) চতুর্থ বছরে নির্মিত এই প্রাসাদ ছিল প্রধান রাজপ্রাসাদ। পূর্বে নির্মিত রাজকীয় বাসভবন তখন প্রাসাদের বাগান হিসেবেই ব্যবহৃত হয়। সেই সময়ে সরকারি চাকুরিজীবি পরীক্ষা ও সামরিক প্রশিক্ষণের জন্য রাজকীয় বাসভবনের ব্যবহৃত হতো।

১৯১০ সালে জাপানের সম্রাট কর্তৃক কোরিয়ার সম্রাট সিংহাসনচ্যুত হলে কোরিয়ার গভর্নর-জেনারেল গিয়ংবোকগুং-এর জমিতে সরকারি-জেনারেল ভবন নির্মাণ করেন। ১৯৩৯ সালের জুলাইয়ে জাপান বর্তমান ছং ওয়া দে'র জমিতে একটি সরকারি অফিস নির্মাণ করে।

১৯৪৮ সালে কোরিয়া প্রজাতন্ত্রের যাত্রা শুরু হলে সেই সময়কার রাষ্ট্রপতি সিংমান রি উক্ত ভবনের নাম দেন গিয়ংমুদে (কোরীয়: 경무대 ; Hanja: 景武臺景武臺)। অতীতে সেখানের কয়েকটি সরকারি কর্মকর্তাদের বাসভবনের একটির নাম ছিলো গিয়ংমুদে। রাষ্ট্রপতি এই ভবনকেই নিজের বাসস্থান ও অফিস হিসেবে ব্যবহার করেন। ১৯৬০ সালে রাষ্ট্রপতি ইয়ুন বো-সন ভবনটির সংস্কার কাজ করে নতুন করে উদ্বোধন করেন। এই সময় ভবনটির নামকরণ করা হয় "ছং ওয়া দে" বা "নীল বাড়ি"।

১৯৬৮ সালে উত্তর কোরিয়ার আততায়ীরা রাষ্ট্রপতি পার্ক ছুং-হিকে হত্যা করতে নীল বাড়ি আক্রমণ করে। সেই আক্রমনে ২৮ জন উত্তর কোরীয়, ২৬ জন দক্ষিণ কোরীয় ও ৪ জন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক নিহত হন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Romanization by the official website: english.president.go.kr ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৪ অক্টোবর ২০০৬ তারিখে
  2. "Cheong Wa Dae rules out renegotiation of FTA with US"। Seoul: Yonhap News Agency। ২০ নভেম্বর ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসে ২০০৯ 
  3. "Cheong Wa Dae Aims to End Graft in Defense Procurement"Chosun Ilbo। Seoul, South Korea। ৯ ডিসেম্বর ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০০৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]