নির্ভয় নাদিয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নির্ভয় নাদিয়া
Fearless Nadia in 11 O'Clock (1948).jpg
১১ ও'ক্লক-এ (১৯৪৮) নির্ভয় নাদিয়া
জন্ম
মেরি অ্যান ইভান্স

(১৯০৮-০১-০৮)৮ জানুয়ারি ১৯০৮
পার্থ, পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া
মৃত্যু
অন্য নামমেরি ইভান্স ওয়াদিয়া
পেশাঅভিনেত্রী, স্ট্যান্টওম্যান
কার্যকাল১৯৩৩–১৯৭০
দাম্পত্য সঙ্গীহোমি ওয়াদিয়া
আত্মীয়ওয়াদিয়া পরিবার দেখুন

মেরি অ্যান ইভান্স এছাড়া তাঁর মঞ্চনাম ফেয়ারলেস "নির্ভয়" নাদিয়া (ইংরেজি: Fearless Nadia) নামে পরিচিত; (০৮ জানুয়ারি ১৯০৮ – ০৯ জানুয়ারি ১৯৯৬) একজন ভারতীয় অভিনেত্রী তথা স্টান্টওম্যান ছিলেন, তিনি ভারতীয় চলচ্চিত্রের প্রাথমিক যুগে নারী প্রধান[১], ১৯৩৫ খ্রিস্টাব্দে মুক্তিপ্রাপ্ত হান্টারওয়ালি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে একজন চটকদার সাহসী অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিতিলাভ করেন।[২][৩]

জীবনী[সম্পাদনা]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ফেয়ারলেস নাদিয়া পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার পার্থ নামক শহরে ০৮ জানুয়ারি ১৯০৮ খ্রিস্টাব্দে মেরি অ্যান ইভান্স নামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ব্রিটিশ সেনাবাহিনী একজন সেচ্ছাসেবী[৪] স্কটীয় হার্বার্ট ইভান্স ও মার্গারেটের মেয়ে। তাঁরা ভারতে আসার পূর্বে অস্ট্রেলিয়াতে বসবাস করতেন। মেরির বয়স যখন এক বছর তখন হার্বার্টের সেনাদল বম্বেতে সহকারী নিযুক্ত হয়। ১৯১৩ খ্রিস্টাব্দে মেরি তাঁর পাঁচ বছর বয়সে পিতার সাথে বম্বে আসেন।

১৯১৫ খ্রিস্টাব্দে, প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় জার্মান সেনাবাহিনীর হাতে তাঁর পিতার অসাময়িক মৃতু, তাঁর পরিবারকে পেশওয়ারে (বর্তমান পাকিস্তান) সরে যেতে বাধ্য করে।[৫] উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশে (বর্তমান [[খায়বার পাখতুনখোয়া)য় থাকার সময় তিনি অশ্বারোহী, শিকার, মাছ ধরা এবং তীরান্দাজি শিখেছিলেন। ১৯২৮ খ্রিস্টাব্দে, তিনি তাঁর মা এবং একটি পুত্র, রবার্ট জনসকে নিয়ে মুম্বাই ফিরে আসেন; এবং মাদাম অ্যাস্ট্রভার কাছে নৃত্যনাটক শেখা শুরু করেন।[২]

তিনি প্রথমে বম্বে (মুম্বাই)-এর আর্মি অ্যান্ড নেভি স্টেরে সেলসগার্লে চাকরির জন্য চেষ্টা করেছিলেন। অ্যাস্ট্রভার নৃত্যদল ব্রিটিশ সেনা ছাউনি, ভারতীয় রাজা তথা লোকালয় ও গ্রামে নৃত্য প্রদর্শন করতো। তিনি কার্টহুউলস ও স্প্লিট কলা আয়ত্ত করেন, যা পরে তাঁর চলচ্চিত্র স্টান্টে কাজে আসে। একজন আর্মেনিয়ীয় ভাগ্যপরিক্ষক ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন যে সে একরি সফল কর্মজীবন পেতে পরে; তবে এর জন্য তাঁকে 'ন' (N) অক্ষর দিয়ে শুরু হওয়া একটি নাম নির্বাচন করতে হবে। তিনি নাদিয়া নামটি নির্বাচন করেন কারণ এটি "উদ্ভট-শব্দায়মান"।[৫]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ফেয়ারলেস নাদিয়ার চিত্র সমন্বিত হান্টারওয়ালি (১৯৩৫) চলচ্চিত্রের পোস্টার

তিনি ১৯৩০ খ্রিস্টাব্দে জার্কো সার্কাসে কাজ করা শুরু করেন এবং একজন থিয়েটার শিল্পী হিসেবে ভারতের বিভিন্ন স্থান ভ্রমণ করেন। ১৯৩০ সালে ওদিয়া মুভিটোন-এর প্রতিষ্ঠাতা জমশেদ বোমান হোমি ওয়াদিয়া নাদিয়াকে হিন্দি চলচ্চিত্রের সাথে পরিচয় করিয়ে দেন। প্রথমদিকে, জেবিএইচ কর্তৃক নাদিয়ার বিভ্রান্ত ব্যবহার হয়, কিন্তু তিনি "দেশ দীপক" চলচ্চিত্রে একটি ক্রীতদাসী মেয়ে (একটি হাতে-আঁকা রঙের ক্রম যা তার স্বর্ণকেশী চুল এবং স্পার্কিং নীল চোখকে সংকুচিত করে) হিসাবে একটি কুমারী দিয়ে একটি জুয়া খেলেন এবং তারপর রাজকুমারী পারিজাদ হিসেবে নূর-ই-ইয়ামান-এ তিনি প্রতিষ্ঠা পায়। জেবিএইচ-এর সাথে কাজ করার পর নাদিয়া হোমি ওয়াদিয়ার সাথে কাজ করা শুরু লরেন এবং একজন তারকায় পরিণত হন।[৫] ১৯৬৭-৬৮ সালে ৫০-এর দশকের শেষদিকে তিনি প্রতারণামূলক চলচ্চিত্র খিলাড়িতে অভিনয় করেন। I[৬]

কিংবদন্তী[সম্পাদনা]

১৯৯৩ খ্রিস্টাব্দে নাদিয়ার প্র-প্রপৌত্র রিয়াদ ভিন্সি ওয়াদিয়া, তাঁর জীবনী অবলম্বনে ফেয়ারলেস:দ্য হান্টারওয়ালি স্টোরি নামে একটি তথ্যচিত্র নির্মাণ করেন। তথ্যচিত্রটি ১৯৯৩ বার্লিন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব-এ জার্মান ফ্রিল্যান্স লেখক তথা চলচ্চিত্র সমালোচক ডোরোথী উইনার বলেন "ফেয়সরলেস নাদিয়া" - বলিউডের আসল স্টান্ট মালিকা যা পরে ২০০৫ সালে ইংরেজি ভাষায় অনুবাদ করা হয়।[৭] বিশাল ভরদ্বাজ পরিচালিত হিন্দি চলচ্চিত্র রাঙ্গুনে কঙ্গনা রানাওয়াত অভিনীত চরিত্রটি নাদিয়ার জীবনী থেকে অনুপ্রেরিত।[৮]

গুগল হিজিবিজি[সম্পাদনা]

২০১৮ সালের ০৮ জানুয়ারি গুগল হিজিবিজি নির্মাণের মাধ্যমে ভারতে নির্ভয় নাদিয়ার ১১০তম জন্মদিনে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।[৯][১০]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

নাদিয়া ১৯৬১ সালে হোমি ওয়াদিয়াকে বিয়ে করেন এবং এই লারণে তাঁর নামে ওয়াদিয়া যুক্ত হয়।[১১][১২]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

নাদিয়া তার ৮৮তম জন্মবার্ষিকীর এক দিন পরে, বয়স সংক্রান্ত রোগগুলির কারণে ০৯ জানুয়ারি ১৯৯৬ সালে মারা যান।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Cinema: Female Interest"Outlook। ২৪ নভেম্বর ২০০৩। ১৩ অক্টোবর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৮ 
  2. Mary Evans Wadia, aka Fearless Nadia Biography, tifr.res.in; accessed 22 November 2015.
  3. Hunterwali Ki Beti(1935) ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৬ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে NFAI.
  4. "শৈশবে পিতৃহীন হান্টারওয়ালি শতাধিক বছর আগে চাবুকে শায়েস্তা করেছিলেন বিরূপ অদৃষ্টকেও"ডেইলি হান্ট। ০৮ জানুয়ারি, ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ০৯ জানুয়ারি ২০১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ=, |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  5. Shaikh Ayaz। "The woman with a Whip"OPEN: OPEN। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৫ 
  6. Wenner, D.; Morrison, R. (২০০৫)। Fearless Nadia: the true story of Bollywood's original stunt queen। Penguin Books। আইএসবিএন 9780143032700। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৫ 
  7. "What a stunt!"The Hindu। ২৮ মার্চ ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৫ 
  8. "Rangoon—The story of the fiery 'Hunterwali'!"Newsx.com। ২২ অক্টোবর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০ জানু ২০১৭ 
  9. "Fearless Nadia's 110th Birthday"Google। ২০১৮-০১-০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০১-০৯ 
  10. Krishna, Navmi (২০১৮-০১-০৮)। "Google Doodle celebrates Bollywood's Fearless Nadia"The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০১-০৯ 
  11. "International focus on 'Fearless Nadia'"The Hindu। মার্চ ১৬, ২০০৮। জানুয়ারি ২৫, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  12. Mary Evans Wadia, aka Fearless Nadia rsTIFR.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]