নিগহাত দাদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
নিগহাত দাদ
Nighat Dad.jpg
জন্ম১৯৮১ (বয়স ৩৯–৪০)
জাতীয়তাপাকিস্তানি
শিক্ষাআইনশাস্ত্রে স্নাতকোত্তর (এমএ)
মাতৃশিক্ষায়তনপাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাআইনজীবী
কর্মজীবন২০১২
সন্তান

নিগহাত দাদ (নিগহাত (উর্দু: نگہت داد‎‎; জন্ম আনু. ১৯৮১) হলেন একজন পাকিস্তানি আইনজীবী এবং ইন্টারনেট কর্মী।[১][২][৩][৪] তিনি ডিজিটাল রাইটস ফাউন্ডেশন নামে একটি অলাভজনক সংস্থা পরিচালনা করেন।[৫][৬][৭] তথ্যপ্রযুক্তি সুরক্ষার ক্ষেত্রে তার কাজের জন্য অনেকগুলো জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরষ্কার অর্জন করেছেন।[৮]

প্রাথমিক জীবন এবং শিক্ষা[সম্পাদনা]

দাদ ১৯৮১ সালে লাহোরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।[৯] তিনি পাঞ্জাবের ঝংয়ের একটি গ্রামের বাসিন্দা। তিনি পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়, লাহোর[১০] থেকে পড়াশোনা করেছিলেন এবং সেখান থেকে আইন বিভাগের স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তার বিবাহিত জীবন মাত্র ১৮ মাস স্থায়ী হয়েছিল এবং একক মা হিসাবে তার সন্তানের দায়িত্বভার জয়ের জন্য তাকে আইনি লড়াই করতে হয়েছিল। আদালতের কার্যক্রম চলাকালীন তিনি একাধিক পতিহীন মায়েদের সাথে দেখা করেছিলেন যারা তাদের সন্তানের দায়িত্ব পাওয়ার জন্য আইনি লড়াইয়ে জড়িত ছিলেন এবং তিনি এই জাতীয় নারীদের সহায়তা করে যাচ্ছেন।[১১]

কাজ[সম্পাদনা]

দাদ পেশায় একজন আইনজীবী[১২] এবং তিনি ফৌজদারি ও পারিবারিক আইন অনুশীলন করেন।[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Study finds Pakistan's online space increasingly 'not free'"। The Express Tribune। ৪ ডিসেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৫ 
  2. "PML-N's stock taking"। Pakistan Today। ৩০ মে ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৫ 
  3. "'No safeguards to protect people from govt snooping'"। Dawn। ১৫ নভেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৫ 
  4. "Pakistan Taliban suicide bombing in Lahore leaves several dead"। Guardian। ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৫ 
  5. "Surveillance by UK, US sets bad precedent for privacy, freedom efforts in Pakistan: activist"। Express Tribune। ১০ এপ্রিল ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৫ 
  6. "Know your rights: Internet users"। The Express Tribune। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৫ 
  7. "Nighat Dad named TIME's next generation leader"DAWN.COM (ইংরেজি ভাষায়)। ২৯ মে ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৯ এপ্রিল ২০১৭  উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; আলাদা বিষয়বস্তুর সঙ্গে "dawn/29may2015" নামটি একাধিক বার সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে
  8. (www.dw.com), Deutsche Welle। "Pakistani women: Between glory and misery | Wo+men | DW.COM | 19.04.2017"DW.COM (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ এপ্রিল ২০১৭ 
  9. "Vrouwen zijn online vogelvrij - OneWorld"OneWorld (ওলন্দাজ ভাষায়)। ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০১৮ 
  10. "ڈیجیٹل حقوق کی جنگ میں سرگرم پاکستانی، 'نگہت داد'"। VOA Urdu। ৪ জুন ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৫ 
  11. "Tech in Asia - Connecting Asia's startup ecosystem"www.techinasia.com 
  12. "Nighat Dad's award"DAWN.COM (ইংরেজি ভাষায়)। ৮ নভেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৯ এপ্রিল ২০১৭