দ্য গাজী অ্যাটাক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
দ্য গাজী অ্যাটাক
গাজী
দ্য গাজী অ্যাটাক.Jpg
থিয়েটারে মুক্তি পাওয়া পোস্টার
পরিচালকসঙ্কল্প রেড্ডি
প্রযোজকআনভেস রেড্ডি
ভেঙ্কটরমণা রেড্ডি
প্রসাদ ভি পোটালুরি
ওম পাশা
জগন মোহন
রচয়িতাআজাদ আলম
গঙ্গরাজ গুণাম
চিত্রনাট্যকারসঙ্কল্প রেড্ডি
গঙ্গারাজ গুণাম
নিরঞ্জন রেড্ডি
শ্রেষ্ঠাংশেরানা দাগগুবাতি
অতুল কুলকারনী
কে কে মেনন
তাপসি পান্নু
রাহুল সিং
সত্যদেব করণার
প্রযোজনা
কোম্পানি
পিভিসি সিনেমা
মার্টিনে এন্টারটেইনমেন্ট
পরিবেশকধর্ম প্রোডাকশন
এএ ফ্লিমস্ (হিন্দি সংস্করণ)
মুক্তি
  • ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ (2017-02-17)
দৈর্ঘ্য১২৩ মিনিট
দেশভারত
ভাষাতেলুগু
হিন্দি
নির্মাণব্যয়১৫ কোটি[১]
আয়প্রায় ৩৪.৫ কোটি (হিন্দি সংস্করণ)[২]

দ্য গাজী অ্যাটাক হ'ল ২০১৭ সালের ভারতীয় তেলুগু ভাষার যুদ্ধবিষয়ক চলচ্চিত্র। যা রচনা এবং পরিচালনা করেছেন সঙ্কল্প রেড্ডি। ১৯৭১-এর ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের সময় পিএনএস গাজীর (সাবমেরিন) রহস্যময় ডুবে যাওয়ার উপর ভিত্তি করে নির্মিত এই চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করেছেন রানা ডাগগুবাতি, তাপসী পান্নু, কায় কে মেনন এবং অতুল কুলকার্নি। চলচ্চিত্রটি বিশ্বব্যাপী ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তে তেলুগু, হিন্দি এবং তামিলের ডাবিং সংস্করণ সহ মুক্তি পেয়েছে।[৩][৪][৫][৬][৭][৮][৯][১০][১১][১২][১৩][১৪]

চলচ্চিত্রটি একাত্তরের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের সত্য ঘটনা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মাণ করা হয়েছে।গল্পটি ভারতীয় সাবমেরিনের নির্বাহী নৌ কর্মকর্তা এবং তাঁর দল সম্পর্কে, যারা ১৮ দিন জন্য পানির নিচে থাকেন। চলচ্চিত্রটি সেই রহস্যময় পরিস্থিতি অন্বেষণ করেছে যার অধীনে ডুবোজাহাজ পিএনএস গাজী একাত্তরে বিশাখাপত্তনমের উপকূলে ডুবেছিল।

কাহিনী[সম্পাদনা]

ভারতীয় নৌবাহিনী পাকিস্তান থেকে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে (বর্তমানে বাংলাদেশ) প্রেরিত একটি গোপন কোড ডিকোড করতে সমর্থ হয় যেখানে বলা হয়, পিএনএস গাজী নামে একটি পাকিস্তান নৌবাহিনীর সাবমেরিন পূর্ব পাকিস্তানের জলসীমায় মোতায়েন করা হবে।

মূলত ১৯৭১ সালের আগস্টে ভারতীয় নৌবাহিনী তাদের বিমানবাহী রণতরী আইএনএস বিক্রান্তকে পূর্বাঞ্চলীয় নৌ কমান্ডের অধীনে বিশাখাপত্তনমে স্থানান্তর করে। যার ফলে পাকিস্তান নৌবাহিনী তাদের ডুবোজাহাজের অভিযান পরিকল্পনা নতুন করে সাজাতে বাধ্য হয়। ১৯৭১ সালের পূর্বে আইয়ুব প্রশাসনের কাছে পূর্ব পাকিস্তানের নৌ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা জোরদারের জন্য বেশ কিছু প্রস্তাব পেশ করা হয়, কিন্তু শেষ পর্যন্ত এর কোনটিই কার্যকর হয়নি। যার ফলে পূর্ব পাকিস্তানে নৌবাহিনী ভারতীয় নৌবাহিনীর মোকাবেলায় খুবই দুর্বল হয়ে পরে। পূর্ব পাকিস্তান নৌবাহিনীর বিদ্রোহী কর্মকর্তা ও নাবিকদের দ্বারা পরিচালিত অপারেশন জ্যকপট সফলভাবে সম্পন্ন হলে পাকিস্তান নৌবাহিনীর পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ড মারাত্মক চাপের সম্মুখীন হয়। এই সময়ে পূর্ব পাকিস্তানের তিনটি রণাঙ্গনে ভারতীয় নৌবাহিনীর অগ্রগতি পাকিস্তান নৌবাহিনীর পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ডকে আরো চাপে ফেলে। ইয়াহিয়া প্রশাসন পাকিস্তান নৌবাহিনীকে পূর্ব পাকিস্তানে নৌ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা শক্তিশালী করার জন্য চাপ দিতে থাকে। যার ফলে পাকিস্তান নৌবাহিনী সদরদপ্তরকে তাদের মূল পরিকল্পনা থেকে সরে আসতে হয় এবং কোন প্রকার বন্দর সুবিধা ছাড়াই গাজীকে যুদ্ধে মোতায়ন করা হয়।

গাজী ভারতীয় নৌবাহিনীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে একটি বাণিজ্যিক জাহাজে বিস্ফোরণ ঘটায়। এটিকে পাঠানো হয়েছিল একমাত্র ভারতীয় বিমানবাহী রণতরী আইএনএস বিক্রতকে ডুবিয়ে দেওয়ার।

শীর্ষ কমান্ড থেকে গাজীকে নজরদারিতে রাখার জন্য ক্যাপ্টেন রণভিজয় সিংহের কমান্ডের অধীনে সাবমেরিন এস-২১ কে মোতায়েন করা হয়।

এইসময় তারা একটি মেয়ে শিশু এবং একজন মহিলা (তাপসি পান্নু) কে বাঁচান, যারা বাংলাদেশী শরণার্থী। নজরদারি চলাকালীন, এস-২১ গাজীর সোনার সংকেত রিসিভ করে।

এস ২১ গাজীর পথ অনুসরণ করে এবং শেষ মুহুর্তে বুঝতে পারে যে এটি একটি খনির দিকে চলেছে। এটি তার পথ পরিবর্তন করার চেষ্টা করে তবে একটি খনিটি বিস্ফোরিত হয় এবং সাবমেরিনের বেশিরভাগ ব্যাটারি, প্রোপেলার এবং সার্কিট ক্ষতিগ্রস্থ করে, সামনের টর্পেডো সহ বগিটি প্লাবিত হয়।

এরপর দুটি সাবমেরিনের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া চলে এবং এস ২১ এর টর্পেডোর আঘাতে গাজী ডুবে যায়।

অভিনয়ে[সম্পাদনা]

  • রানা দাগগুবাতি লেফটেন্যান্ট কমান্ডার অর্জুন ভার্মা হিসাবে
  • কে কে মেনন ক্যাপ্টেন রণভিজয় সিংহ হিসাবে
  • অতুল কুলকারনী লেফটেন্যান্ট কমান্ডার সন্তোষ দেবরাজ, নির্বাহী কর্মকর্তা হিসাবে
  • তাপসী পান্নু ড. অনন্যা, একজন বাঙালি শরণার্থী চিকিৎস হিসাবে
  • ওম পুরি অ্যাডমিরাল ভি.এস. নন্দা, ভারতীয় নৌবাহিনী হিসাবে
  • নাসার ভাইস অ্যাডমিরাল কে.টি. রমন, ভারতীয় নৌবাহিনী হিসাবে
  • মিলিন্দ গুনাজি গিরিশ কুমার, র এজেন্ট হিসাবে
  • রাহুল সিং কমান্ডার জাফর মোহাম্মদ হিসাবে
  • সত্যদেব কাঁচারানা রাজীব ঠাকুর হিসাবে, সোনার অপারেটর এস ২১
  • রবি বর্মা কমলাকার শিন্ডে, এস ২১ এর ব্যাটারি অপারেটর হিসাবে
  • প্রিয়দর্শী পুলিকান্দা এস ২১-এর রেডিও অপারেটর হিসাবে লেঃ নিলেশ মিশ্র
  • ভরথ রেড্ডি এস ২১ এর বি সঞ্জয় হিসাবে
  • বিক্রমজিৎ কানওয়ারপাল পাকিস্তান নৌবাহিনী স্টাফ অফিসার হিসাবে
  • তিরুভীর ভি মুর্তি, এস ২১ এর গভীরতা নিয়ন্ত্রক হিসাবে
  • নেভিগেশন অফিসার হিসাবে জে ঝা
  • ক্যাপ্টেন এস এন আহমেদ এস ২১ এর টর্পেডো অপারেটর লেফটেন্যান্ট তান সিংহ হিসাবে
  • নিতেশ পান্ডে এস ২১ এর স্টিয়ারিং কন্ট্রোলার, এন.তিওয়ারি হিসাবে
  • কপাল সিং চরিত্রে কুণাল কৌশিক
  • রঞ্জান সেনগুপ্ত, এস ২১-এর জুনিয়র অফিসার হিসাবে মাল্যবান লাহিড়ী
  • রাম সাগর হিসাবে নরেন যাদব
  • রান্না ইকবাল হিসাবে রামানুজ দুবে
  • রবি হিসাবে কুমার শাদা
  • অক্ষয় মিত্তল সাব-লেফটেন্যান্ট - ভারতীয় নৌ-নেভিগেশন অফিসার
  • পাম্প নিয়ন্ত্রক রাও যাদব হিসাবে লক্ষ্মণ মেসালা
  • অপ্পজি আম্বরিশা দরভা অনন্যার বাবা হিসাবে

আয়[সম্পাদনা]

দ্য গাজী অ্যাটাক ভারতে মোট ৩৪.৫৩ কোটি রুপি আয় করে যার মধ্যে ভারতে ২৮ কোটি রুপি এবং বিদেশে ৯৭৫,০০ ডলার।[২]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Rana Daggubati and Akreta Saim (১৪ জুন ২০১৯)। ScoopWhoop Townhall ft. Rana Daggubati Ep. 8। Schoopwhoop Unscripted। 
  2. "The Ghazi Attack"BoxOfficeIndia। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুলাই ২০১৭ 
  3. Latha Srinivasan (৭ জানু ২০১৬)। "Rana Daggubati on India's first Navy film 'Ghazi' and changes in the film industry" 
  4. "Movies to watch out for in 2017"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-২৯ 
  5. "Rana Daggubati Started Shooting for India's First Navy Film 'Ghazi'"। ৮ জানুয়ারি ২০১৬। ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ নভেম্বর ২০২০ 
  6. Datta, Saikat। "What happened to the Pakistani submarine that inspired the movie 'The Ghazi Attack'?" 
  7. "From 'Baahubali' to 'Ghazi', Rana Daggubati has come a long way"Times of India 
  8. "Rana Daggubati begins shooting for 'Ghazi'"The Indian Express। ৭ জানুয়ারি ২০১৬। 
  9. "Why Taapsee Pannuis finding 'Ghazi' difficult?"The Times of India 
  10. "Taapsee Pannu intrigued by 'Ghazi'"The Indian Express। ১৮ জানুয়ারি ২০১৬। 
  11. "The Ghazi Attack trailer: First underwater war film of India, with Rana Dagg, Om Puri"। ১১ জানুয়ারি ২০১৭। 
  12. "Big B may lend voice for Ghazi"The New Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-২৯ 
  13. "The Ghazi Attack trailer: Rana Daggubati film is a rousing tale of a secret India-Pak war, watch video"। ১১ জানুয়ারি ২০১৭। 
  14. ScoopWhoop (১১ জানুয়ারি ২০১৭)। "The Ghazi Attack: An Indo-Pak War So Deep Underwater That It Never Surfaced In History"