দুর্বিন শাহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দুর্বিন শাহ
জন্ম(১৯২০-১১-০২)২ নভেম্বর ১৯২০
নোয়ারাই, ছাতক, সিলেট
মৃত্যু১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৭(1977-02-15) (বয়স ৫৬)
পেশাকবি এবং বাউল শিল্পী

দুর্বিন শাহ বাংলাদেশের একজন মরমী গীতিকবি, বাংলা লোক সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ভাষ্যকার, বাউলসাধক।

জীবনী[সম্পাদনা]

তিনি ১৩২৭ বঙ্গাব্দের ১৫ কার্তিক (১৯২০ খ্রিস্টাব্দ এর ২ নভেম্বর) ছাতকের সুরমা নদীর উত্তর পারে নোয়ারাই গ্রামের তারামনি টিলায় জন্মগ্রহণ করেন। এই তারামনি টিলা কালান্তরে দুরবীন টিলা নামে পরিচিত হয়। তাঁর পিতা সফাত আলি শাহ ছিলেন একজন সুফি সাধক এবং মা হাসিনা বানু ছিলেন একজন পিরানী।ফলে সঙ্গীতচর্চার একটা পারিবারিক ঐতিহ্যেই তিনি বেড়ে উঠেছেন। মাত্র সাত বছর বয়সে বাবাকে হারান।১৯৪৬ সালে সুরফা বেগমের সঙ্গে বিয়ে তার বিয়ে হয়।[১][২]

সঙ্গীতচর্চা[সম্পাদনা]

তাঁর অধিকাংশ গানে সুফি ও মরমিবাদ যথেষ্টভাবে ফুটে উঠলেও এসবের বাইরে ভিন্ন মেজাজের অসংখ্য গান লিখেছেন। শ্রেণী বিভাজন করলে এসব গানগুলোকে বাউল, বিচ্ছেদ, আঞ্চলিক, গণসংগীত, মালজোড়া, জারি, সারি, ভাটিয়ালি, গোষ্ঠ, মিলন, রাধা-কৃষ্ণ বিষয়ক পদাবলী, হামদ-নাত, মারফতি, পির-মুর্শিদ স্মরণ আলা স্মরণ, নবি স্মরণ, ওলি স্মরণ, ভক্তিগীতি, মনঃশিক্ষা, সুফিতত্ত্ব, দেহতত্ত্ব, কামতত্ত্ব, নিগূঢ়তত্ত্ব, পারঘাটাতত্ত্ব, দেশের গানসহ বিভিন্ন ভাগে ভাগ করা যায়। এছাড়া বিবিধ শিরোনামে তাঁর রচিত আরো বিভিন্ন পদাবলীকে চিহ্নিত করা যেতে পারে। তিনি ১৯৬৭ সালে প্রবাসী বাঙালিদের আমন্ত্রণে ইংল্যান্ড গিয়েছিলেন।অন্যতম সফর সঙ্গী ছিলেন বাউলসাধক শাহ আবদুল করিম, সেখানে তার গানের কথা ও সুরে বিমোহিত হয়ে সঙ্গীত প্রেমীরা তাঁকে ‘জ্ঞানের সাগর’ উপাধিতে ভূষিত করেন।

তাঁর রচিত গানের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু গান হচ্ছে-

  • পরদেশীরে দূর বিদেশে ঘর
  • নব যৌবন আষাঢ় মাসে
  • তোমার মতো দরদী কেউ নাই
  • বন্ধু যদি হইতো নদীর জল
  • বেলা গেল সন্ধ্যা হল আর কি বাকি আছে বল
  • আমি জন্মে জন্মে অপরাধী তোমারই চরণে রে
  • নির্জন যমুনার কূলে বসিয়া কদম্বতলে
  • আমার অন্তরায় আমার কলিজায়
  • সুখের নিশি প্রভাত হলো উদয় দিনমণি
  • শমন লইয়া পিয়ন খাড়া আর কত দিন দেরি
  • ছাড়িয়া যাইও না বন্ধু রে
  • কৃপাসিন্ধু দীনবন্ধু নামটি তোমার সংসারে

১৯৭৪ সালে কলকাতার প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার ঋত্বিক ঘটক তাঁর যুক্তি তক্কো আর গপ্পো চলচ্চিত্রে ব্যবহার করেছিলেন বাউলসাধক দুর্বিন শাহের লেখা ‘নমাজ আমার হইল না আদায়’ শীর্ষক গানটি। ঢাকার উৎস প্রকাশন থেকে লোকসাহিত্যের গবেষক সুমনকুমার দাশ সম্পাদিত ‘দুর্বিন শাহ সমগ্র’ বইয়ে দুর্বিনের সমস্ত রচনাসম্ভার স্থান পেয়েছে।

গ্রন্থসমূহ[সম্পাদনা]

  • প্রেমসাগর পল্লীগীতি প্রথম খণ্ড (১৯৫০)
  • প্রেমসাগর পল্লীগীতি দ্বিতীয় খণ্ড (১৯৫০)
  • প্রেমসাগর পল্লীগীতি তৃতীয় খণ্ড (১৯৬৮)
  • প্রেমসাগর পল্লীগীতি চতুর্থ খণ্ড (১৯৬৮)
  • পাক বঙ্গ ভাগ্য নিয়ন্ত্রণ গীতি (১৯৭০)
  • প্রেমসাগর পল্লীগীতি পঞ্চম খণ্ড (১৯৭৩)
  • দুর্বিন শাহ সমগ্র (সুমনকুমার দাশ সম্পাদিত) (২০১০)

মৃত্যু[সম্পাদনা]

তিনি ৫৭ বছর বয়সে ১৩৮৩ বঙ্গাব্দের ৩ ফাল্গুন, ১৯৭৭ খ্রিস্টাব্দের ১৫ই ফেব্রুয়ারি নিজ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সিলেটে দুর্বিন শাহ-বন্দনা"। প্রথম আলো। 
  2. "দুর্বিন শাহ জীবনী"। ভাবের-তরঙ্গ। ৬ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ নভেম্বর ২০১৬