দিলরুবা জেড আরা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দিলরুবা জেড আরা
Dilruba Z. Ara.jpg
জন্ম(১৯৫৭-১১-২০)২০ নভেম্বর ১৯৫৭
ঢাকা, বাংলাদেশ
পেশালেখক, অনুবাদক, অঙ্কনশিল্পী, শিক্ষাবিদ
ভাষাইংরেজি, বাংলা
জাতীয়তাসুইডিশ বাংলাদেশি
নাগরিকত্বসুইডেন, বাংলাদেশ
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগোথেনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় (ফিল.কান্ড.) লুন্ড বিশ্ববিদ্যালয় (বি.এড.)
উল্লেখযোগ্য রচনাবলি
  • আ লিস্ট অব অফেন্সেস
  • ব্লেইম
  • ডিটাচড বিলংয়িং
সন্তান
  • নাভিদ আরাফ ক্রিস্টেনসেন
  • তানিয়া আমিন ক্রিস্টেনসেন

দিলরুবা জেড. আরা (জন্ম: ২০ নভেম্বর ১৯৫৭) হলেন একজন সুইডিশ বাংলাদেশি লেখিকা,[১][২][৩] ঔপন্যাসিক, শিল্পী, শিক্ষাবিদ এবং অনুবাদক।[৪]

পরিবার[সম্পাদনা]

আরা বাংলাদেশের জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা শাহেদ আলী ভাষা আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেন। তিনি অনুবাদক ছিলেন এবং গ্যাব্রিয়েল উইংস এর জন্য বাংলা একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন।[৫] তার মা প্রফেসর কেমন আরাও নামকরা লেখক এবং ভাষা আন্দোলনের অংশগ্রহণকারী ছিলেন। তিনি বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত।

ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

  • প্রথম উপন্যাস আ লিস্ট অব অফেন্সেস ২০০৬ সালে প্রকাশিত হয়।[১][৬]
  • দ্বিতীয় উপন্যাস ব্লেইম ২০১৫ সালে প্রকাশিত হয়।[২][৭][৮]
  • গল্পসমগ্র ডিটাচড বিলংয়িং ২০১৬ সালে প্রকাশিত হয়।[৩][৯]
  • শাহেদ আলীর সিলেক্টেড শর্ট স্টোরিজ অনুবাদ করেন ২০০৬ সালে প্রকাশিত হয়।[৪][১০]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

স্নাতক: লুন্ড বিশ্ববিদ্যালয়,সুইডেন। আলমা ম্যাটার: ইউনিভার্সিটি অব গোথেনবার্গ, সুইডেন।

ভাষা[সম্পাদনা]

  • বাংলা – স্বাচ্ছন্দ্য
  • ইংরেজি– স্বাচ্ছন্দ্য
  • সুইডিশ – স্বাচ্ছন্দ্য

গ্রন্থসমূহ[সম্পাদনা]

গ্রন্থ[সম্পাদনা]

  • আ লিস্ট অব অফেন্সেস (২০০৬).[১]
  • ব্লেইম (২০১৫).[২]
  • ডিটাচড বিলংয়িং (২০১৬).[৩]

ছোটগল্প[সম্পাদনা]

চট্টহচ্ছে রিভিউ, ড্রাঙ্কেন বোট, এশিয়া রাইটার্স, ডেমোক্রেটিক ওয়ার্ল্ড ম্যাগাজিন, সুইডিশ ইনস্টিটিউট, দ্য ডেইলি স্টার, শিপরাইটস রিভিউ এবং ভিস্তায় তার ছোটগল্প প্রকাশিত হয়।

ব্যক্তিজীবন[সম্পাদনা]

১৯৭৮ সালে তিনি সুইডেনে যান এবং ২০০৭ সাল পর্যন্ত তার বিশ্ববিদ্যালয়ের শহর লুন্ডে বসবাস করেন। তার ছেলে নাভিদ একজন স্থপতি। সে ম্যালমো শহরে থাকেন এবং সেখানেই কর্মরত আছেন। তার মেয়ে তানিয়া রয়েল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির ছাত্র। সে স্টকহোমে বসবাস করেন। আরা ঢাকায় প্রায়শই আসেন। বনানীতে তার মা প্রফেসর কেমন আরা থাকেন। তার বাবা শাহেদ আলী ২০০১ সালে পরলোকগমন করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ara, Dilruba Z. (২০০৬)। A list of offences (English ভাষায়)। Bangladesh: University Press Ltd.। আইএসবিএন 978-1477481875 
  2. Ara, Dilruba Z. (২০১৫)। Blame (English ভাষায়)। Bangladesh: University Press Ltd.। আইএসবিএন 978-9845062336 
  3. Ara, Dilruba Z. (২০১৬)। Detached Belonging (English ভাষায়)। Bangladesh: University Press Ltd.। আইএসবিএন 978-9845062435 
  4. Ali, Shahed; Ara, Dilruba Z. (২০০৬)। Selected short stories of Shahed Ali (English ভাষায়)। Bangladesh: University Press Ltd.। আইএসবিএন 978-9840517626 
  5. Haque, Junaidul (২৮ মে ২০১৬)। "Ethos behind a war"The Daily Observer 
  6. Grooms, Anthony (মার্চ ২০০৮)। "A Woman's View"connection.ebscohost.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-১১ 
  7. Mortuza, Shamsad (৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬)। "Whose blame is it anyway?"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-১১ 
  8. Haque, Junaidul (২০ মে ২০১৬)। "Blame: A 1971 novel"Dhaka Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-১১ 
  9. Holmberg, Claes-Göran (১২ আগস্ট ২০১৩)। "Portraying man's vulnerability"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-১১ 
  10. "At a glance"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৩ নভেম্বর ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-১১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]