ত্রুটিসীমা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ত্রুটিসীমা পরিসংখ্যানের একটি পরিভাষা যেখানে কোনো জরিপের ফলাফলের অনাকাঙ্ক্ষিত উদাহরণত্রুটিকে প্রকাশ করা হয়। ত্রুটিসীমা যত বেশি হবে, কোনো একটি জনগোষ্ঠীর উপর করা জরিপের ফলাফলকে কোনো একটি ভোটের মাধ্যমে প্রকাশ করতে পারার সক্ষমতা তত কম হবে। ত্রুটিসীমা ধনাত্বক হবে যখন পুরো জনসংখ্যার উদাহরণ অসম্পূর্ণ হবে এবং পরিমাপটির ভেদাঙ্ক ধনাত্বক হবে, এবং তখন বলা হয় পরিমাপটি ভেদনশীল।

ত্রুটিসীমা পরিভাষাটি জরিপের বাইরেও পরিমাপকৃত বস্তুর পর্যবেক্ষণত্রুটি বোঝাতে ব্যবহার করা হয়।

ধারণা[সম্পাদনা]

আদর্শ বিচ্যুতি এবং আদর্শ ত্রুটি[সম্পাদনা]

ভিন্ন ভিন্ন আকাঙ্ক্ষিত স্তরে সর্বোচ্চ ত্রুটিসীমা[সম্পাদনা]

নির্দিষ্ট ও বিশেষ ত্রুটিসীমা[সম্পাদনা]

যদি কোনো জরিপের বিভিন্ন শতকরা ফলাফল(উদাহরণস্বরূপ, যদি জরিপটি একটি বহুনির্বাচনী আচরণ পরিমাপ করে), যে ফলাফলটির ফলাফল ৫০ শতাংশের কাছাকাছি হবে তার ত্রুটিসীমা হবে সবচেয়ে বেশি। সাধারণত, এই সংখ্যাটিকেই সমগ্র জরিপের ত্রুটিসীমা হিসেবে দেখানো হয়।

শতকরা মানসমূহের তুলনা[সম্পাদনা]

সসীম জনসংখ্যার প্রভাব[সম্পাদনা]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

নোট[সম্পাদনা]

উদ্ধৃতিসমূহ[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]