ত্ববাকত-ই-নাসিরী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ত্ববাকত-ই-নাসিরী
লেখকমিনহাজ-ই-সিরাজ
মূল শিরোনামطباقت ناصری
ভাষাফার্সি (মূল)
বিষয়ঘুরি সাম্রাজ্য, গজনীর ইতিহাস
ধরনইতিহাস
প্রকাশনার তারিখ
১২৬০

ত্ববাকত-ই-নাসিরী (ফার্সি: طباقت ناصری‎‎) সুলতান নাসির উদ্দিনের নামে নামকরণ করা হয়েছে। এটা মিনহাজ-ই-সিরাজ জুজ্জানী[১] রচিত ফারসি ভাষায় ইসলামী বিশ্বের একটি বিস্তৃত ইতিহাস সমৃদ্ধ বই [১] এবং এটি ১২৬০ সালে সমাপ্ত হয়েছে।[২] ২৩ খণ্ডের সমন্বয়ে এতে সহজ সোজাসাপ্টা ধারায় এটি লিখিত হয়েছে। জুজ্জানী এই বইটি লিখতে বহু বছর উৎসর্গ করেছিলেন এমনকি এতে বহু তথ্য ও তথ্যসূত্র সরবরাহ করেছেন।[৩] যদিও বইয়ের একটি বড় অংশ ঘুরি সাম্রাজ্য নিয়ে বর্ণনা করা হয়েছে, এতে গজনীর ইতিহাসের গজনভি রাজবংশের সেবুক তিগিনের ক্ষমতা গ্রহণের পূর্বসুরী ব্যক্তিদের ইতিহাস রয়েছে। [১]

তার তাবকাত ই নাসিরীর সংকলন করার সময়, জুজ্জানী এখন হারিয়ে যাওয়া অন্যান্য বই ব্যবহার করেছেন; যেমনঃ সেবুক তিগিনের শাসনকালের বায়হাকির একটি অংশ, আবুল কাসিম ইমাদির তারিখ-ই মুজাদওয়াল এবং ইবনে হাইসামের কিসাস-ই থানি[১] মিনহাজ-ই-সিরাজ জুজ্জানী রচিত তাবাকাত " আগামী শতাব্দীতে রাজবংশের ইতিহাসের রচনার সূচনা করেছিল। [২]

টীকা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  • বসওর্থ, সি. ই. (১৯৬৩)। The Ghaznavids:994-1040। এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস। 
  • সিদ্দিকী, ইকতিদার হুসেন (২০১০)। Indo-Persian Historiography Up To The Thirteenth Century। প্রাইমাস বই। 
  • মেহতা, যশবন্ত লাল (১৯৮৬)। Advanced Study In The History Of Medieval India: (1000-1526)। খণ্ড ১। স্টার্লিং পাবলিশার্স।