তিন পাশা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

তিন পাশা ("dictatorial triumvirate" বলেও পরিচিত) শব্দদ্বয় দ্বারা উসমানীয় সাম্রাজ্যের তিন ব্যক্তিত্ব যথাক্রমে যুদ্ধ মন্ত্রী আনোয়ার পাশা (১৮৮১–১৯২২);, অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী তালাত পাশা (১৮৭৪–১৯২১); ও নৌ মন্ত্রী জামাল পাশাকে (১৮৭২–১৯২২) বোঝানো হয়। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় তারা সাম্রাজ্যে প্রভাবশালী ব্যক্তি ছিলেন।

ভূমিকা[সম্পাদনা]

পশ্চিমা পন্ডিতদের মতানুযায়ী ১৯১৩ এর অভ্যুত্থানের পর এই তিনজন ব্যক্তি কার্যত উসমানীয় সাম্রাজ্যের শাসক হয়ে উঠেন। তারা প্যান টার্কিশ রাষ্ট্র গঠনের লক্ষ্যে কর্মরত কমিটি অব ইউনিয়ন এন্ড প্রগ্রেসের সদস্য ছিলেন। আনোয়ার পাশার ভাষ্যমতে এটি ছিল, “relocating the dhimmi,” ।

তারা অটোমান-জার্মান মৈত্রীর মূল নিয়ামক ব্যক্তি ছিলেন। অক্ষশক্তির পক্ষে প্রথম বিশ্বযুদ্ধে উসমানীয় সাম্রাজ্য যোগদানেও তাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। জার্মানির সাথে মৈত্রীর ব্যাপারে জামাল পাশা বিরোধিতার সম্মুখীন হন। ফরাসি ও রুশ কূটনীতি উসমানীয় সাম্রাজ্যকে যুদ্ধ থেকে বিরত রাখতে চেষ্টা চালায়। কিন্তু জার্মানি প্রতিশ্রুতির ব্যাপারে চাপ দেয়। শেষ পর্যন্ত ২৯ অক্টোবর কৃষ্ণ সাগরে এডমিরাল উইলহেম সাউচন এসএমএস গোবেন, এসএমএস ব্রেসলাউ ও তুর্কি যুদ্ধজাহাজের একটি স্কোয়াড্রন কৃষ্ণ সাগরে নিয়ে আসেন এবং রুশ বন্দর ওডেসা, সেভাস্টোপলথিওডোসিয়া আক্রমণ করেন। বলা হয় যে, জামাল পাশা ১৯১৪ এর অক্টোবরের প্রথমদিকে এডমিরাল সাউচনকে আক্রমণের ব্যাপারে সম্মতি দেন।

ইসমাইল আনোয়ার শুধু একবার সামরিক কাজে (সারিকামিশের যুদ্ধ) অংশ নেন এবং তৃতীয় বাহিনী ধ্বংসের মধ্যে ফেলে দেন। সুয়েজের উপর হামলাআরব বিদ্রোহ আহমেদ জামালের বড় ব্যর্থতা ছিল।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  • Allen, W.E.D. and R. Muratoff. Caucasian Battlefields: A History Of The Wars On The Turco-Caucasian Border, 1828-1921. Cambridge: Cambridge University Press, 1953. 614 pp.
  • Bedrossyan, Mark D. The First Genocide of the 20th Century: The Perpetrators and the Victims. Flushing, NY: Voskedar Publishing, 1983. 479 pp.
  • Derogy, Jacques. Resistance and Revenge: "Fun Times" The Armenian Assassination of the Turkish Leaders Responsible for the 1915 Massacres and Deportations. New Brunswick, NJ: Transaction Publishers and Zoryan Institute, April 1990. 332 pp.
  • Düzel, Neşe (2005-05-23). "Ermeni mallarını kimler aldı?". Radikal. "Enver Paşa, Talat Paşa, Bahaittin Şakir gibi bir dizi insanın ailelerine maaş bağlanıyor... Bu maaşlar, Ermenilerden kalan mülkler, paralar ve fonlardan bağlanıyor."
  • Emin [Yalman], Ahmed. Turkey in the World War. New Haven, CT: Yale University Press, 1930. 310 pp.
  • Joseph, John. Muslim-Christian Relations and Inter-Christian Rivalries in the Middle East. Albany: State Univ. of New York Press, 1983. 240 pp.
  • Kayalı, Hasan. "Arabs and Young Turks: Ottomanism, Arabism, and Islamism in the Ottoman Empire, 1908-1918" 195 pp.