তমিকা ম্যালরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

তমিকা ড্যানিয়েল ম্যালরি (জন্ম ৮ জুন, ১৯৮০)[১] একজন আমেরিকান আন্দোলনকর্মী। তিনি ২০১৭-এর মহিলা মার্চের অন্যতম প্রধান সংগঠক ছিলেন, যার জন্য তিনি ও তার আরও তিনটি সহ-চেয়ারকে সে বছর টাইম ১০০- এ স্বীকৃত ছিলেন।[২][৩] তিনি ২০১৮ সালে কোরেটা স্কট কিং সেন্টার ফর কালচারাল অ্যান্ড ইন্টেলেকচুয়াল ফ্রিডম থেকে কোরেটা স্কট কিং লিগ্যাসি পুরস্কার লাভ করেন।[৪] ম্যালরি বন্দুক নিয়ন্ত্রণ, নারীবাদব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার আন্দোলনের প্রবক্তা।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ম্যালরি নিউইয়র্ক শহরের হারলেমে জন্মগ্রহণ করেন, তিনি নিউ ইয়র্ক সিটিতে বসবাসকারী স্ট্যানলি ও ভনসিল ম্যালরির কন্যা। তিনি ম্যানহাটানের ম্যানহাটনভিল হাউসে বড় হয়েছেন এবং ১৪ বছর বয়সে ব্রঙ্কসের কো-অপ সিটিতে চলে আসেন।[৫] তার পিতা -মাতা ছিলেন রেভারেন্ড আল শার্পটনের ন্যাশনাল অ্যাকশন নেটওয়ার্কের (এনএএন) কর্মী ও প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে নেতৃস্থানীয় নাগরিক অধিকার সংগঠন।[৬] এনএএন-তে তাদের কাজ সামাজিক ন্যায়বিচার ও নাগরিক অধিকারে ম্যালরির আগ্রহকে প্রভাবিত করেছিল। ম্যালরি ১৫ বছর বয়সে এনএএন- এর একজন কর্মী সদস্য হয়েছিলেন[৬] এবং পরে ২০০৯ সালে নির্বাহী পরিচালক হিসেবে মনোনীত হন।[৭]

ম্যালরি তার ছেলে তারেকের একক মা।[৫] তার ছেলের বাবা জেসন রায়ানস ২০০১ সালে খুন হন।[৮] ম্যালরি ব্যাখ্যা করেছেন যে এনএএন এর সাথে তার অভিজ্ঞতা তাকে সক্রিয়তার সাথে এই ট্র্যাজেডির প্রতিক্রিয়া জানাতে শিখিয়েছিল। তার ছেলে এনএএন- এর একজন সদস্য।[৯]

ম্যালরি ২০১৮ সালে একটি অনুষ্ঠানে বিতর্কিত জাতি ইসলাম নেতা লুই ফারাকানের সাথে তার উপস্থিতির সমালোচনা করেছিলেন এবং অতীতের প্রশংসা করেছিলেন, যা ২০১৯-এর মহিলা মার্চ থেকে তার পদত্যাগের আহ্বান জানায়।[১০][১১][১২][১৩][১৪] পরবর্তীতে এন্টিসেমিটিজমের অভিযোগের পরে, ম্যালরি ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে সংগঠনটি ত্যাগ করেন,[১৫] কিন্তু জানা গেছে যে, উইমেন্স মার্চের বিধি অনুসারে, ম্যালরি কেবল তার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে সংগঠন ছেড়ে চলে গেছেন, এন্টিসেমিটিজমের অভিযোগের কারণে নয়।

রাজনৈতিক সক্রিয়তা[সম্পাদনা]

ম্যালরি ২০১৭ সালে ট্যাক্স মার্চে কথা বলছেন

ম্যালরি ১১ বছর বয়সে নাগরিক অধিকার আন্দোলন সম্পর্কে আরও জানতে এনএএন- এর সদস্যা হন। তিনি ১৫ বছর বয়সে এনএএন-এ একজন স্বেচ্ছাসেবী কর্মী সদস্যা ছিলেন। ম্যালরি ২০১১ সালে এনএএন-এর সর্বকনিষ্ঠ নির্বাহী পরিচালক হয়েছিলেন। তিনি ১৪ বছর এনএএন- এ কাজ করার পর,[৬] তার নিজের সক্রিয়তার লক্ষ্যগুলি অনুসরণ করতে ২০১৩ সালে নির্বাহী পরিচালক পদ থেকে পদত্যাগ করেন, কিন্তু এখনও এনএএন- এর কাজে অংশ নেন, সমাবেশে যোগদান করেন ও সদস্য নিয়োগ করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Tamika Mallory"Archives of Women's Political Communication (ইংরেজি ভাষায়)। Carrie Chapman Catt Center for Women and Politics of Iowa State University। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  2. Gillibrand, Kirsten (২০ এপ্রিল ২০১৭)। "Women's March Leaders"Time (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  3. Al-Sibai, Noor (২০ এপ্রিল ২০১৭)। "The Women's March Organizers Made The 'Time' 100 Most Influential People List"Bustle (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  4. Bogart, Devero (২৬ এপ্রিল ২০১৮)। "Social justice activists honored with Coretta Scott King legacy awards"। WDTN। সংগ্রহের তারিখ ২৬ এপ্রিল ২০২১ 
  5. Barker, Cryil Josh (২৪ অক্টোবর ২০১৩)। "Tamika Mallory: The Beauty of Activism"New York Amsterdam News। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  6. Keck, Catie (২০ জানুয়ারি ২০১৭)। "Meet Tamika Mallory, the Lifelong Activist Who Organized the Women's March on Washington"Complex (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  7. Press Release (২৩ জুলাই ২০০৯)। "National Action Network Makes New Appointments"National Action Network। National Action Network। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০২১ 
  8. Nicole, Einbinder (১৩ জুলাই ২০১৭)। "This Is Why Hundreds Of Women Are Going After The NRA"Bustle (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  9. Serwer, Adam (১১ মার্চ ২০১৮)। "Why Tamika Mallory Won't Condemn Farrakhan"The Atlantic (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  10. "America's Midterms — The Blue Wave" (ইংরেজি ভাষায়)। Manhattan Neighborhood Network। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  11. Stockman, Farah (২৩ ডিসেম্বর ২০১৮)। "Women's March Roiled by Accusations of Anti-Semitism"The New York Timesআইএসএসএন 0362-4331। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  12. Yang, Allie (১৪ জানুয়ারি ২০১৯)। "Women's March co-president Tamika Mallory discusses controversial relationship with Louis Farrakhan" (ইংরেজি ভাষায়)। ABC News। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  13. Flood, Brian (১৪ জানুয়ারি ২০১৯)। "'The View' grills Women's March co-founder Tamika Mallory over ties to Louis Farrakhan"Fox News। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  14. Wines, Michael; Stockman, Farah (১৯ জানুয়ারি ২০১৯)। "Smaller Crowds Turn Out for Third Annual Women's March Events"The New York Timesআইএসএসএন 0362-4331। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  15. Stockman, Farah (১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯)। "Three Leaders of Women's March Group Step Down After Controversies"The New York Timesআইএসএসএন 0362-4331। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১