ডেভেনপোর্ট, আইওয়া

স্থানাঙ্ক: ৪১°৩২′৩৫″ উত্তর ৯০°৩৫′২৭″ পশ্চিম / ৪১.৫৪৩০৬° উত্তর ৯০.৫৯০৮৩° পশ্চিম / 41.54306; -90.59083
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ডেভেনপোর্ট, আইওয়া
শহর
Top row: Village of East Davenport, Figge Art Museum; Second row: Downtown Davenport, Third row: Fountain in Vander Veer Botanical Park, baseball in Modern Woodmen Park; Bottom row: Davenport Skybridge
ডাকনাম: Iowa's Front Porch[১]
নীতিবাক্য: Working together to serve you
Located on the center south border of a county that is on southern side of the hump on the eastern border of Iowa.
Location of Davenport in Scott County (left) and location of Scott County in the State of Iowa
ডেভেনপোর্ট, আইওয়া আইওয়া-এ অবস্থিত
ডেভেনপোর্ট, আইওয়া
ডেভেনপোর্ট, আইওয়া
ডেভেনপোর্ট, আইওয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র-এ অবস্থিত
ডেভেনপোর্ট, আইওয়া
ডেভেনপোর্ট, আইওয়া
ডেভেনপোর্ট, আইওয়া উত্তর আমেরিকা-এ অবস্থিত
ডেভেনপোর্ট, আইওয়া
ডেভেনপোর্ট, আইওয়া
Location in the United States
স্থানাঙ্ক: ৪১°৩২′৩৫″ উত্তর ৯০°৩৫′২৭″ পশ্চিম / ৪১.৫৪৩০৬° উত্তর ৯০.৫৯০৮৩° পশ্চিম / 41.54306; -90.59083
রাষ্ট্রমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
রাজ্যআইওয়া
কাউন্টিস্কট
SettledMay 14, 1836
IncorporatedJanuary 25, 1839
সরকার
 • ধরনMayor–council
 • MayorMike Matson
আয়তন[২]
 • শহর৬৫.৯৪ বর্গমাইল (১৭০.৭৯ বর্গকিমি)
 • স্থলভাগ৬৩.৮২ বর্গমাইল (১৬৫.২৯ বর্গকিমি)
 • জলভাগ২.১২ বর্গমাইল (৫.৫০ বর্গকিমি)
উচ্চতা৫৮০ ফুট (১৮০ মিটার)
জনসংখ্যা (২০১০)[৩]
 • শহর৯৯,৬৮৫
 • আনুমানিক (২০১৯)[৪]১,০১,৫৯০
 • ক্রম৩য় in Iowa
(US: ২৯৬তম)
 • জনঘনত্ব১,৫৯১.৮২/বর্গমাইল (৬১৪.৬১/বর্গকিমি)
 • মহানগর৩,৮২,৬৩০ (১৩৫তম) ৪,৭৪,২২৬ (৯০তম)
সময় অঞ্চলসিএসটি (ইউটিসি−৬)
 • গ্রীষ্মকালীন (দিসস)সিডিটি (ইউটিসি−৫)
জিপ কোডসমূহ৫২৮০১–৫২৮০৯
এলাকা কোড৫৬৩
এফএডি কোড১৯-১৯০০০
ইন্টারস্টেটI-74.svg I-80.svg I-280.svg
জলপথমিসিসিপি নদী
ওয়েবসাইটwww.cityofdavenportiowa.com

ডেভেনপোর্ট মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়া অঙ্গরাজ্যের স্কট কাউন্টির একটি শহর ও কাউন্টি আসন। এটি রাজ্যের পূর্ব সীমান্তে মিসিসিপি নদীর তীরে অবস্থিত এবং মহানগর অঞ্চলে ৩,৮২,৬৩০ জন এবং সিএসএ-এর ৪,৭৪,২২৬ জন জনসংখ্যা বিশিষ্ট কোয়াড সিটিজের মধ্যে বৃহত্তম; এটি দেশের মধ্যে ৯০তম বৃহৎ সিএসএ।[৫][৬] ডেভেনপোর্ট ১৮৩৬ সালের ১৮ই মে এন্টোইন লে ক্লেয়ার দ্বারা প্রতিষ্ঠিত হয় এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কর্মরত তার বন্ধু সাবেক ইংরেজি নাবিক জর্জ ডেভেনপোর্টের নামে নামকরণ করা হয়। যিনি ১৮১২ সালের যুদ্ধের সময় মার্কিন সেনাবাহিনীতে দায়িত্ব পালন করেন, সরবরাহকারি ফোর্ট আর্মস্ট্রংয়ের দায়িত্ব পালন করেন, আমেরিকান ফার কোম্পানির সাথে পশুর ব্যবসায়ী হিসাবে কাজ করেন এবং ব্ল্যাক হক যুদ্ধের সময় কর্নেল পদে একজন কোয়ার্টার মাস্টার নিযুক্ত হন। এই শহরের জনসংখ্যা ২০১০ এর আদমশুমারি অনুসারে ৯৯,৬৮৫ জন (এটি আইওয়ার তৃতীয় বৃহত্তম শহর হিসাবে গড়ে উঠেছে)। শহরটি এই পরিসংখ্যানটির বিরোধিতা করে আবেদন করে এবং যুক্তি প্রদান যে আদমশুমারি ব্যুরো বাসিন্দাদের একটি অংশের জনসংখ্যাকে শহরের মোট জনসংখ্যার সাথে যোগ করে ভুল করেছে এবং শহরের মোট জনসংখ্যা ১০০,০০০ জনের এরও বেশি।[৭][৮] আদমশুমারি ব্যুরোর অনুমান অনুযায়ী ডেভেনপোর্টের জনসংখ্যা ২০১৯ সালের হিসাবে ১,০১,৫৯০ জন।[৯]

ডেভেনপোর্ট শহরটি শিকাগোডি মোয়েনের মাঝামাঝি, ইলিনয় থেকে নদীর বিপরীত তীরে আইওয়া অঙ্গরাজ্যের সীমান্তে অবস্থিত। এই শহরটি মিসিসিপি নদীর তীরে অবস্থানের কারণে প্রায়শ বন্যার ঝুঁকিতে পড়ে। সেন্ট অ্যামব্রোজ বিশ্ববিদ্যালয়চিরোপ্রাকটিক পামার কলেজ হল শহরের দুটি প্রধান বিশ্ববিদ্যালয়, চিরোপ্রাকটিক পামার কলেজে সর্বপ্রথম চিরোপ্রাকটিকের সামঞ্জস্য হয়। মিসিসিপি ভ্যালি ব্লুজ ফেস্টিভাল, মিসিসিপি ভ্যালি ফেয়ার ও বিক্স বিদারবেক্ক মেমোরিয়াল জাজ ফেস্টিভাল সহ ডেভেনপোর্টে বেশ কয়েকটি বার্ষিক সংগীত উত্সব অনুষ্ঠিত হয়। উৎসব চলাকালীন সময়ে আন্তর্জাতিকভাবে পরিচিত ৭ মাইল (১১ কিমি) দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়, যা বিক্স ৭ নামে পরিচিত। শহরটিতে কোয়াড সিটিজ রিভার ব্যান্ডিট নামে একটি এ-শ্রেণির (প্রথম শ্রেণির) মাইনর-লিগ বেসবল দল রয়েছে। ডেভেনপোর্টে ৫০ টির বেশি উদ্যান রয়েছে, পাশাপাশি বাইক চালানো বা হাঁটার জন্য ২০ মাইল (৩২ কিলোমিটার) বিনোদনমূলক পথ রয়েছে।

তিনটি আন্তঃদেশীয় সড়ক ৮০, ৭৪ ও ২৮০ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দুটি বড় মহাসড়ক শহরটিকে পরিষেবা প্রদান করে। সংস্থাপনের পর থেকে ডেভেনপোর্টের জনসংখ্যা অবিচ্ছিন্নভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। ১৯৮০-এর দশকে জাতীয় অর্থনৈতিক সমস্যাসমূহের ফলে চাকরি ও জনসংখ্যার ক্ষতি হয়। ফোর্বস ম্যাগাজিন দ্বারা ২০১০ সালে কোয়াড সিটিজকে সবচেয়ে সাশ্রয়ী মূল্যের মহানগর অঞ্চল হিসাবে স্থান দেওয়া হয়। ডেভেনপোর্ট সহ প্রতিবেশী রক দ্বীপ ২০০৭ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মেয়রদের সম্মেলন থেকে ছোট-শহর বিভাগে সিটি লিভিবিলিটি পুরষ্কার অর্জন করে। ডেভেনপোর্ট ও কোয়াড সিটিজ মহানগর অঞ্চল ২০১২ সালে উচ্চ প্রযুক্তি খাতে কর্মসংস্থানের উন্নয়নে দেশের দ্রুত বর্ধমান অঞ্চলসমূহের মধ্যে স্থান লাভ করে।[১০] শহরের উল্লেখযোগ্য স্থানীয়দের মধ্যে জাজ কিংবদন্তি বিক্স বিদারবেক্কে, পুলিৎজার পুরস্কারপ্রাপ্ত নাট্যকার সুসান গ্লাস্পেল, জাতীয় ফুটবল লীগের প্রাক্তন রানিং ব্যাক রজার ক্রেগ, ইউএফসি ওয়েলটারওয়েট চ্যাম্পিয়ন প্যাট মিলিটিচ, আইবিএফ মিডলওয়েট ও ডাব্লুবিএ সুপার মিডলওয়েট বক্সিং চ্যাম্পিয়ন মাইকেল নন, টাইম ম্যাগাজিনের ২০০৬-এর বর্ষসেরা ব্যক্তি ব্লেক স্কট এবং দুই বারের সাবেক ডাব্লিউডাব্লিউই চ্যাম্পিয়নডাব্লিউডাব্লিউই ইউনিভার্সাল চ্যাম্পিয়ন শেঠ রোলিনস রয়েছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "City of Davenport: Our Vision 2021"। Cityofdavenportiowa.com। ২০০৭-০৫-১৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৬-০২ 
  2. "2019 U.S. Gazetteer Files"। United States Census Bureau। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৭, ২০২০ 
  3. "U.S. Census website"United States Census Bureau। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৩-১৬ 
  4. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; USCensusEst2019CenPopScriptOnlyDirtyFixDoNotUse নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  5. List of Combined Statistical Areas
  6. "Annual Estimates of the Population of Metropolitan and Micropolitan Statistical Areas: April 1, 2010 to July 1"2011 Population EstimatesUnited States Census Bureau, Population Division। জুন ২০১২। এপ্রিল ২৭, ২০১২ তারিখে মূল (CSV) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১, ২০১২ 
  7. "Davenport population tops 100K"। Qctimes.com। ২০১২-১১-০১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৬-০২ 
  8. "Table 1. Annual Estimates of the Resident Population for Incorporated Places Over 50,000, Ranked by July 1, 2011 Population: April 1, 2010 to July 1, 2011"2011 Population EstimatesUnited States Census Bureau, Population Division। জুন ২০১২। আগস্ট ২১, ২০১২ তারিখে মূল (CSV) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০১ 
  9. "Archived copy"। আগস্ট ২১, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-০১ 
  10. "Study: Q-C makes strides in high-tech jobs : Business"। Qctimes.com। ২০১২-১২-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৬-০২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]