টম বালার্ড (পর্বতারোহী)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
'টম বালার্ড'
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম(১৯৮৮-১০-১৬)১৬ অক্টোবর ১৯৮৮
বেলপার, ডার্বিশায়ার, England
মৃত্যুafter 24 February টেমপ্লেট:Death year (বয়স ৩০)
নাঙ্গা পর্বত, গিলগিট-বাল্টিস্তান, পাকিস্তান

টম বালার্ড (১৬ অক্টোবর ১৯৮৮[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] - ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯-এর পর) একটি ব্রিটিশ রক ক্লাইম্বার এবং স্বনির্ভর পর্বাতোরোহী, যিনি প্রথম পর্বতারোহী হিসেবে সুপরিচিত ছিলেন, একই শীতের মরশুমে একাকী ছয়টি মুখ্য আল্পাইন নর্থফেস আরোহণ করেন। [১] ফেব্রুয়ারী ২০১৯ সালে পাকিস্তানে নাঙ্গা পর্বত অভিযানে খারাপ আবহাওয়ার সময় বালাড অদৃশ্য হয়ে যান। ৯ মার্চ ২০১৯ সালে ম্যামারি স্পার পর্বতের উপর তাঁর দেহ আবিষ্কৃত হয়েছিল। [২]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

বালার্ড ১৯৮৮ সালে বেলপার, ডার্বিশায়ারে জন্মগ্রহণ করেন। [৩] তাঁর পিতা ও মাতা যথাক্রমে পর্বতারোহীদ্বয় জিম ব্যালার্ড এবং অ্যালিসন হারগ্রিভসঅ্যালিসন হারগ্রিভস প্রথম মহিলা পর্বতারোহী যিনি শেরপার সহায়তা ছাড়া বিনা অক্সিজেনে একাকী মাউন্ট এভারেস্টে আরোহন করেন এবং গ্রীষ্মকালীন ঋতুতে আলপাইন পর্বতমালার ছয়টি শিখরের নর্থ ফেস প্রথম একাকী আরোহনকারী হিসাবে আরোহণ করার জন্য খ্যাতি লাভ করেছিলেন । ১৯৯৫ সালে কে২ তে পর্বতারোহনের সময়ে দুর্ঘটনায় মারা যান। [৪] ব্যালার্ডের এক বোন আছে, কেট।

২০০৯ সালে আল্পসে স্থানান্তরিত হওয়ার আগে, ১৯৯৫ সালে, বালার্ডের পরিবার স্কটল্যান্ডের ফোর্ট উইলিয়মের নিকট চলে যান এবং তারপরে ডলোমাইটসের ভ্যাল ডি ফাসাতে যান।[৪][৫][৬] ভাল দে ফাসসাতে তিনি আলপাইন গাইড ব্রুনো পেডেরিভার কন্যা, তাঁর বাগদত্তা স্টেফানিয়া পেডেরিভার সঙ্গে দেখা করেন। [৭]

আরোহণ পেশা[সম্পাদনা]

প্রাথমিক পর্যায়ে, বালার্ড, আল্পস, ডলোমাইটস এবং হিমালয়ে নতুন নতুন প্রস্তর খণ্ড আরোহণ, মিশ্র ক্লাইম্বিং এবং আলপাইন রুট তৈরি করতে শুরু করেন। ২০০৯ সালে তিনি ইগারে একটি নতুন প্রস্তর খণ্ডের একটি পথ আরোহণ করেছিলেন, যেটি "পাণ্ডিত্যের সাতটি স্তম্ভ" নামকরণ করেছিলেন এবং ২০১০ সালে ইগারের শীতকালীন রুট "পিয়লা-স্প্রুনগ্লি" এর প্রথম একক আরোহণ সম্পন্ন করেছিলেন।.[৮] এরপরে ২০১৩ সালে ডলোমাইটে কটিনাসিওতে "ওলিম্পিয়া - স্বর্ণের জন্য যাত্রা" এর শীতকালে প্রথম কৃত্রিম সরঞ্জাম বিহীন মুক্ত আরোহণ দ্বারা এবং বার্নিজ ওবারল্যান্ডের আগ্যাসিজহর্ন-এ একটি নতুন রুট আরোহণ করেন, যার নাম দেন তিনি "যদি চেঙ্গিস পারেন, আমরা পারি!"[৮]

ডিসেম্বর ২০১৪থেকে মার্চ ২০১৫ পর্যন্ত, "স্টারলাইট অ্যান্ড স্টর্মস" নামে পরিচিত একটি প্রকল্প চলাকালীন, বালার্ড আল্পাইন পর্বতশৃঙ্গরাজির ছয়টি প্রধান আলপাইন শৃঙ্গের উত্তর ভাগ ( সিমা গ্রান্ডে দে লাভের্দো , পিজো বাডাইল , ম্যাটারহর্ন , গ্র্যান্ডেস জোরাস , পেটিত ড্রু এবং ইগার ) একই শীতকালীন ঋতুতে একক, কোন সমর্থক দল ছাড়া আরোহণের কৃতিত্ব পূরণের প্রথম ব্যক্তি। [৯] আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উত্সবে এই প্রকল্পটির ধারাবিবরণীভুক্ত একটি চলচ্চিত্রে, টম, বিভিন্ন পুরষ্কার জিতেছেন [১০][১১]

২০১৬ সালে, বালার্ড বেশ কয়েকটি নতুন শিলা, মিশ্র এবং শুষ্ক সরঞ্জামের রুট খোঁজেন। একটি নতুন ২৬-পিচ রকক্লাইম্বিং শুরু করেন, সিভেটারের উত্তর-পশ্চিম দিকে "ডার্টি হ্যারি" নামে এবং ইগারের উত্তর দিকের একটি নতুন মিশ্র রুট খুঁজে "টাইটানিক" নামে শুরু করেছিলেন। [১২][১৩] তিনি ডলোমাইটে "আকাশের উপরে একটি রেখা" নামক, ২০১৬ সালের অনুযায়ী বিশ্বের কঠিনতম শুষ্ক-সরঞ্জামের রুটটি সৃষ্টি করেছিলেন। [১৪] তিনি ২০১৭ সালে ইতালীয় পর্বতারোহী ড্যানিয়েল নর্দীর সাথে পাকিস্তানের লিংক সারের পূর্বের অজেয় উত্তর-পূর্ব ঢালটি চেষ্টা করেছিলেন। [১৫]

নাঙ্গা পর্বতে নিখোঁজ ও মৃত্যু[সম্পাদনা]

২০১৯ সালে, পাকিস্তানের নাঙ্গা পর্বত অভিযানে আবার একত্রে পর্বতারোহনের সময়ে নার্দি এবং ব্যালার্ড প্রতিকুল আবহাওয়ায় নিখোঁজ হন।[৫][১৬] সর্বশেষ ২৪ ফেব্রুয়ারি.তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয় [১৭] প্রায় ১৪৮,০০০ ইউরোর বালার্ডের বন্ধুরা চাঁদা তুলেছিলেন, তাঁদের খোজার অভিযানের খরচা তোলার জন্য।[৫][১৮] যাতে উচ্চ উচ্চতায় ড্রোন, হেলিকপ্টার, এবং পায়ে হাটা পর্বতারোহীদের সাহায্যে ২৮ ফেব্রুয়ারি উদ্ধার প্রচেষ্টা শুরু করেন, কিন্তু ভারী তুষারপাত ও পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে সামরিক বিরোধ নিষ্পত্তিতে প্রচেষ্টা বাধাগ্রস্ত হয়[১৯][২০] প্রথম দিন, অনুসন্ধানে, যদিও তিন ব্যক্তির তাঁবু দেখা গিয়েছিল[২১] এটা স্পষ্ট ছিল না, তাঁবুটি বালার্ড এবং নার্দির কিনা?[৫][১৭] খোজ পর্ব তাঁদেরকে দুজনকে খুঁজে পাওয়ার আগেই ৬ মার্চ মাধ্যম দ্বারা বন্ধ করে দেওয়া হয়।[২২] পরের দিন, অনুসন্ধান অব্যাহত রেখে বাস্ক পর্বতারোহী অ্যালেক্স টিক্সকন মামেরই স্পারের পর্বত গাত্রে দুটি শরীরের রেখাংশ নজর করেন।[২৩] তাঁদের দুজনের পরিবারকে, ইতালীয় পর্বতোরোহী- অগাস্টিন দা পোলেঞ্জা যিনি নার্দির পরিবারের তরফে অনুসন্ধান চালাচ্ছিলেন তাঁকে[২৪] এবং ইতালীয় রাষ্ট্রদূত স্টিফেনো পন্টেকর্ভোকে ছবি তুলে পাঠানোর পর, এটা সম্মত হয় যে দেহদুটি খুব সম্ভবত বালার্ড এবং নার্দির।[২৫] ৯ মার্চ, ২০১৯, এটা নিশ্চিত করা হয় মৃতদেহ দুটি বালার্ড এবং নার্দির[২৬] " এমন একটি জায়গা যেখানে পৌঁছানো কঠিন, কিন্তু মৃতদেহ দুটি পুনরুদ্ধারের জন্য সম্ভাব্য সবকিছু করা হবে ।"[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Climber eyes K2 after mother's death" (ইংরেজি ভাষায়)। ৩০ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  2. "Tom Ballard: Bodies found in missing climbers search" (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৯ 
  3. "Tom Ballard Visiting Rockies for Mixed"Gripped Magazine। ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১১ মার্চ ২০১৯ 
  4. Shute, Joe (৬ এপ্রিল ২০১৫)। "Tom Ballard: the new king of the Alps" (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0307-1235। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  5. "Thousands raised for missing climbers" (ইংরেজি ভাষায়)। ৩ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  6. Chalmers, Robert। "Tom Ballard, mountaineer, never wanted to die in bed"British GQ। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০১৯ 
  7. "Paura e attesa per Tom Ballard, giovane alpinista inglese di Fassa disperso sul Nanga Parbat"L'Adige (ইতালীয় ভাষায়)। ১ মার্চ ২০১৯। 
  8. "Tom Ballard, climbing in his veins"PlanetMountain.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  9. Sawer, Patrick (২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬)। "Tom Ballard conquers the Alps 20 years after his mother's death on K2"The Telegraph (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0307-1235। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  10. ""Tom": il film sull'alpinista Ballard conquista i film festival internazionali della montagna"Fassa.com। ১৪ জানুয়ারি ২০১৬। 
  11.   |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)
  12. "Civetta / New Dolomites climb by Tom Ballard and Marcin Tomaszewski"PlanetMountain.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  13. "Tom Ballard talks Titanic and the Eiger North Pillars"www.ukclimbing.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  14. "Tom Ballard claims world's first D15 dry tooling climb in the Dolomites"PlanetMountain.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  15. "NEWS: Tom Ballard and Daniele Nardi on Link Sar"www.ukclimbing.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  16. Leger, C. J. (২০১৯-০৩-০১)। "Tom Ballard, Son of Alison Hargreaves, Disappears on Nanga Parbat"Base Camp Magazine (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-১২ 
  17. "Full-scale search for missing climbers" (ইংরেজি ভাষায়)। ৪ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৪ মার্চ ২০১৯ 
  18. "Search for missing climbers resumes" (ইংরেজি ভাষায়)। ৫ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০১৯ 
  19. "Search operation for Daniele Nardi and Tom Ballard on Nanga Parbat continues"PlanetMountain.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ মার্চ ২০১৯ 
  20. "Nanga Parbat: still no contact with Daniele Nardi and Tom Ballard. Alex Txikon also available for rescue mission"PlanetMountain.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ মার্চ ২০১৯ 
  21. Leger, C. J. (২০১৯-০৩-০৩)। "UPDATE: Tom Ballard & Daniele Nardi Rescue"Base Camp Magazine (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-১২ 
  22. "Tom Ballard: Missing climbers 'assumed dead' as search ends" (ইংরেজি ভাষায়)। ৬ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৯ 
  23. Leger, C. J. (২০১৯-০৩-০৭)। "Tom Ballard & Daniele Nardi Rescue Update: Two Silhouettes Identified. Search is Not Over"Base Camp Magazine (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-১২ 
  24. Kington, Tom (২ মার্চ ২০১৯)। "Father of lost climber Tom Ballard is reliving wife's death on K2"The Times। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৯ 
  25. "Nardi-Ballard: il riepilogo della giornata di oggi al Nanga Parbat" (italian ভাষায়)। montagna.tv। ৭ মার্চ ২০১৯। 
  26. Leger, C. J. (২০১৯-০৩-১০)। "The Search for Tom Ballard & Daniele Nardi Officially Over. Bodies Found"Base Camp Magazine (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-১২