টমাস লর্ড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

টমাস লর্ড (জন্ম: ২৩ নভেম্বর, ১৭৫৫ - মৃত্যু: ১৩ জানুয়ারি, ১৮৩২) একজন পেশাদার ইংরেজ ক্রিকেটার ছিলেন। ১৭৮৭ থেকে ১৮০২ সময়কালের মধ্যে তিনি প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেন। এরপর ১৮১৫ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য খেলার জগতে ফিরে আসেন। মিডলসেক্স দলের সাথে জড়িত ছিলেন। এছাড়াও, মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) গ্রাউন্ড স্টাফ বোলারের দায়িত্ব পালন করেছেন। তবে, লর্ড’স ক্রিকেট মাঠের প্রতিষ্ঠাতা হিসেবেই তিনি স্মরণীয় হয়ে আছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

লর্ড ইয়র্কশায়ারের থির্স্কে (বর্তমান: টাউন মিউজিয়াম) জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা রোমান ক্যাথলিক ধর্মাবলম্বী জোতদার ছিলেন। পরবর্তীতে শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। নরফোকের ডিসে লর্ডের পরিবার স্থানান্তরিত হন ও সেখানেই লর্ড বড় হতে থাকেন। শৈশবেই তিনি বাড়ী থেকে লন্ডনে চলে যান ও ইসলিংটনের হোয়াইট কন্ডুইট ক্লাবের বোলার ও সাধারণ পরিচর্যায় নিযুক্ত হন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৭৮০ সালের দিকে লর্ড প্রখম খেলতে শুরু করেন। কিন্তু, আনুষ্ঠানিকভাবে তার প্রথম অন্তর্ভুক্ত করা হয় ৩১ মে, ১৭৮৭ তারিখে। ডরসেট স্কয়ারের বর্তমান অবস্থানে অবস্থিত তার নিজ মাঠে (যা বর্তমানে লর্ড’স ওল্ড গ্রাউন্ড নামে পরিচিত) মিডলসেক্সের হয়ে এসেক্সের বিপক্ষে খেলেন। লর্ড কোনদিন নিজেকে খেলোয়াড় হিসেবে পরিচিতি ঘটাতে পছন্দ করেননি। কিন্তু ১৭৯০-এর দশকে ঐ খেলায় তাকে অত্যন্ত উঁচুমানের বোলাররূপে উপস্থাপন করা হয়েছে। সর্বোপরি এটি সত্য যে, তার প্রতিপক্ষীয় দল সর্বদাই উচ্চ মানদণ্ডের অধিকারী ছিল না।

১৭৮৬ সালে হোয়াইট কন্ডুইট ক্লাবের শীর্ষস্থানীয় সদস্য উইচিলসি’র ৯ম আর্ল জর্জ ফিঞ্চরিচমন্ডের ৪র্থ ডিউক চার্লস লেনক্সের দ্বারা প্রভাবান্বিত হন। তারা লর্ডকে তাদের ক্লাবের জন্য আরও ব্যক্তিগত স্থান খুঁজে বের করতে বললেন। এছাড়াও, কোন ক্ষতির সম্ভাবনা পূরণের জন্য তারা তাকে নিশ্চয়তা প্রদান করলেন। মে, ১৭৮৭ সালে লর্ড ডরসেট স্কয়ারে সাত একর জমির (২৮,০০০ বর্গমিটার) সন্ধান পান ও সেখানেই তিনি প্রথম মাঠ নির্মাণ শুরু করেন। হোয়াইট কন্ডুইট সেখানে নিজেদের আস্তানা গাড়ে ও নতুন প্রতিষ্ঠিত মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাবের সাথে একীভূত হয়।

১৮১০ সালে প্রথম মাঠের লিজের সময়সীমা শেষ হয়ে যায়। এরপর লর্ড আরও দু’টি মাঠ ৮০ বছর মেয়াদে লিজ নেন। ১৮০৯ সালে প্রতিষ্ঠিত দ্বিতীয় মাঠটি বর্তমানে লর্ড’স মিডল গ্রাউন্ড নামে পরিচিত। সেন্ট জন’স উড ক্রিকেট ক্লাব এখানে প্রথম খেলতে আসে। এ ক্লাবটিও পরবর্তীকালে এমসিসি’র সাথে একীভূত হয়। ১৮১১ সালে মিডল গ্রাউন্ডে এমসিসি’র সদর দফতর প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৮১৩ সালে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট মাঠটিকে রিজেন্ট’স খালের জন্য আদেশবলে নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করে।

লর্ড’স তৃতীয় মাঠ[সম্পাদনা]

তারপর লর্ড সেন্ট জন’স উডের পাশে মাঠ নির্মাণ করেন। এরজন্য তাকে বেশ ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। ১৮১৪ সালে এর নির্মাণ কার্য শেষ হয়। অর্থ তহবিল গঠনসহ মাঠের পাশে গৃহনির্মাণের উন্নয়নের প্রেক্ষিতে অনুমতির পর তিনি মাত্র ১৫০ বর্গগজ খেলার মাঠের জন্য পান। তার পরিকল্পনা বাস্তবায়নে লর্ডকে প্রখ্যাত এমসিসির সদস্য, বিখ্যাত ব্যাটসম্যান ও ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের পরিচালক উইলিয়াম ওয়ার্ডের কাছ থেকে ৫,০০০ পাউন্ড-স্টার্লিং ধার করতে হয়েছিল। স্বত্ত্বাধিকার পরিবর্তিত হওয়া স্বত্ত্বেও অদ্যাবধি এ মাঠটি লর্ড’সের নাম অনুসারে পরিচিতি পাচ্ছে।

অবসর[সম্পাদনা]

১৮৩০ সাল পর্যন্ত লর্ড সেন্ট জন’স উডে বসবাস করতেন। হ্যাম্পশায়ারের ওয়েস্ট মিওন এলাকায় ১৮৩২ সালে দেহাবসান ঘটে লর্ডের। ওয়েস্ট মিওনের সেন্ট জন’স চার্চে তাকে সমাহিত করা হয়। ঐ এলাকায় একটি বাড়ির নামকরণ তার নামে রাখা আছে যা বিখ্যাত হ্যাম্বলডন ক্রিকেট ক্লাব থেকে অল্প কয়েক মাইল দূরে। তার পুত্র টমাস লর্ড, জুনিয়র মেরিলেবোনে ২৭ ডিসেম্বর, ১৭৯৪ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনিও একজন প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটার ছিলেন।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Harry Altham, A History of Cricket, Volume 1 (to 1914), George Allen & Unwin, 1926.
  • Derek Birley, A Social History of English Cricket, Aurum, 1999.
  • Rowland Bowen, Cricket: A History of its Growth and Development, Eyre & Spottiswoode, 1970.
  • Samuel Britcher, A list of all the principal Matches of Cricket that have been played (1790 to 1805).
  • G. B. Buckley, Fresh Light on 18th Century Cricket, Cotterell, 1935.
  • H. T. Waghorn, The Dawn of Cricket, Electric Press, 1906.
  • Arthur Haygarth, Scores & Biographies, Volume 1 (1744-1826), Lillywhite, 1862.
  • John Major, More Than a Game: the story of cricket's early years, Harper Collins, 2007.
  • Lord's 1787-1945 by Sir Pelham Warner ISBN 1-85145-112-9.