জোয়েল শের্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search

জোয়েল শের্ক ছিলেন স্ট্রিং তত্ত্বে গবেষণাকারী একজন পদার্থবিজ্ঞানী। জন শোয়ার্জ এর সাথে একোল নরমাল সুপেরিয়োরে কাজ করার সময়, তাঁরা দেখেন যে, স্ট্রিং তত্ত্ব যেসব রহস্যময় বার্তাবাহী কণিকার অস্তিত্ব ঘোষণা করে, যাদেরকে বিজ্ঞানীরা অবাঞ্ছিত এবং স্ট্রিং তত্ত্বের ত্রুটি হিসাবে বিবেচনা করেছিলেন, সেগুলি আসলে মহাকর্ষের সাথে সংশ্লিষ্ট মৌল কণা গ্রাভিটনের অনুরূপ। এভাবে ১৯৭৪ সালে তাঁরা আবিষ্কার করেন যে, ফোটন (তাড়িৎ-চৌম্বক বলের কণা), দুর্বল গজ বোসন (দুর্বল নিউক্লীয় বলের কণা), গ্লুয়ন (সবল নিউক্লীয় বলের কণা) এবং গ্রাভিটন (মহাকর্ষ বলের কণা); অর্থাৎ যাবতীয় বলকণা তথা বলসমূহকে স্ট্রিং তত্ত্ব ব্যাখ্যা করতে পারে। অর্থাৎ এটিই সেই বহুল প্রত্যাশিত কোয়ান্টায়িত মহাকর্ষ তত্ত্ব।

১৯৭৯ সালে স্ত্রীর সাথে ছাড়াছাড়ি হলে শের্ক আত্মহত্যা করেন।

একোল নরমাল সুপেরিয়োর-এর উচচ-শক্তি তত্ত্বের পাঠাগার লাবোরাতোয়ার দ্য ফিজিক তেওরিক তাঁর নামে উৎসর্গীকৃত।