জোনাথন ব্রাউন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জোনাথন ব্রাউন
জন্ম (1977-08-09) আগস্ট ৯, ১৯৭৭ (বয়স ৪২)
Washington, D.C, United States
জাতীয়তাAmerican
প্রতিষ্ঠানGeorgetown University (2010-)
University of Washington (2006-2010)
প্রাক্তন ছাত্রGeorgetown University (B.A.)
University of Chicago (Ph.D.)
সন্দর্ভসমূহThe Canonization of al-Bukhari and Muslim: the Formation and Function of the Sunni Hadith Canon (2006)
পিএইচডি উপদেষ্টাWadad Kadi
যাদের দ্বারা প্রভাবান্বিতFred Donner
ওয়েবসাইট
drjonathanbrown.com

জোনাথন ব্রাউন (Jonathan A.C. Brown born 1977) ইসলামী শাস্ত্রের একজন আমেরিকান স্কলার। 2012 সন থেকে তিনি জর্জটাইন বিশ্ববিদ্যালয়ে School of Foreign Serviceএ একজন সহযোগী অধ্যাপক। 2014 সন থেকে তিনি ইসলামী সভ্যতা চেয়ারে আসীন। তিনি Oxford Encyclopedia of Islam and Law এর এডিটর-ইন-চীফ।

তার গ্রন্থ Misquoting Muhammad: The Challenges and Choices of Interpreting the Prophet’s Legacy, Hadith: Muhammad's Legacy in the Medieval and Modern World, Muhammad: A Very Short Introduction এবং The Canonization of al-Bukhari and Muslim. তিনি হাদীস ও আরবী ভাষা বিষয়ে নিবন্ধ লিখেছেন।

পরিবার ও শিক্ষা[সম্পাদনা]

জোনাথন ব্রাউন 9 আগস্ট, 1977 ওয়াশিংটনে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন Episcopalian, 1997 সনে ইসলামে দীক্ষিত হন। [১] জোনাথন ব্রাউন একজন সুন্নী মুসলিম। [২] জোনাথন ব্রাউন 2000 সনে জর্জটাইন বিশ্ববিদ্যালয়, ওয়াশিংটন থেকে ইতিহাস বিষয়ে বিএ পাস করেন। তিনি American University of Cairoর Center for Arabic Study Abroad তে এক বছর আরবী শেখেন। 2006 সনে শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসলামী চিন্তাধারা বিষয়ে ডক্টরেট করেন। [৩]

কর্ম জীবন[সম্পাদনা]

জোনাথন ব্রাউন 2006 থেকে 2010 সিয়াটলে University of Washingtonএ Department of Near Eastern Languages and Civilization এ শিক্ষকতা করেন। তিনি 2010এ জর্জটাইন বিশ্ববিদ্যালয়ে চলে যান। চারবছর সহকারী অধ্যাপক পদে থাকেন এরপর 2012 সন থেকে জর্জটাইন বিশ্ববিদ্যালয়ের School of Foreign Service এ ইসলামী বিষয় ও মুসলিম-খ্রিস্টান সমঝোতা বিষয়ে পড়ান। [৩][৪]

তিনি Prince Alwaleed Bin Talal Center for Muslim-Christian Understandingএর পরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।[৫]

প্রকাশনা[সম্পাদনা]

জোনাথন ব্রাউন হাদীস, আরবী ভাষা, প্রাক-ইসলামী কবিতা বিষয়ে লিখেছেন।[৬]

Misquoting Muhammad (গ্রন্থ)[সম্পাদনা]

In his book Misquoting Muhammad, Brown argues that the “depth and breadth” of the early Muslim scholars’ achievement in assessing the authenticity of sayings and texts “dwarfed” that of the fathers of the Christian church.[৭] The book received a number of positive reviews,[৮][৯][১০] and was named as one of the top books on religion of 2014 by The Independent.[১১] One review of the book in a Catholic journal called it "generous to a fault when it comes to remarks about Christianity.".[১২]

==

পুস্তক তালিকা[সম্পাদনা]

রচিত পুস্তক

আর্টিকেল

Book Reviews

  • "Review of The Encyclopedia of Canonical Hadith," Journal of Islamic Studies 19, n. 3 (2008): 391-97.

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ahsen Utku (২০১০-০৮-১৮)। "Jonathan Brown on Being Inspired by Prophet Muhammad"LastProphet.info। LastProphet.info। সংগ্রহের তারিখ ৮ অক্টোবর ২০১৩ 
  2. Brown, Jonathan (১৮ জুন ২০১৬)। "The Shariah, Homosexuality & Safeguarding Each Other's Rights in a Pluralist Society | ImanWire"Al-Madina Institute (ইংরেজি ভাষায়)। 
  3. "Johnathan A.C. Brown : CV" (PDF)18.georgetown.edu। ২০১৬-০৯-০৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০১ 
  4. Knight, Michael Muhammad (২০১৪-১২-১২)। "Book review: 'The Lives of Muhammad,' by Kecia Ali and 'Misquoting Muhammad,' by Jonathan A.C. Brown."The Washington Post (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0190-8286। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০১ 
  5. Faculty, Prince Alwaleed bin Talal Center for Muslim-Christian Understanding
  6. "Jonathan Brown"Patheos.com। ২০১৫-০৬-২৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০১ 
  7. "Islam and hadiths: Sifting and combing"The Economist। ২৮ অক্টো ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৪ 
  8. Karen Armstrong (২০১৪-০৮-১০)। "Misquoting Muhammad: The Challenge and Choices of Interpreting the Prophet's Legacy by Jonathan AC Brown"The Sunday Times। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০১ 
  9. Muhammad, Michael (২০১৪-১২-১২)। "Book review: 'The Lives of Muhammad,' by Kecia Ali and 'Misquoting Muhammad,' by Jonathan A.C. Brown."The Washington Post। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০১ 
  10. Mona Siddiqui (২০১৪-০৮-০৭)। "Misquoting Muhammad: The Challenge and Choices of Interpreting the Prophet's Legacy by Jonathan A C Brown, book review | Reviews | Culture"The Independent। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০১ 
  11. Marcus Tanner (২০১৪-১২-১২)। "Books of the year 2014: The best books on religion | Features | Culture"The Independent। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০১ 
  12. Damian Howard SJ (২০১৫-০৪-১৭)। "Misquoting Muhammad. The Challenge and Choices of Interpreting the Prophet's Legacy"Thinking Faith। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০২-২২ 

External links[সম্পাদনা]