জাল্লিকাট্টু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জাল্লিকাট্টু
মাদুরাইতে জাল্লিকাট্টু খেলা

জাল্লিকাট্টু (তামিল: சல்லிகட்டு, চাল্লিকট্টু) বা এরুতাজুবাল (তামিল: ஏறுதழுவல், এরুতাঝুভাল) অথবা মাঁজুবিরাট্টু (তামিল: மஞ்சு விரட்டு), হল তামিল জাতির প্রাচীন পরম্পরাগত ক্রীড়া। যেখানে একটি ষাঁড়কে তার শিং ধরে কাবু করতে হয়। এই খেলা তামিলনাডুর আরও এক প্রাচীন উৎসব পোঙ্গাল উৎসব উপলক্ষে আয়োজন করা হয়। জাল্লিকাট্টু শব্দটি এসেছে চাল্লি ক্চু (মুদ্রা) ও কাট্টু (উপহার) থেকে। এই ক্রীড়া সেইসব প্রাচীন ক্রীড়াগুলির মধ্যে একটি যা আজও বর্তমান। জাল্লিকাট্টু খেলাটি তামিলনাডুর গ্রামীণ উৎসবগুলির অংশ মনে করাহয়। নীলগিরির কাছে করিক্কিয়ুর-এ পাথরে খোদাই করা কিছু ষাঁড়ের মূর্তি পাওয়াগেছে, যা প্রায় ২০০০ থেকে ১৫০০ খ্রিস্টপূর্বাব্দের বলে ধারণা করা হচ্ছে[১]। এই খেলাতে যে ষাঁড়গুলি ব্যবহার করা (খেলানো) হয়, সেইসব ষাঁড়গগুলিকে বাচ্চাবস্থা থেকেই বিশেষভাবে লালনপালন করা হয়।[২]

যেহেতু খেলাটির সাথে আঘাত ও মৃত্যুর ঘটনা জড়িত, উভয়ই অংশগ্রহণকারীর জন্যই এবং এতে প্রাণীদের অংশগ্রহণে বাধ্য করার জন্য, পশু অধিকার সংগঠনগুলি খেলাটিক নিষিদ্ধ করার আহ্বান জানায়, ফলস্বরূপ আদালত বিগত বছরগুলিতে বেশ কয়েকবার খেলাটিকে নিষিদ্ধ করেছিল। তবে এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে জনগণের প্রতিবাদের কারণে খেলাটি চালিয়ে যাওয়ার জন্য ২০১৭ সালে একটি নতুন অধ্যাদেশ জারি করা হয়েছে।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

ষাঁড়ের লড়াই

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bull chasing, an ancient Tamil tradition"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। ২০০৮-০১-১৫। আইএসএসএন 0971-751X। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০১-১২ 
  2. "Jellicut cattle breed" (PDF)। TANUVAS। ৭ অক্টোবর ২০১১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]