জাকার্তা-বানদুং উচ্চগতির রেলপথ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জাকার্তা-বানদুং উচ্চগতির রেল পথ
Java High-speed Rail Indonesia.svg
জাকার্তা-বানদুং রেল পথের মানচিত্র
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
বিরতিস্থলহামিল রেলওয়ে স্টেশন,জাকার্তা
টেগালুয়া রেলওয়ে স্টেশন,বানদুং
ক্রিয়াকলাপ
মালিকইন্দোনেশিয়া সরকার
প্রযুক্তিগত
রেললাইনের মোট দৈর্ঘ্য১৪৩ কিলোমিটার (৮৯ মাইল)

জাকার্তা- বানদুং হাইস্পিড রেল পথ [১] বা জাকার্তা বানদুং উচ্চ-গতির রেল পথ [২] হল ইন্দোনেশিয়া এর জাভা দ্বীপ এর পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে পরিকল্পনাধিন একটি উচ্চ গতির রেল পথ।এই রেল পথটি জাভা দ্বীপ এর পশ্চিমে অবস্থিত দেশের রাজধানী জাকার্তা থেকে জাভা দ্বীপের পূর্বের শহর বানদুং পর্যন্ত নির্মাণ করা হবে।ইন্দোনেশিয়া সরকার ২০১০ সালে প্রথম এই প্রকল্পের কথা ঘোষণা করে।কিন্তু পরিকল্পনাটি সফল হয়নি।এর পর ২০১৫ সালে এই প্রকল্প নতুন ভাবে শুরু হয়।এই রেল পথ নির্মাণ প্রকল্পে চিনজাপান উভয় দেশই আগ্রহ দেখিয়েছে।দেশ দুটি জাকার্তা থেকে বানদুং পর্যন্ত ১৫০ কিলোমিটার পথে পর্যবেক্ষন করেছে।এর পর জাপান বানদুং থেকে জাভা দ্বীপের পূর্ব অংশের শহর সরাবায়া পর্যন্ত ৭৩০ কিলোমিটার পথ পর্যবেক্ষন করেছে।কিন্তু এই রেল পথ নির্মাণের দায়ীত্ব পায় চিন এর চীনা রেলওয়ে ইন্টারন্যাশনাল ।২০১৬ সালে এই ঘোষণা করে ইন্দোনেশিয়া সরকার।এই রেল পথ ( জাকার্তা থেকে বানদুং) নির্মাণে খরচ ধরা হয়েছে ৫.১৩৫ মার্কিন ডলার।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী ও বৃহত্তম শহর হল জাকার্তা।এই শহরটি জাভা দ্বীপ এর পশ্চিমে অবস্থিত।এই শহরের সঙ্গে জাভা দ্বীপের অন্য শহর গুলির মধ্যে দ্রুত রেল পরিসেবার লক্ষ্যে ২০১০ সালে ইন্দোনেশিয়া সরকার প্রথম জাকার্তা-বানদুং উচ্চ গতির রেল প্রকল্প ঘোষণা করে জাকার্তাবানদুং শহর এর মধ্যে জাকার্তা -বানদুং হাইস্পিড রেল পথ।এই প্রকল্পটিই দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া এর প্রথম উচ্চ গতির রেল পথ।প্রকল্পটি নতুন ভাবে শুরু হয় ২০১৫ সালে।এই সময় এই রেল প্রকল্পটি নির্মাণের জন্য জাপান ও চিন এর মধ্যে প্রতিদ্বন্দীতা চলে।কিন্তু শেষে চিন এই প্রকল্প নির্মাণের অধিকার পায়।প্রকল্পটির প্রথম অংশ হিসাবে জাকার্তা থেকে বানদুং পর্যন্ত ১৪৩ কিলোমিটার উচ্চগতির বা হাইস্পিড রেল পথ নির্মাণ করবে ইন্দোনেশিয়া চিন এর সহযোগিতায়।

নির্মাণ[সম্পাদনা]

জাকার্তা থেকে বানদুং অংশের উচ্চগতির রেল পথ নির্মাণ ২০১৬ সাল থেকে নির্মাণ শুরু হয়েছে।এই নিরওমান করছে চীনের চীনা রেলওয়ে ইন্টারন্যাশনাল।এই নিরওমানাধিন রেল পথের দৈর্ঘ্য হল ১৪৩ কিলোমিটার।নির্মাণে খরচ ধরা হয়েছে ৫.১৩৫ মিলিওন মার্কিন ডলার।তবে প্রকল্পটি নিরওমানুর শুরু থেকেই নানা বাধার সমুখীন হচ্ছ।

স্টেশন গুলি[সম্পাদনা]

এই রেল পথে মোট চারটি স্টেশন রয়েছে।এই স্টেশন গুলি হল- হালিমা রেলওয়ে স্টেশন, কারায়াং রেলওয়ে স্টেশন, য়ালিনি রেলওয়ে স্টেশন , টেগালুয়া রেলওয়ে স্টেশন

সম্প্রসারন[সম্পাদনা]

জাকার্তা- বানদুং উচ্চগতির রেল প্রকল্পটিকে জাভা দ্বীপের পূর্বে সারাবায়া শহর পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার কথা চলছে।তবে জাকারওতা বানদুং অংশটি আগে নির্মাণ করা হবে।এই রেল পথটি সমপ্রসারনের পরে ৯১৩ কিলোমিটার দীর্ঘ্য হবে।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ইন্দোনেশিয়ার উচ্চগতির রেলওয়ে প্রকল্প বাধাগ্রস্ত যাত্রা"। সংগ্রহের তারিখ ২৫-১১-২০১৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. "Jakarta-Bandung high-speed railway to get chinese loan"। সংগ্রহের তারিখ ২৫-১১-২০১৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)