জওহরলাল নেহরু উন্নত বৈজ্ঞানিক গবেষণা কেন্দ্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জওহরলাল নেহরু উন্নত বৈজ্ঞানিক গবেষণা কেন্দ্র
100px
স্থাপিত১৯৮৯
আচার্যমঞ্চনহাল্লি রংগস্বামী সত্যনারায়ণ রাও(Manchanahalli Rangaswamy Satyanarayana Rao)
শিক্ষায়তনিক কর্মকর্তা
~৫০
শিক্ষার্থী~২০০
ঠিকানা
জওহরলাল নেহরু উন্নত বৈজ্ঞানিক গবেষণা কেন্দ্র (জে এন সি এ এস আর), জাক্কুর, ব্যাঙ্গালোর-৫৬০০৬৪
, , ,
ওয়েবসাইটwww.jncasr.ac.in

জওহরলাল নেহরু উন্নত বৈজ্ঞানিক গবেষণা কেন্দ্র (সংক্ষেপে জে এন সি এ এস আর) এক বহু শৈক্ষিক বিষয় (ইংরাজী: multidisciplinary) বিশিষ্ট গবেষণা প্রতিষ্ঠান। স্বাধীন ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী পণ্ডিত জওহরলাল নেহরুর জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসাবে ভারত সরকারএর বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তিবিদ্যা বিভাগ (ইংরাজী:Department of Science and Technology)র দ্বারা এই গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি স্থাপিত হয়েছিল। জে এন সি এ এস আর ব্যাঙ্গালোর মহানগরীর জাক্কুর অঞ্চলে অবস্থিত। বিজ্ঞান এবং অভিযান্ত্রিক বিদ্যার অগ্রণী বিষয়সমূহে বৈজ্ঞানিক গবেষণা এবং প্রশিক্ষণের ক্ষেত্রে পরিশীলন এবং উৎকর্ষ সাধনই হচ্ছে প্রতিস্থানটির মুখ্য উদ্দেশ্য। বর্ত্তমান অধ্যাপক এম এস আর রাও [১] প্রতিষ্ঠানটির সভাপতি (ইংরাজী: president) এবং অধ্যাপক সি এন আর রাওএর সম্মানীয় প্রতিস্থাপক সভাপতি।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

জে এন সি এ এস আরে শিক্ষা বিভাগসমূহ ৬ টা এককের ভাগে হয়: পদার্থর রসায়ন এবং ভৌতিকী একক (Chemistry and Physics of Materials Unit, CPMU), অভিযান্ত্রিক বলবিজ্ঞান একক (Engineering Mechanics Unit, EMU), বিবর্তনিক এবং জৈবিক জীববিজ্ঞান একক (Evolutionary and Organismal Biology Unit, EBU), আণবিক জীববিজ্ঞান এবং জেনেটিক্স একক (Molecular Biology and Genetics Unit, MBGU), তাত্ত্বিক বিজ্ঞান একক (Theoretical Sciences Unit, TSU), শিক্ষা প্রযুক্তি এবং ভূ-গতি একক (Educational Technology and Geodynamics Unit)। এছাড়াও অন্য দুটো বর্হি-পরিসরের গবেষণা একক আছে: রাসায়নিক জীববিজ্ঞান (Chemical Biology) এবং ঘনীভূত অবস্থার তত্ত্ব বিজ্ঞান (Condensed Matter Theory)।

জে এন সি এস আরে থাকা সংস্থায় শিক্ষার্থীর অনুপাত ১:৪। প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব অত্যাধুনিক পরীক্ষণ, সংগণনা এবং আন্তঃগাঁথনির সুবিধা আছে। এখানে পি এইচ ডি পাঠ্যক্রমের সাথে ইন্টিগ্রেটেড পি এইচ ডি (স্নাতক পাঠ্যক্রমের পরবর্তী পর্যায়ে) পড়ানো হয়। প্রতিষ্ঠানটি একটি "ডীমড ইউনিভার্সিটি" (ইংরাজী:deemed university), অর্থাৎ এটি শিক্ষার্থীকে নিজস্ব ডিগ্রী প্রদান করে।

বৈজ্ঞানিক সহযোগিতা এবং গবেষণা[সম্পাদনা]

বিগত বর্ষগুলিতে জে এন সি এ এস আরের সংস্থার সদস্য অধ্যাপকগণ তাঁদের গবেষণা লব্ধ ফলাফল বিশ্বের বহু অগ্রগণ্য উৎকৃষ্ট বৈজ্ঞানিক জার্নালে (ইংরাজী: Scientific Journal) প্রকাশ করে আসছেন। তাঁদের গবেষণা পত্র প্রকাশ হওয়া জার্নালের মধ্যে Nature, Nature Medicine, Science, Evolution, the Journal of the American Chemical Society, Angewandte Chemie, the Journal of Fluid Mechanics, এবং Physical Review Letters অন্যতম। জে এন সি এস আরের থেকে গড় হিসাবে প্রতি বছরে দুই শতাধিক উচ্চস্তরীয় বৈজ্ঞানিক গবেষণা পত্র প্রকাশ হয়।

গবেষণা কেন্দ্রের সংস্থায় সদস্যদের মূল্যবান বৈজ্ঞানিক অবদান বিভিন্ন সম্মাননা, পুরস্কার ইত্যাদির মাধ্যমে স্বীকৃত হয়েছে। সম্মানীয় প্রতিস্থাপক সভাপতি সি এন আর রাওর পুরস্কার প্রাপ্তির তালিকা বহু পৃষ্ঠা জুড়ে হয় ।[২]। সংস্থা়র সদস্যদের দ্বারা প্রাপ্ত সন্মানসমূহর ভিতরে উল্লেখনীয় কয়েকটি হল: ২০০৬ সালে তাপস কে কুন্দুর জীববিজ্ঞান বিভাগে (শান্তি স্বরূপ ভাটনাগর পুরস্কার), অনুরাজন আনন্দ্ (আণবিক শক্তি আয়োগ- ডি এ' ইর উৎকৃষ্ট গবেষণা পুরস্কার, শ্রীকান্ত শাস্ত্রী, জি ইউ কুলকার্নি এবং এস বালাসুব্রমনিয়ম (কয়েকটি বিরলা বিজ্ঞান পুরস্কার বাড়ানো হয়েছে), ২০০৭ সালে রামা গোবিন্দরাজন (শান্তি স্বরূপ ভাটনাগর পুরস্কার), ২০১০ সালে উমেশ বাঘমেরে (শান্তি স্বরূপ ভাটনাগর পুরস্কার) ইত্যাদি।

ক্যাম্পাস[সম্পাদনা]

Buckyball আণবিক জীববিজ্ঞান এবং জেনেটিক্স একক (MBGU) ভবন, জে এন সি এ এস আর

জে এন সি এস আরের ক্যাম্পাস স্থাপত্যগত ভাবে আকর্ষণীয় এবং উদ্ভাবনীমূলক। কয়েক একর এলাকা জুড়ে সবুজ প্রাকৃতিক পরিবেশে জে এন সি এস আর আবৃত। সবুজ ক্যাম্পাসের বৃক্ষ সমূহের ওপরের মাথায় Charles Correaর পরিকল্পনায় নির্মিত বাকিবল ড'ম (ইংরাজী:buckyball dome) দৃশ্যমান।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বাহ্যিক সংযোগ[সম্পাদনা]