গ্রান সাবানা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান

লা গ্রান সাবানা (স্পেনীয় উচ্চারণ: [la ɣɾan saˈβana], ইংরেজি: The Great Savanna) ভেনেজুয়েলার দক্ষিণ-পূর্বাংশে অবস্থিত একটি অঞ্চল। এ অঞ্চলটি গুইয়ানান সাভানা নামেও পরিচিত। গুয়াইয়ানা উচ্চভূমি অঞ্চল ও বলিভার রাজ্যের দক্ষিণ-পূর্বাংশে সাভানার বিস্তৃত ঘটেছে যা ব্রাজিলগায়ানা সীমান্তরেখায় মিলিত হয়েছে।[১] গ্রান সাবানার আয়তন প্রায় ১০,৮২০ বর্গ কিলোমিটার (৪,১৮০ বর্গ মাইল)। ভেনেজুয়েলার দ্বিতীয় বৃহত্তম জাতীয় উদ্যানের অংশ এটি। কেবলমাত্র পারিমা তাপিরাপেকো জাতীয় উদ্যান কানাইমার চেয়ে বৃহত্তর।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

মানচিত্রে ভেনেজুয়েলা ও গ্রান সাবানা

স্থানটি বিশ্বের অন্যতম দূর্গম এলাকা হিসেবে পরিচিত ও নদী, জলপ্রপাত, জঙ্গলে ঘেরা। ব্যাপকসংখ্যক ও বিভিন্ন প্রজাতির গাছপালায় পরিপূর্ণ। ঔপনিবেশিক আমলে ভেনেজুয়েলায় প্রাকৃতিক সম্পদের হাতছানিতে এল দোরাদো উপাখ্যানের জন্ম দেয়। এরফলে দুঃসাহসী ব্যক্তি, আবিস্কারক ও বসতি স্থাপনকারীদের গভীর মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়। স্বর্ণ, মণি-মুক্তা ও অন্যান্য মূল্যবান ধন-সম্পদের দিকে আকৃষ্ট হয়ে তাঁরা এ উপকূলভূমিতে পদার্পণ করে। কিন্তু অঞ্চলটি অত্যন্ত দূর্গম ও প্রবেশ করা বেশ দুঃসাধ্য। অদ্যাবধি খুব স্বল্পসংখ্যক লোককেই এতদাঞ্চলে দেখা গেছে।

সম্পদের বিপুল সমারোহ ও জীবতাত্ত্বিক, খনিজ এবং দক্ষিণ পূর্ব গায়ানার ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে এ অঞ্চলকে রক্ষা করার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়। ফলশ্রুতিতে ভেনেজুয়েলার সরকার অঞ্চলটিকে রক্ষা করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে। অনেক বছর পর ১২ জুন, ১৯৬২ তারিখে কানাইমাকে নির্বাহী আদেশ নং ৭৭০-এর মাধ্যমে জাতীয় উদ্যান হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

অবদান[সম্পাদনা]

বর্তমানে গ্রান সাবানা উচ্চ পর্যায়ের জীববৈচিত্র্যের অধিকারী মূল্যবান স্থান হিসেবে পরিচিত। ১৯৯৪ সালে ইউনেস্কো কানাইমা জাতীয় উদ্যানকে বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান হিসেবে ঘোষণা করেছে। ভেনেজুয়েলা সরকারের কাছে স্থানটি অত্যন্ত উচ্চস্তরের। এছাড়াও ভেনেজুয়েলীয়দের কাছে এটি গর্বের স্থান হিসেবে বিবেচিত। প্রতি বছর হাজার হাজার পর্যটক এ স্থান পরিদর্শনে আসেন ও উদ্যানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা অনেক বৃত্তিধারী ও বিজ্ঞানীর আকর্ষণের কেন্দ্রস্থল এটি। ভেনেজুয়েলার মোট উদ্ভিদ প্রজাতির ৪০% এখানে রয়েছে।

ভৌগোলিক উপাদান[সম্পাদনা]

এ অঞ্চলের সর্বাপেক্ষা বৃহৎ শহর হচ্ছে সান্তা এলেনা দে ইউয়ারেন। সাম্প্রতিক বছরগুলো এর অবিশ্বাস্য উন্নয়ন ঘটছে ও ত্রিশ সহস্রাধিক জনসংখ্যা রয়েছে। ১৯২৩ সালে এ অঞ্চলের হীরা উৎপাদনে আকৃষ্ট হয়ে লুকাস ফার্নান্দেজ পেনা এর গোড়াপত্তন করেন। গড় তাপমাত্রা ২৫- ২৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৯১০ মিটির উঁচুতে এর অবস্থান। ব্রাজিল সীমান্ত থেকে ১৫ কিলোমিটার, সিউদাদ গায়ানা থেকে ৬১৫ কিলোমিটার ও কারাকাস থেকে ১,৪০০ কিলোমিটার দূরে এর অবস্থান। গ্রান সাবানার বর্তমান জনসংখ্যা প্রায় ৪৮,০০০।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "La Gran Sabana"Venezuela Tuya। venezuelatuya.com S.A.। সংগৃহীত ২০১২-০৯-১৪। "La Gran Sabana (The great plain) is located inside Venezuela's biggest national park: Canaima, in the Bolivar state south. It is an unique place with views that you will not see anywhere else in the world." 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

চিত্রমালা[সম্পাদনা]

কেএম ৮৮-এ হ্রদের সবুজ জল 
কামা জলপ্রপাত 
পারি ও সরোরোপানের মনোরম দৃশ্য 
দ্বিতীয় জেসপার ক্রিকের কূপ 
ভূ-দৃশ্য 
কুকেনানে সূর্যাস্তের সর্বশেষ রশ্মি 
ভার্জিনের পাথর 
সূর্যাস্তে তেপুই 
টেক রিভার ক্যাম্প থেকে রোরাইমা পর্বতমালা 
কুকেনান 
কাভানায়েনের দৃশ্য 
আপুনোয়াও 

স্থানাঙ্ক: ৬°১৫′০০″ উত্তর ৬২°৫০′১৮″ পশ্চিম / ৬.২৫০০০° উত্তর ৬২.৮৩৮৩৩° পশ্চিম / 6.25000; -62.83833