গোল মরিচ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

Black pepper
গোল মরিচ
Piper nigrum - Köhler–s Medizinal-Pflanzen-107.jpg
কাচা গোলমরিচ ফল সহ গোল মরিচ গাছ।
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Plantae
(শ্রেণীবিহীন): Angiosperms
(শ্রেণীবিহীন): Magnoliids
বর্গ: Piperales
পরিবার: Piperaceae
গণ: Piper
প্রজাতি: P. nigrum
দ্বিপদী নাম
Piper nigrum
L.[১]

গোল মরিচ (বৈজ্ঞানিক নাম: Piper nigrum ইংরেজি নাম Black pepper) পিপারাসি গোত্রের পিপার গণের একটি লতাজাতীয় উদ্ভিদ। এদের ফলকে শুকিয়ে মসলা হিসাবে ব্যবহার করা হয়। গোল মরিচের Pepper শব্দটি এসেছে সংস্কৃত ভাষার "পিপালী" শব্দ থেকে, যার অর্থ দীর্ঘ মরিচ। এখান থেকে উদ্ভূত হয়েছে লাতিন ভাষার piper যা মরিচ ও গোল মরিচ দুটোকেই বোঝানোর জন্য রোমানরা ব্যবহার করতো।

বিবরণ[সম্পাদনা]

গোল মরিচ ফলটি গোলাকার, ৫ মিলিমিটার ব্যাসের, এবং পাকা অবস্থায় গাঢ় লাল বর্ণের হয়ে থাকে। এর মধ্যে মাত্র ১টি বীজ থাকে। গোল মরিচ গাছের আদি উৎস দক্ষিণ ভারত। পৃথিবীর উষ্ণ ও নিরক্ষীয় এলাকায় এটির চাষ হয়ে থাকে।

গোল মরিচের গুঁড়া পশ্চিমা (ইউরোপীয়) খাদ্যে মসলা হিসাবে ব্যবহার করা হয় প্রাচীন কাল থেকে। তবে ভারত বর্ষের মসলাধিক্য রান্নায় এটির ব্যবহার প্রচুর। এছাড়া ঔষধী গুণাগুণের জন্যেও এটি সমাদৃত। গোল মরিচে পাইপারিন (piperine) নামের রাসায়নিক উপাদান রয়েছে, যা থেকে এর ঝাঁঝালো স্বাদটি এসেছে।

গুনাগুণ[সম্পাদনা]

গ্যাসট্রিক, কফ, ঠাণ্ডাজনিত সমস্যায়, ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি ব্যাহত করতে, ওজন কমাতে বিশেষভাবে সাহায্য করে।[২]

রাসায়নিক উপাদান[সম্পাদনা]

গোলমরিচে অনেক পরিমানে মেন্থল আছে। শুকনো গোলমরিচের (০.৩-০ .৪%) -এ সাধারণত মেন্থল (৭-৪৮%), মেন্টোন (২০-৪৬%), মিথাইল অ্যাসিটেট (৩-১০%), মেন্থোফুরান (১-১৭%) এবং ১,৮-সিনোল (৩-৬%) সমন্বিত উদ্বায়ী তেল থাকে। এছাড়াও limonene, pulegone, caryophyllene এবং pinene সহ অনেক যৌগ সামান্য পরিমাণে রয়েছে।[৩][৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Piper nigrum information from NPGS/GRIN"। www.ars-grin.gov। ২০০৮-১২-২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৩-০২ 
  2. "Mint Tea Health Benefits"Gban'S & You (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০১-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-১৭ 
  3. Leung, Albert Y. (১৯৮০)। Encyclopedia of common natural ingredients used in food, drugs, and cosmetics। Internet Archive। New York : Wiley। আইএসবিএন 978-0-471-04954-8 
  4. "Book sources"Wikipedia (ইংরেজি ভাষায়)। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]