গোলাপী এখন বিলাতে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গোলাপি এখন বিলেতে
গোলাপি এখন বিলেতে চলচ্চিত্র পোস্টার.jpeg
ডিভিডি কভার
পরিচালকআমজাদ হোসেন
প্রযোজকএম আর হক
সাইদ হোসেন
রচয়িতাআমজাদ হোসেন
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারগানওয়েট রাজা
রাম সংকর
মুক্তি
  • ২৯ জানুয়ারি ২০১০ (2010-01-29)
দৈর্ঘ্য১২৫ মিনিট
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা

গোলাপী এখন বিলাতে ২০১০ সালের একটি বাংলাদেশী চলচ্চিত্র যা রচনা ও পরিচালনা করেন আমজাদ হুসন। এতে অভিনয় করেছেন মিঠুন চক্রবর্তী, মৌসুমী, শাবনূর, ফেরদৌস আহমেদ, প্রবীর মিত্র এবং আহমেদ শরীফ।[১][২] এর আগে আমজাদ হোসাইদ আরও দুটি ছবি পরিচালনা করেছিলেন, গোলাপী এখন ট্রেনে (১৯৭৮), গোলাপী এখন ঢাকায় (১৯৯৫)। গোলাপী এখান বিলাতে চলচ্চিত্রটি চিত্রগ্রহণ ২০০৬ সালের মে মাসে শুরু হয়েছিল[২][৩] এবং এটি ২৯ জানুয়ারী ২০১০ এ বাংলাদেশে মুক্তি পায়।[২]

কাহিনী[সম্পাদনা]

গোলাপী (মৌসুমী) অপেক্ষায় দিন, মাস গোনে। বছর যায়। কিন্তু তাঁর ভালোবাসার মানুষ আর ফিরে আসে না। বিলাতে (যুক্তরাজ্য) গিয়ে ভালোবাসার মানুষ (মিঠুন চক্রবর্তী) কি ভুলে গেছে তাকে? ওদিকে বিলাতে গিয়ে জীবিকার কারণে গোলাপীর ভালোবাসার মানুষটি বিয়ে করে অন্য একটি মেয়েকে। একদিন তিনি মায়ের মৃত্যুর খবর পেলেন। দেশে এসে দেখা পেলেন গোলাপীর। একি হাল হয়েছে গোলাপীর! বুকের ভেতরটা হাহাকার করে ওঠে। গোলাপীকে নিয়ে মিঠুন চলে যায় বিলাতে। মিঠুনের মেয়ে শাবনূর। বিলাতেই বড় হয়েছে। শাবনূরের ছেলেবন্ধু ফেরদৌস। বিলাতের পরিবেশে শুরু হয় গোলাপীর নতুন জীবন।

অভিনয়[সম্পাদনা]

শুটিং[সম্পাদনা]

ছবিটির শুটিং নিচে উল্লিখিত স্থানে করা হয়েছিল:

  • ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সংসদ ভবন, ওয়েস্টমিনস্টার, লন্ডন, ইংল্যান্ড, যুক্তরাজ্য
  • সাউথ-অন-সি, এসেক্স, ইংল্যান্ড, যুক্তরাজ্য
  • ট্রাফালগার স্কয়ার, সেন্ট জেমস, লন্ডন, ইংল্যান্ড, যুক্তরাজ্য

পুরস্কার[সম্পাদনা]

১৩তম মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bollywood Star Mithun Chakrabarti talked about his Bangladeshi Film"। dhakanews। ২০১০-০১-৩০। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৯-০৪ 
  2. "২৯ জানুয়ারি 'গোলাপী এখন বিলেতে'"। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৫ 
  3. "গোলাপীরা এখন কোথায়?"। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৫ 
  4. "আজীবন সম্মাননা পেলেন ফিরোজা বেগম"www.prothom-alo.com। ২৯ এপ্রিল ২০১১।