গেলিথিয়ায় ভাইকিং উপস্থিতি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মূর্তি ভাইকিং

গালিথিয়া মধ্যে ভাইকিং এর উপস্থিতি নবম ও দ্বাদশ শতাব্দীর মধ্যবর্তী জায়গা নেয় যখন তারা একটি নৌ ও সামরিক শক্তি ছিল, আটলান্টিক মহাসাগর দ্বারা লুন্ঠন ও বিজয়ের অভিযান চালু এবং শহর যা তারা লুট করতে চেয়েছিলেন নদী দ্বারা ক্রমবর্ধমান। তারা তাদের যাত্রা ভূমধ্যসাগরে সব পথে প্রসারিত করে, এবং পথে তারা গালিথিয়া হানা দেয়। সমসাময়িক পাঠ্যে ভাইকিং প্রায়ই normandos বা lordimani হিসেবে উল্লেখ করা হয়।

প্রথম আক্রমণ[সম্পাদনা]

গালিথিয়া মধ্যে ভাইকিংদের প্রথম বহিরাক্রমণ "Annales Bertiniani" উল্লেখিত এবং আগস্টে ৮৪৪ তারিখে, যখন একটি লুণ্ঠন অভিযান থেকে একটি গ্রুপ পিরেনে প্রবেশ করে এবং গালিথিয়া পৌঁছে যায় একটি ঝড়ের দ্বারা ধাক্কা খেয়ে। উপকূলীয় গ্রাম লুন্ঠন করার পর তারা চরমভাবে প্রত্যাহত হল ফেরাম বৃক্যানটিয়াম (Farum Brecantium) নৈকট্যে। অর্থাত, হারকিউলিসের টাওয়ার (তারা ডাক তো)। আস্তুরিযাস এর রেমিরো আই সেই সময়ে আস্তুরিযাস রাজা ছিলেন, প্রতিআক্রমণের জন্য গালিথিয়া এবং Asturia সৈন্য জড়ো করে। আস্তুরিয় জয়ের পর ভাইকিং লিসবন এর দিক তাদের সমুদ্রযাত্রা অব্যাহত করে।

লোককাহিনী ব্যাখ্যা করে যখন ভাইকিং নদী মাস্মা মুখে এসে পরে তখন Gonzalo Bretoña এর বিশপের এলাকায় পবিত্র বিশপ আসন্ন আক্রমণের বিরুদ্ধে আসমান থেকে সুরক্ষার জন্য প্রার্থনা করলেন। একটি প্রধান ঝড় ছেড়ে দেওয়া হয়, দ্রুত সব ডুবন্ত এবং ভাইকিংদের একটি বৃহৎ সংখ্যা তাদের জাহাজ এ পালিয়ে যায়।

দ্বিতীয় আক্রমণ[সম্পাদনা]

ভাইকিং ৮৫৯ সালে গালিথিয়া ফিরে আসে যখন অর্ডনো আই আস্তরিয়াস এর রাজত্বকাল ছিল।[১] এ টা ছিল ফরাসি উপকূল যেখান থেকে লুটপাট অভিযান দ্বারা একশ জাহাজ অনিশ্চিত ছিল যেটা পরে আরোসা মোহনার দিকে পরিচালিত হয়েছিল। ইরিয়া ফ্লেভিয়া লুটপাটের পর তারা সান্তিয়াগো ডি কম্পোসটেলা অভিযান অব্যাহত রাখে, যেখানে তারা ঘেরাও করে। তাদের প্রতিবেশীদের রাজস্ব দেওয়া ছিল লুটপাট এড়াতে, কিন্তু এটা সত্ত্বেও, ভাইকিং শহরে প্রবেশের চেষ্টা ছিল। তারা সম্মুখীন হয়েছিল সেনা ডন পেড্রো দের, যারা তাদের বিচ্ছুরিত করে এবং তাদের জাহাজ আটত্রিশটি ধ্বংস করেফেলে; পরে জীবিত ভাইকিং দক্ষিণে গিয়েছিল। এই অভিযানের ফলে ইরিয়া এর এপিসকোপাল সি, সান্তিয়াগো ডি কম্পোসটেলা স্থানান্তর হয়।

পরে আক্রমণ[সম্পাদনা]

৯৫১ সালে ভাইকিং পুনরায় গ্যালিশিয় উপকূলে আক্রমণ করে। গ্যালিশিয় শহর তার পরবর্তি বছর ধরে তাদের প্রতিরক্ষাকে শক্তিশালী করবে। ৯৬৪ সালে ভাইকিং আবার এসেছিল, কারণ তাদের ছেলানোভা (Celanova) এর ম্যানডোনিডো, রোসেনডো (Rosendo) এর নিজস্ব বিশপের মুখোমুখি হতে হয়েছে।

১০১৫ অভিযানে ওলাফ হেরাল্ডসন, যিনি পরে নরওয়ে রাজা ওলাফ দ্বিতীয় হয়ে নেতৃত্বে ছিলেন। ক্যাসট্রোপল, বেটানজোস, রিবাস ডি শীল এবং টুই তিনি এই চারটি প্রধান গ্যালিশিয় শহর ধ্বংস করেছে।[২]

গ্যালারি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]