গাউচো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আর্জেন্টাইন গাউচো, ছবিটি ১৮৬৮ খ্রিস্টাব্দে পেরুতে তোলা

গাউচো (স্পেনীয়: [ˈɡautʃo]) দক্ষিণ আমেরিকার বিশেষ কিছু অঞ্চলে বসবাসকারী অধিবাসীদের সাধারণ নাম। মহাদেশটির পাম্পাস, গ্রান চাকো ও পাতাগোনিয়ান তৃণভূমিতে এরা ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। আর্জেন্টিনার কিছু অংশ, ব্রাজিলের দক্ষিণে রিও গ্রান্দে দো সুল, উরুগুয়ে, প্যারাগুয়ে, দক্ষিণ ও পূর্ব বলিভিয়া এবং দক্ষিণ চিলিতে এদের বসবাস। এছাড়া ব্রাজিলের রিও গ্রান্দে দো সুল অঞ্চলে বসবাসকারী অধিবাসীদের জাতিগতভাবে গাউচো নামে ডাকা হয়।

উত্তর আমেরিকার কাউবয় (স্প্যানিশ ভাকেরো) আর দক্ষিণ আমেরিকার গাউচো একই বস্তু। এছাড়া চিলির উয়াসো (huaso), কিউবার গুয়াখিরো (guajiro), ভেনিজুয়েলা আর কলম্বিয়ার ইয়ানেরো (llanero) বা মেক্সিকোর চাররো-এর (charro) সাথে এদের সাদৃশ্য রয়েছে। কাউবয়ের মতোই গাউচোদের প্রভাব এখনকার চেয়ে ঊনবিংশ শতাব্দীতে বেশ প্রবল ছিল। চাষাবাদ, বিশাল সব এস্তানসিয়ায় পশুপালন আর শিকার ছিল এদের প্রধান জীবিকা।

গাউচো নামটির উদ্ভব নিয়ে যথেষ্ঠ বিতর্কের অবকাশ রয়েছে। সম্ভবত এটি মাপুচে শব্দ কাউচু[১] (cauchu, ভবঘুরে) অথবা কেচুয়া শব্দ উয়াচো (huachu, পিতৃমাতৃহীন) থেকে উদ্ভূত হয়েছে। ১৮১৬ সালে আর্জেন্টিনার স্বাধীনতা ঘোষণার সময় শব্দটির প্রথম ব্যবহার দেখা যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]