কোয়াভ্যানজানে ওয়ালিস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কোয়াভ্যানজানে ওয়ালিস
Quvenzhané Wallis
Quvenzhané Wallis 2013.jpg
জন্ম (2003-08-28) ২৮ আগস্ট ২০০৩ (বয়স ১৮)
পেশাঅভিনেত্রী, লেখিকা
কর্মজীবন২০১২-বর্তমান

কোয়াভ্যানজানে ওয়ালিস (/kwəˈvænən/ kwə-VAN-jə-nay;[১] জন্ম: ২৮ আগস্ট ২০০৩)[২][৩] হলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী ও লেখিকা। তিনি নাট্যধর্মী চলচ্চিত্র বিস্টস অব দ্য সাউদার্ন ওয়াইল্ড (২০১২) চলচ্চিত্রে হাশপাপি চরিত্রে অভিনয়ের জন্য পরিচিতি লাভ করেন।[৪] এই কাজের জন্য তিনি সর্বকনিষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন এবং তিনি একাডেমি পুরস্কারে মনোনীত একবিংশ শতাব্দীতে জন্মগ্রহণকারী প্রথম ব্যক্তি।[৫][৬]

২০১৪ সালে ওয়ালিস অ্যানি চলচ্চিত্রের পুনর্নির্মাণে অভিনয় করেন, যার জন্য তিনি সেরা সঙ্গীতধর্মী বা হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

২০১৭ সালে তার রচিত দুটি বই - শাই অ্যান্ড এমি স্টার ইন ব্রেক এন এগ এবং আ নাইট আউট উইথ মামা প্রকাশিত হয়। তিনি পরবর্তীতে আরও দুটি বই – শাই অ্যান্ড এমি ড্যান্সি প্যান্টস এবং শাই অ্যান্ড এমি স্টার ইন টু দ্য রেসকিউ প্রকাশ করেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ওয়ালিস ২০০৩ সালের ২৮শে আগস্ট লুইজিয়ানা অঙ্গরাজ্যের হুমা শহরের জন্মগ্রহণ করেন। তার মাতা কোয়ালিন্ড্রেয়া ওয়ালিস (বিবাহপূর্ব জ্যাকসন) একজন শিক্ষিকা এবং পিতা ভেনিয়ে ওয়ালিস সিনিয়র একজন ট্রাক চালক।[৭] তার এক বোন ও দুই ভাই রয়েছে, তারা হলেন কোয়ানিকেকিয়া, ভেয়োন ও ভেনিয়ে জুনিয়র।[২][৮][৯] তার নাম "কোয়াভেনজানে" তার পিতামাতার নামের প্রথমাংশ "কোয়াভেন"-এর সমন্বয়ে গঠিত এবং সোয়াহিলি শব্দ জিনি অর্থ "পরী"।[১০]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

বছর শিরোনাম চরিত্র টীকা
২০১২ বিস্টস অব দ্য সাউদার্ন ওয়াইল্ড হাশপাপি
২০১৩ বোনশেকার ব্লেসিং স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র
২০১৩ টুয়েলভ ইয়ার্স আ স্লেইভ মার্গারেট নর্দাপ
২০১৪ অ্যানি অ্যানি বেনেট স্ট্যাকস
২০১৪ কাহলিল জিবরান্‌স দ্য প্রফেট আলমিত্রা (কণ্ঠ)
২০১৫ ফাদার্স অ্যান্ড ডটার্স লুসি
২০১৬ লেমোনেড স্বয়ং
২০১৬ ট্রলস হার্পার (কণ্ঠ)
২০১৯ ব্ল্যাক-ইশ কায়রা ৫ পর্ব

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "11 Celeb Names You're Totally Pronouncing Wrong"সেভেনটিন। ২০১৭-০৭-৩১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১১-১৯ 
  2. "Beasts of the Southern Wild press kit" (PDF)। মার্চ ৮, ২০১৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১০, ২০১২ 
  3. "Monitor"। এন্টারটেইনমেন্ট উইকলি (১২৭৪)। আগস্ট ৩০, ২০১৩। পৃষ্ঠা ২০। 
  4. নিকোলসন, অ্যামি (জুন ২৯, ২০১২)। "Quvenzhané Conquers Hollywood: 20 Questions for the 8-year-old star of Beasts of the Southern Wild"বক্সঅফিস ম্যাগাজিন। এপ্রিল ১৯, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৪, ২০১২ 
  5. ব্ল্যাকলি, রিস (জানুয়ারি ১০, ২০১৩)। "Youngest v oldest actress vie for Oscar as Lincoln leads the pack"দ্য টাইমস। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০১-১০ 
  6. ওয়াকার, টিম (জানুয়ারি ১০, ২০১৩)। "Quvenzhané Wallis v Emmanuelle Riva: Best actress Oscar contested by oldest and youngest ever nominees"দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০১-১০ 
  7. "OSCARS Interview: Quvenzhané Wallis"ডেডলাইন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০২১ 
  8. ম্যাকনাইট, লরা (মে ১৩, ২০১০)। "Houma girl to star in independent film"দ্য ডেইলি কমেট। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০২১ 
  9. ইবার্ট, রজার (জুন ২২, ২০১২)। "Quvenzhané. A small force of nature"Roger Ebert's Journal। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০২১ 
  10. ওয়ার্ড, কেট। "How to Pronounce 25 Difficult Celebrity Names"হলিউড.কম। জুন ৪, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০২১The first name of the Oscar-nominated Beasts of Southern Wild star is, fittingly, a beast. But it has a lovely backstory: "Quven" combines her parents' first names (Qulyndreia and Venjie) and "zhane" is Swahili for "fairy". 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]