কেস্রিক উইলিয়ামস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কেস্রিক উইলিয়ামস
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামকেস্রিক ওমারি কেনাল উইলিয়ামস
জন্ম (1990-01-17) ১৭ জানুয়ারি ১৯৯০ (বয়স ২৯)
স্প্রিং ভিলেজ, সেন্ট ভিনসেন্ট
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১১উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডস
২০১৩-২০১৪কম্বাইন্ড ক্যাম্পাসেস
২০১৬জ্যামাইকা তালাওয়াস
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬

কেস্রিক ওমারি কেনাল উইলিয়ামস (ইংরেজি: Kesrick Williams; জন্ম: ১৭ জানুয়ারি, ১৯৯০) সেন্ট ভিনসেন্টের স্প্রিং ভিলেজে জন্মগ্রহণকারী বিশিষ্ট ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটার।[১] ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। ঘরোয়া ক্রিকেটে বেশ কয়েকটি দলে খেলেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতে ফাস্ট-মিডিয়াম বোলিং করে থাকেন। পাশাপাশি ডানহাতে ব্যাটিংও করে থাকেন কেস্রিক উইলিয়ামস

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

মার্চ, ২০১১ সালে উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডসের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ২০১০-১১ আঞ্চলিক চারদিনের প্রতিযোগিতায় দলের প্রতিপক্ষ ছিল ইংল্যান্ড লায়ন্স।[২] এরপর ২০১২-১৩ মৌসুমে কম্বাইন্ড ক্যাম্পাসেস দলের পক্ষে খেলেন। সীমিত ওভারের প্রতিযোগিতা হিসেবে ২০১২-১৩ রিজিওন্যাল সুপার৫০-এ দলকে ফাইনালে নিয়ে যান। কিন্তু, ২০১৩-১৪ মৌসুমে দলের পক্ষে অনিয়মিত অবস্থায় অংশগ্রহণ করেন।[৩] ২০১৬ সাল পর্যন্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঘরোয়া ক্রিকেটের শীর্ষ স্তরে তাকে দেখা যায়নি। কিন্তু ২০১৬ সালে ক্যারিবীয় প্রিমিয়ার লীগে জ্যামাইকা তালাওয়াসের পক্ষে সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সকলের নজর কাড়েন। ঐ প্রতিযোগিতায় তেরো খেলার সবকটিতে অংশ নেন ও ১৭ উইকেট দখল করেন। ডোয়েন ব্র্যাভোসোহেল তানভিরের পর প্রতিযোগিতায় তার অবস্থান ছিল তৃতীয়।[৪][৫] গায়ানা আমাজন ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে নিজস্ব সেরা ৪/৩৭ লাভ করলেও চূড়ান্ত খেলায় তাল্লাওয়াজের শিরোপা বিজয়ে তার বোলিং ছিল ২/১২।[৬]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সেপ্টেম্বর, ২০১৬ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলার জন্য টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক দলে তাকেও অন্তর্ভূক্ত করা হয়। শেষদিকে তিনি আন্দ্রে রাসেলের স্থলাভিষিক্ত হন।[৭] ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ তারিখে প্রতিপক্ষীয় পাকিস্তানের রুম্মন রইসের সাথে তারও টি২০আইয়ে অভিষেক ঘটে।[৮] খেলায় নির্ধারিত ৪ ওভারে ২/১৫ লাভ করলেও তার দল ৮ উইকেটে পরাভূত হয়েছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Kesrick Williams – CricketArchive. Retrieved 13 January 2016.
  2. First-class matches played by Kesrick Williams – CricketArchive. Retrieved 13 January 2016.
  3. List A matches played by Kesrick Williams – CricketArchive. Retrieved 13 January 2016.
  4. Records / Caribbean Premier League, 2016 - Jamaica Tallawahs / Batting and bowling averages, ESPNcricinfo. Retrieved 17 September 2016.
  5. Records / Caribbean Premier League, 2016 / Most wickets, ESPNcricinfo. Retrieved 17 September 2016.
  6. Twenty20 matches played by Kesrick Williams – CricketArchive. Retrieved 17 September 2016.
  7. "Williams replaces Russell in West Indies T20 squad", ESPNcricinfo, 16 September 2016. Retrieved 17 September 2016.
  8. "West Indies tour of United Arab Emirates, 3rd T20I: Pakistan v West Indies at Abu Dhabi, Sep 27, 2016"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]