কুণ্ডেশ্বরী বিদ্যাপীঠ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কুণ্ডেশ্বরী বিদ্যাপীঠ
অবস্থান

, ,
+880
তথ্য
ধরনবে-সরকারী আবাসিক স্কুল
শ্রেণীশ্রেণী ১ম - স্নাতক
লিঙ্গবালিকা
বয়সসীমা৫ - ২২
ভাষার মাধ্যমবাংলা
বোর্ডচট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড
অধিভূক্ত বিশ্ববিদ্যালয়জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

কুণ্ডেশ্বরী বিদ্যাপীঠ বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলায় অবস্থিত একটি আবাসিক বিদ্যায়তন। বাবু নূতন চন্দ্র সিংহ এই বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এবং ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধকালীন সময় তাকে এখানে হত্যা করার সাথে সাথে এই প্রতিষ্ঠানটিতেও ব্যাপক লুটতরাজ চালানো হয়।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

তখন রাউজান থানায় কোন বিদ্যালয় ছিল না বলে নিজের মেয়েকে লেখাপড়া শেখাতে পারেননি, ফলে বাবু নূতন চন্দ্র সিংহের মনে ভারী কষ্ট ছিল; তাই মেয়েদের লেখাপড়ার সুযোগ করে দেয়ার জন্য আবাসিক সুবিধাসহ তিনি কুণ্ডেশ্বরী বিদ্যাপীঠ গড়ে তুলেছিলেন।[২]

অবকাঠামো[সম্পাদনা]

এখানে শিক্ষার্থীরা ১ম শ্রেণী থেকে স্নাতক পর্যন্ত আবাসিক ব্যবস্থাপনায় শিক্ষা গ্রহণ করে থাকে। প্রতিষ্ঠানটিতে নিজস্ব ডাকঘর, সরাসরি টেলিফোন যোগাযোগ, পানির পাম্প, জেনারেটর, বাস ইত্যাদির ব্যবস্থা রয়েছে।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "মৃত্যুর আরও কাছে সাকা"দৈনিক আমাদের সময়। ৩১ জুলাই ২০১৫। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ অক্টোবর ২০১৫ 
  2. বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ : দলিলপত্র (অষ্টম খন্ড) - গণহত্যা, শরনার্থী শিবির ও প্রাসঙ্গিক ঘটনা; পৃষ্ঠা নং: ৪৬৫।