ওয়ার্ক (১৯১৫-এর চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ওয়ার্ক
Chaplin and Purviance in Work.jpg
Still of Charlie Chaplin and Edna Purviance for the film.
পরিচালকচার্লি চ্যাপলিন
প্রযোজকজেস রবিনস
রচয়িতাচার্লি চ্যাপলিন
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকাররবার্ট ইসরায়েল (কিনো ভিডিও)
চিত্রগ্রাহকহ্যারি এনসাইন
সম্পাদকচার্লি চ্যাপলিন
পরিবেশকএসানে স্টুডিওজ
জেনারেল ফিল্ম কোম্পানি
মুক্তি
  • ২১ জুন ১৯১৫ (1915-06-21)
দৈর্ঘ্য৩৩ মিনিট
দেশমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ভাষানির্বাক
ইংরেজি (মূল আন্তঃভাষ্য)

ওয়ার্ক (ইংরেজি: Work, অনুবাদ 'কর্ম') হল চার্লি চ্যাপলিন রচিত ও পরিচালিত ১৯১৫ সালের মার্কিন নির্বাক চলচ্চিত্র। এটি এসানে স্টুডিওজের অধীনে তার অষ্টম চলচ্চিত্র। এতে শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেছেন চ্যাপলিন, চার্লস ইনস্লি, এডনা পারভায়েন্স, মার্থা গোল্ডেন। এটি লস অ্যাঞ্জেলসের ম্যাজেস্টিক স্টুডিওতে ধারণ করা হয়।

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

চার্লি রংমিস্ত্রি ইজি. এ ওয়েকের সহকারী। তারা দুজন একটি গাড়িতে করে কাজের জন্য যাচ্ছে। ওয়েক গাড়িতে আরাম করে বসে আছে এবং চার্লি গাধার মত গাড়িটি ঠানছে। ওয়েকও তার সাথে গাধার মত আচরণ করছে, কখনো স্লথ গতিতে চললে তাকে তার হাতের ছড়িটি দিয়ে আঘাত করছে। ওয়েক তাকে ছোট পাহাড়ের উপর দিয়ে শর্টকাট নিতে বললে গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চলন্ত একটি গাড়ির নিচে চলে গিয়েছিল। দ্বিতীয় প্রচেষ্টায় তারা সফল হয়। তাদের যে বাড়িতে কাজ করার কথা, চার্লি সে বাড়ির গৃহপরিচারিকার প্রতি আকৃষ্ট হয়। ওয়েক দেয়ালে রং করতে গিয়ে পড়ে যান এবং তার মাথা রংয়ের বালতিতে ঢুকে যায়। বাড়িওয়ালা তার স্ত্রীকে জানায় তাদের ঘরের স্টোভটি যে কোন মুহূর্তে ফেটে যেতে পারে। এসময় গৃহপরিচারিকা চার্লি যে কক্ষে রং করছিল সেখানে আসলে তাকে একটি দুঃখের গল্প শুনায়। ইতোমধ্যে বাড়িওয়ালার স্ত্রীর এক গোপন প্রেমিকা আসলে সে তাকে রংমিস্ত্রীদের একজন হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেয়। সেও রংয়ের বালতি নিয়ে উপরের তলায় গেলে চার্লি তার মুখে রং লাগিয়ে দেয়। বাড়িওয়ালা সেই প্রেমিকের আনা একটি ফুল দেখতে পেয়ে রেগে যায় এবং গুলি ছুড়তে শুরু করে। মারপিঠের এক পর্যায়ে ত্রুটিপূর্ণ স্টোভটি বিকট শব্দে ফেটে যায়।

কুশীলব[সম্পাদনা]

প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

প্যাট্রিক ছবিটিকে ৩.৫/৪ তারকা দেন এবং বলেন "চ্যাপলিনে লিটল ট্রাম্প এতটাই পছন্দনীয় যে সে আপনার মনোযোগ ধরে রাখবে। তার চলচ্চিত্রগুলো হল তার নিষ্ঠুর পৃথিবী ও পারিপার্শ্বিকতা বিষয়ে তার প্রতিক্রিয়াগুলো দেখা। এরিক ছবিটিকে ২/৪ তারকা দিয়ে বলেন, "ছবিটি চ্যাপলিনের অন্যান্য চলচ্চিত্রের চেয়ে কম বিনোদন প্রদান করেছে। মূল সমস্যা চ্যাপলিনের পরিচালনায়।" এ. ও. স্কট ছবিটিকে ২/৪ তারকা দিয়ে বলেন, "এটি চ্যাপলিন ও সেসময়ের অন্যান্য পরিচালকদের ত্রুটির প্রতিবিম্ব। তারা তখনও চলচ্চিত্রে কখন হাস্যরস প্রয়োগ করবেন তার উপযুক্ত সময় খুঁজছিলেন।"[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Movie Review Work"threemoviebuffs। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মার্চ ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]