উম্মে মাবাদ বিনতে খালিদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

উম্মে মাবাদ বিনতে খালিদ মুহাম্মাদের একজন নারী সাহাবা ছিলেন। তিনি ৬২২ সালে মুহাম্মাদের হিজরতের সময়, মুহাম্মাদ ও তার সহযোগীদের নিজের ঘরে আশ্রয় দিয়ে সাহায্য করেন এবং বকরি জবাই করে আপ্যায়ন করেন।[১][২]

পরিচয়[সম্পাদনা]

উম্মে মাবাদের আসল নাম আতেকা, তার উপনাম হচ্ছে উম্মে মা’বাদ কুনিয়াত, আর এই নামেই তিনি পরিচিত ছিলেন। তিনি ছিলেন খুনাইস ইবনে খালেদের বোন। বংশধর পরম্পরায় নাম হলো উম্মে মা’বাদ বিনতে খালিদ ইবনে খালিফ ইবনে মানকাদ ইবনে রবিয়া ইবনে হরম ইবনে খমিস ইবনে হারাম ইবনে হাবিসা ইবনে কা’আব ইবনে আমর।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

আতেকা খোযায়া গোত্রের কন্যা ছিলেন এবং তার চাচাত ভাই তামিম ইবনে আব্দুল ওয্যা ইবনে মুনকাযের সাথে তার বিয়ে হয়। তিনি ৮ম হিজরির দিকে ইসলাম গ্রহণ করেন।

পরিচিতির কারণ[সম্পাদনা]

৬২২ সালে হিজরতের সময় মুহাম্মাদ তার গৃহে অবস্থান করেছিলেন। তার গৃহ ছিল কুদাইদ নামক স্থানে, সোমবার শেষ রাত্রে বা মঙ্গল বার ভোর রাত্রে গুহা থেকে বের হলে মক্কার নিম্নাঞ্চল থেকে মুহাম্মাদের উপস্থিতির কথা সকলের নিকট অবগত হয়। মুহাম্মাদ যখন হযরত উম্মে মা’বাদের গৃহে অবস্থান করেন, তখন তার সাথে আবু বকর এবং তার ভৃত্য আব্দুল্লাহ ইবনে আরিকিতও ছিলেন।[৩] উম্মে মা’বাদ তাদের একটি বকরি জবাই করে আপ্যায়ন করেন।[৪]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

আতেকার মৃত্যু সাল ও মৃত্যু স্থান সম্পর্কে তেমন কিছু জানা যায়না।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "হযরত উম্মে মা'বাদ বিনতে খালিদ (রা.)"নও মুসলিম (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৭-১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৪-০৭ 
  2. "হযরত উম্মেমা'বাদ বিনতে খালিদ (রা.) এর জীবনী - সাহাবীদের জীবনী"BANGLA ISLAMIC WEBSITE (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-০৯-২৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৪-০৭ 
  3. "ইসলামের প্রথম যুগে হিজরত | কালের কণ্ঠ"Kalerkantho। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৪-০৭ 
  4. "নবীজির হিজরত ও হিজরি ক্যালেন্ডার"www.shomoyeralo.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৪-০৭