ইয়েমি আদামোলেকুন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইয়েমি আদামোলেকুন
Enough is Enough Yemi Adamolekun, Executive Director of Enough is Enough Nigeria (8117255297).jpg
২০১২ সালে ইয়েমি আদামোলেকুন
জাতীয়তানাইজেরীয়
প্রতিষ্ঠানএনাফ ইজ এনাফ (নাইজেরিয়া)

ইয়েমি আদামোলেকুন এনাফ ইস এনাফের নির্বাহী পরিচালক। তিনি নাইজেরিয়ায় সুশাসনের জন্য প্রচারণা চালান এবং সেন্টার ফর স্ট্রাটেজিক এন্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিসের জোষ্ঠ সহযোগী হিসেবে কাজ করেন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

আদামলেকুন ওবাফেমি আওলোও বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়াশুনা করেন তবে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের আগে তিনি লাগোস বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেন। তারপরে তিনি ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন এবং অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের লন্ডন স্কুল অফ ইকোনমিক্স এবং স্যাড বিজনেস স্কুল থেকে স্নাতকোত্তর লাভ করেন। [১][২]

পেশা[সম্পাদনা]

refer to caption
২০১২ সালে এক সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন ইয়েমি আদামোলেকুন

আদামোলেকুন নেভিগ্যান্ট কনসাল্টিং কোম্পানি চাকরির মাধ্যমে তা কর্মজীবন শুরু করেন, তারপর এল্ডার কনসাল্টিং-এ কাজ করার জন্য নাইজেরিয়ায় ফিরে আসেন। [১] তারপর তিনি এনফ ইজ ইনফের নির্বাহী পরিচালক হন, যেটি ভালো প্রশাসনের জন্য প্রচারনার কাজ করে। সংস্থাটি বিভিন্ন গ্রুপকে সমন্বিত করে এবং ২৫টি রাজ্যে রেডিও অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে। এটি কাটসিনায় সহিংসতার বিরুদ্ধে কাজ করা, ওসুন রাজ্যে একটি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র পুনরায় চালু করা এবং নাইজার রাজ্যের বিদ্যালয়ের ছাদগুলি মেরামত করতে সহায়তা করা ইত্যাদি স্থানীয় উদ্যোগকে সমর্থন জানায়। [৩] আদামোলেকুন অলআফ্রিকাকে জানান: "নাইজেরিয়ার একটি কেন অশান্তিপূর্ণ তার কারণ বিপুল পরিমাণ দারিদ্র্য: মানুষ দুষ্প্রাপ্য সংস্থান, নিরাপত্তাহীনতা, অবিশ্বাসের উপর লড়াই করছে - মানুষ বেঁচে থাকতে মরিয়া"। [৪] নির্বাচনের সময়, ইনফ ইজ ইনফ তাদের "আরএসভিপি" প্রচারভিযান চালু করে, এই প্রচারণা মানুষকে নিবন্ধন, নির্বাচন, ভোট এবং সুরক্ষায় উত্সাহিত করে। এটি জাতীয় পরিষদে আরও স্বচ্ছতার দাবি জানায় এবং চিবোক স্কুলছাত্রীদের অপহরণের পরে "ব্রিনব্যাকআরগার্লস" আন্দোলনে অংশ নেয়। [২]

আদামোলেকুন সেন্টার ফর স্ট্রাটেজিক এন্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিসের জোষ্ঠ সহযোগী হিসেবে কাজ করেন।[৫] ২০১৮ সালে আফ্রিকার বংশোদ্ভূত সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের তালিকায় আদামোলেকুন স্থান পান। [২] এছাড়াও ২০১৮ সালে, তিনি চিকিৎসা করার জন্য রাষ্ট্রপতি মুহম্মু বুহারি ও তার ছেলের বিদেশ যাওয়ার সমালোচনা করেন, যেসময় নাইজেরিয়ার স্বাস্থ্যসেবা পেশাদাররা আরও ভাল কাজের অবস্থার জন্য ধর্মঘটে ছিলেন। [৬]

২০১৯ সালের নাইজেরিয়ার সাধারণ নির্বাচনের আগে ইস্রায়েল আয়ে, এনদিদি এবং ইয়েমি ওসিনাইকের পাশাপাশি আদামোলেকুন একটি প্যানেলে ছিলেন, যে প্যানেলটি লাগোস গুবার্নেটরিয়াল বিতর্কে রাজনৈতিক প্রার্থীদের প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করার কাজ করেছিল। [৭] তারপর তিনি নট ইন মাই চার্চ আন্দোলনের মুখপাত্র হিসেবে কাজ করেন; পাদ্রি বায়োডুন ফাতোয়েনবো কম বয়সী একজঙ্কে ধর্ষণের অভিযোগে কমন ওয়েলথ অফ জিয়ন অ্যাসেম্বলি ছেড়ে যান ও একমাস পরে এতে ফিরে আসেন, তখন এই আন্দোলন্দ শুরু হয়েছিল। [৮]

নভেম্বরে ২০১৯ সালে, তিনি আবুজার ওমোয়েলে সোয়োরের সমর্থনে একটি বিক্ষোভ অনুষ্ঠানে অংশ নেন এবং অভিযোগ জানান যে তিনি যখন দু'জন সাংবাদিককে মারধর করার বিষয়টি রেকর্ড করছিলেন তখন রাজ্য সুরক্ষা পরিষেবা বাহিনীর সদস্যরা তাকে আক্রমণ করে এবং তার মোবাইল টেলিফোনটি ভেঙে দেয়। [৯] এই অনুষ্ঠানে তিনি সোয়োরের প্রতিটি আদালতে শুনানিতে অংশ নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। [১০] ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে, সোয়োরকে মুক্তি দেওয়া হয় এবং পরের দিন আবার তাকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং এতে আদামোলেকুন আরেকটি বিক্ষোভ করেন, যাতে অজানা লোকেরা আক্রমণ করে। [১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Oladipo, Bimpe (২২ জানুয়ারি ২০১৯)। "ADAMOLEKUN, Yemi"Biographical Legacy and Research Foundation। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২০ 
  2. "Meet Yemi Adamolekun – MIPAD Blog"MIPAD। সংগ্রহের তারিখ ৭ মে ২০২০ 
  3. "Nigeria: 'Enough Is Enough' Aims to Reclaim Citizen Power"allAfrica.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ১৩ মার্চ ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২০ 
  4. Kramer, Tami Hultman and Reed। "EXTREMIST SURGE: US military presence in Africa falls under the spotlight"Daily Maverick (ইংরেজি ভাষায়)। ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২০ 
  5. "Yemi Adamolekun"CSIS। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২০ 
  6. Akinwotu, Emmanuel (৮ মে ২০১৮)। "Nigeria's President Draws Criticism for Seeking Medical Care Abroad"The New York Times। ২২ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২০ 
  7. Okeowo, Mosopefoluwa (১৪ জানুয়ারি ২০১৯)। "Key highlights of the 2019 Lagos Gubernatorial debate"Ventures Africa। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২০ 
  8. "Nigeria outrage as rape accused pastor returns"BBC News। ৫ আগস্ট ২০১৯। ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২০ 
  9. Ogundipe, Samuel (১২ নভেম্বর ২০১৯)। "How I was attacked by SSS officers — Activist - Premium Times Nigeria"Premium Times। ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২০ 
  10. Olabimtan, Bolanie (৮ মার্চ ২০২০)। "Aisha Yesufu, Bukky Shonibare — Nigerian women creating change through advocacy"The Cable। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২০ 
  11. Omokhunu, Gbenga; Kalu, Nicholas (২৩ ডিসেম্বর ২০১৯)। "Several injured as miscreants disrupt Pro-Sowore protest"The Nation। ১৪ এপ্রিল ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০২০