আহমেদ শফি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আহমেদ শফি
ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য
কাজের মেয়াদ
২০১১ – ২০১৫
উত্তরসূরীএম এম শহীদুল হাসান[১]
ব্যক্তিগত বিবরণ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
পিতাআবদুস সালাম
প্রাক্তন শিক্ষার্থী
পেশাশিক্ষাবিদ, পদার্থবিজ্ঞানী, অধ্যাপক

আহমেদ শফি একজন বাংলাদেশী শিক্ষাবিদ, পদার্থবিজ্ঞানী এবং অধ্যাপক। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান এবং ২০১১ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।[২]

প্রারম্ভিক জীবন ও শিক্ষা[সম্পাদনা]

আহমেদ শফি হলেন একুশে পদক জয়ী সাংবাদিক আবদুস সালামের একমাত্র পুত্র। তিনি সেন্ট গ্রেগরী স্কুল থেকে মাধ্যমিক ও নটর ডেম কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সমাপ্ত করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। সেখান থেকে তিনি পদার্থবিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। এসময় তিনি পূর্ব পাকিস্তানে স্নাতক পর্যায়ের সেরা ছাত্র হিসেবে রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন। এরপর তিনি একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন এবং এবারও বিশ্ববিদ্যালয়ের শীর্ষ স্থান অধিকার করেন। ফলে পাকিস্তান সরকারের ওভারসিজ বৃত্তি নিয়ে তিনি উচ্চতর শিক্ষার জন্য যুক্তরাজ্যে যান। সেখানে ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।[৩]

কর্ম জীবন[সম্পাদনা]

১৯৯৯ সালের ৪ নভেম্বর শফি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সেন্টারের পরিচালক নিযুক্ত হন। ২০০১ সালের ২৭ জুন কম্পিউটার সেন্টারকে ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজিতে উন্নীত করা হলে তিনি এর প্রথম পরিচালকের দায়িত্ব পান। ২০০২ সালের ২৪ জুলাই পর্যন্ত তিনি এ দায়িত্ব পালন করেন।[৪] এরপর ২০০২ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

২০১১ সালে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান তাকে ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩য় উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেন।[২] ২০১৫ সাল পর্যন্ত তিনি এ দায়িত্ব পালন করেন। এরপর এম এম শহীদুল হাসান তার স্থলাভিষিক্ত হন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

আহমেদ শফি সুলতানা রাজিয়া (বিবাহের পর সুলতানা শফি)-এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। সুলতানা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ও ক্যামব্রিজ থেকে পিএইচডি সম্পন্ন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েই অধ্যাপনা করেন। তাদের দুই মেয়ে – ফারিয়াল শফি ও রেবেকা শফি। দুজনেই যুক্তরাষ্ট্রে লেখাপড়া করছেন।[৫][৬] রেবেকার এনডিমিয়া নামে এক পুত্র সন্তান আছে।[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ভিসি শহীদুল হাসান"banglanews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-১৬ 
  2. "Dr Shafee new EWU VC"দ্য ডেইলি স্টার (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১১-১০-০৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-১৬ 
  3. "Ahmed Shafee"opinion.bdnews24.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১০-১০-১২। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-১৬ 
  4. "IIT, DU - Highest Echelon of Software Engineering in Bangladesh"www.iit.du.ac.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-১৬ 
  5. "'ছেড়ে দিয়েই জিতে যেতে চাই', সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল এই মেয়েটি আসলে কে"Kolkata24x7। ২০১৯-০৭-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-১৬ 
  6. "ঢাকার মেয়ে রেবেকার ২৬ বছর আগের আবেগঘন ভিডিও ভাইরাল"Jugantor। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-১৬ 
  7. "রেবেকা এখন যুক্তরাষ্ট্রে, ২৬ বছর আগের ভিডিও ভাইরাল"Odhikar। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-১৬