আল্লামা ইকবাল এক্সপ্রেস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আল্লামা ইকবাল এক্সপ্রেস
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
পরিষেবা ধরনআন্তঃ-শহর রেল, মেইল এক্সপ্রেস
পূর্বসূরীশাহিন এক্সপ্রেস
প্রথম পরিষেবা১৯৪০
বর্তমান পরিচালকপাকিস্তান রেলওয়ে
যাত্রাপথ
শুরুকরাচি ক্যান্টনমেন্ট
শেষশিয়ালকোট জংশন
দূরত্ব ভ্রমণ১,৩৬২ কিলোমিটার (৮৪৬ মা)
যাত্রার গড় সময়২৫ ঘন্টা
পরিষেবার হারদৈনিক
রেল নং9UP (করাচি→শিয়ালকোট)
10DN (শিয়ালকোট→করাচি)
যাত্রাপথের সেবা
শ্রেণীইকোনমি
ঘুমানোর ব্যবস্থাসহজলভ্য
খাদ্য সুবিধাসহজলভ্য নয়
কারিগরি
ট্র্যাক গেজ১,৬৭৬ mm (5 ft 6 in)
ট্র্যাকের মালিকপাকিস্তান রেলওয়ে
পথের মানচিত্র
আল্লামা ইকবাল এক্সপ্রেস রুট মানচিত্র

আল্লামা ইকবাল এক্সপ্রেস (উর্দু: علامہ اقبال ایکسپریس‎‎) হচ্ছে পাকিস্তান রেলওয়ে কর্তৃক পরিচালিত দৈনিক একটি যাত্রীবাহী ট্রেন যা পাকিস্তানের দুটি গুরুত্বপূর্ণ শিল্পকেন্দ্র করাচি ও শিয়ালকোটের মধ্যে চলাচল করে। ১,৩৬২ কিলোমিটারের (৮৬২ মাইল) দূরত্ব অতিক্রম করতে যাত্রার সময় লাগে প্রায় ২৫ ঘন্টা এবং ৩০ মিনিট, করাচি-পেশাওয়ার রেলওয়ে লাইন, শাহদারা বাগ-চাক আমরু ব্রাঞ্চ লাইন এবং ওয়াজিরাবাদ-নারোওয়াল ব্রাঞ্চ লাইন বরাবর ভ্রমণ করা যায়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

আল্লামা ইকবাল এক্সপ্রেস পাকিস্তানের পুরাতন এক্সপ্রেস ট্রেনগুলির মধ্যে অন্যতম, ১৯৪০ সালের শুরুর দিকে "শাহিন এক্সপ্রেস" হিসেবে করাচি থেকে শিয়ালকোট ফয়সালাবাদ পথ দিয়ে চলত। ১৯৮৫ সালে, পাকিস্তানের বিখ্যাত কবি আল্লামা ইকবালের সম্মানে শাহিন এক্সপ্রেস নাম পরিবর্তন করে আল্লামা ইকবাল এক্সপ্রেস নামে নামকরণ করা হয়।[১]

রুট[সম্পাদনা]

১৯৯৮ সালে, আল্লামা ইকবাল এক্সপ্রেস ওয়াজিরাবাদ জংশন থেকে শিয়ালকোট জংশন ভায়া পুননির্দেশিত হয়। ২০০৪ সালে, এটি পুনরায় বর্তমান ভায়া নারোওয়াল জংশনে পুননির্দেশিত হয়।

স্টেশন স্টপসমূহ[সম্পাদনা]

[২]

উপকরণ[সম্পাদনা]

ট্রেনটি ১৬ টি অংশ, ১টি পাওয়ার ভ্যান এবং ১টি লাগেজ ভ্যান কোচের সমন্বয়ে গঠিত। ট্রেনটি সম্পূর্ণভাবে ডিজেল ট্র্যাকশনের উপর চলে।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]