আর্মেনিয় গণহত্যা স্মারক দিবস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আর্মেনিয় গণহত্যা স্মারক দিবস
Tsitsernakaberd24.04.2009.JPG
অন্য নামআর্মেনিয় গণহত্যা স্মরণিক দিবস
পালনকারী আর্মেনিয়া
টেমপ্লেট:দেশের উপাত্ত আর্তসাখ
ক্যালিফোর্নিয়া
 কানাডা
 ইরান[১]
 লেবানন
 আর্জেন্টিনা
ধরনজাতীয়
তাৎপর্যআর্মেনিয়ান গণহত্যা স্মৃতিচারণ
তারিখ২৪শে এপ্রিল
সংঘটনবার্ষিক

আর্মেনিয় গণহত্যা স্মারক দিবস হলো আর্মেনিয়ার জাতীয় দিবস, যেটি ১৯১৫ সালে গণহত্যার শিকার হওয়া আর্মেনিয়দের স্মরণার্থে প্রতি বছর উদযাপিত হয়।[২] আর্মেনিয়ার রাজধানী ইয়েরেভানে অবস্থিত সিটসেরনাকাবের্ড নামক স্মৃতিস্থম্ভে প্রতি বছর ২৪শে এপ্রিল [২][৩] ফুল অর্পণের মাধ্যমে আর্মেনীয়রা দিবসটি স্মরণ করে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

তেহরানের সেন্ট সার্কিস ক্যাথেড্রলে আর্মেনিয় গণহত্যার স্মৃতিস্মারক

আর্মেনীয় গণহত্যা "আর্মেনিয় হলোকাস্ট"[৪] নামেও পরিচিত যেখানে অটোমান সরকার ১.৫ মিলিয়ন আর্মেনিয়দের হত্যা করার মাধ্যমে এই গণহত্যা সংঘটিত করে। এই গণহত্যা প্রথম বিশ্বযুদ্ধে শুরু হলেও যুদ্ধ শেষ হওয়ার পরেও চলতে থাকে। ২৪শে এপ্রিলে শুরু হওয়া এই গণহত্যায় কনস্টান্টিনোপল (বর্তমান ইস্তানবুল) থেকে আর্মেনিয়দের ধরে এনে আঙ্কারায় নিয়ে এসে অত্যাচার করা হতো যাদের বেশিরভাগকেই পরবর্তীতে হত্যা করা হয়। বেশিরভাগ প্রবাসী-আর্মেনিয়রাই গণহত্যায় স্বীকার হওয়াদের উত্তরসূরী, যারা সেই সময় পালিয়ে বিভিন্ন দেশে আশ্রয় নিয়েছিল। এটি ইহুদি গণহত্যার পরেই এটি সমধিক আলোচিত গণহত্যার মধ্যে একটি।[৫]

২৪শে এপ্রিল কনস্টান্টিনোপল (বর্তমান এটি তুরষ্কের রাজধানী ইস্তাম্বুল) থেকে আর্মেনিয় বুদ্ধিজীবীদের নির্বাসন ও হত্যা করার ঘটনাকে স্মরণে রেখে এই দিবসটি উদযাপিত হয়। ১৯১৯ সালে ইস্তানবুলের সেন্ট ট্রিনিটি গীর্জায় প্রথম এই স্মরণ-দিবস পালন করা হয়।[৬] সেই স্মরণসভায় আর্মেনিয় সমাজের অনেক বিশিষ্ট মানুষ যোগদান করে। পরবর্তীতে গীর্জাতে পালন করা এই দিনটিই পাকাপাকিভাবে আর্মেনিয় গণহত্যা স্মারক দিবস হিসেবে নির্ধারিত হয়।[৬]

১৯৭৫ সালে ৯ এপ্রিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভস এই দিনটিকে "মানবতাবিরোধী দিবস" হিসেবে পালন করার প্রস্তাব পেশ করে।[৭] মূলত আর্মেনিয়ার নিরস্ত্র জনগণের উপর তুর্কীদের গণহত্যাকে স্মরণ করার উদ্দেশ্যেই এই প্রস্তাব পেশ করা হয়েছিল। কিন্তু তুরষ্কের সাথে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার আশঙ্কায় প্রেসিডেন্ট জেরাল্ড ফোর্ড এর বিরোধীতা করলে মার্কিন সিনেটের বিচার বিভাগ কমিটিতে এই প্রস্তাব পাশ হওয়া থেকে আটকে যায়।[৮]

১৯৮৮ সালে "সোভিয়েত আর্মেনিয়া" ২৪শে এপ্রিল দিনটিকে সার্বজনীন স্মারক দিবস হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্ত নেয়।[৯]

আর ১৯৯৭ সালে ক্যালেফোর্নিয়া রাজ্য বিধানসভা ২৪শে এপ্রিল তারিখটিকে আর্মেনিয় গণহত্যা স্মারক দিবসের পাশাপাশি ১৯৮৮ ও ১৯৯০ সালে আজারবাইজানে সংঘটিত হওয়া আর্মেনীয়দের উপর সাম্প্রদায়িক হামলাকেও স্মরণ করার প্রস্তাব দেয়।[৯]

২০০৭ সালে আর্জেন্টিনাও "আইন ২৬, ১৯৯" পাশ করার মাধ্যমে ২৪শে এপ্রিলকে "সহনশীলতা ও জনগণের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের দিন" হিসেবে ঘোষণা করে দিনটিকে তাদের আর্মেনিয় বংশোদ্ভূত নাগরিকদের জন্য ছুটির দিন হিসেবে নির্ধারণ করেছে।

২০১৫ সালে সর্বসম্মতিক্রমে কানাডার সাংসদ ব্র্যাড বাটও পার্লেমেন্টে "মোশন এম-৫৮৭" আইন পাশ করানোর মাধ্যমে ২৪শে এপ্রিলকে কানাডায় আর্মেনীয় গণহত্যা স্মারক দিবস হিসেবে পালন করার প্রস্তাব পাশ করে।[১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Armenians in Iran Hold Protest Rally to Mark 1915 Genocide"। ২৪ এপ্রিল ২০১৭। ২৫ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ নভেম্বর ২০১৮ 
  2. Jones, Adam (২০১০)। Genocide: A Comprehensive Introduction। Taylor & Francis। পৃষ্ঠা 156। আইএসবিএন 9780203846964 
  3. Hovannisian, Richard G., সম্পাদক (১৯৯২)। The Armenian Genocide: History, Politics, Ethics। Palgrave Macmillan। পৃষ্ঠা 339। আইএসবিএন 9780312048471 
  4. Fisk, Robert (১৪ অক্টোবর ২০০৬)। "Let me denounce genocide from the dock"The Independent। ২৪ জানুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ আগস্ট ২০১৬ 
  5. Rummel, RJ (১ এপ্রিল ১৯৯৮)। "The Holocaust in Comparative and Historical Perspective"IDEA - a journal of social issues3 (2)। আইএসএসএন 1523-1712 
  6. "At the Origins of Commemoration: The 90th Anniversary Declaring April 24 as a Day of Mourning and Commemoration of the Armenian Genocide"। Armenian Genocide Museum। ১০ মার্চ ২০০৯। 
  7. "United States House of Representatives Joint Resolution 148"Armenian National Institute। ১৯৭৫-০৪-০৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-২৪ 
  8. Gunter, Michael M. (১৫ এপ্রিল ২০১১)। Armenian History and the Question of Genocide। Palgrave Macmillan। পৃষ্ঠা 76। আইএসবিএন 978-0-230-11059-5। সংগ্রহের তারিখ ২৩ এপ্রিল ২০১৩ 
  9. Bloxham, Donald (২৮ এপ্রিল ২০০৫)। The Great Game of Genocide: Imperialism, Nationalism, and the Destruction of the Ottoman Armenians। Oxford University Press। আইএসবিএন 978-0-19-150044-2 
  10. "BRAD BUTT - PRIVATE MEMBERS' MOTIONS - 41ST PARLIAMENT, 2ND SESSION"। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৪, ২০১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]